1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

নিউরোডার্মাটাইটিস : চুলকাতে চুলকাতে রক্তাক্ত হয়ে যায় ত্বক

মশার কামড় খাওয়ার অভিজ্ঞতা হয়নি এমন মানুষ পাওয়া দুষ্কর৷ অনেক সময়েই চুলকাতে চুলকাতে রক্ত বের হয়ে যায় সেই জায়গাটিতে, যেখানে মশা কামড়েছে ৷ আর নিউরোডার্মাটাইটিসের মতো রোগ হলে তো কথাই নেই৷ চুলকানো তাঁদের নিত্য সঙ্গী৷

জার্মানির প্রায় ১৫ শতাংশ শিশু ও তিন শতাংশ প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষ নিউরোডার্মাটাইটিসে আক্রান্ত৷ সাধারণত শিল্পোন্নত দেশগুলিতেই রোগটির প্রকোপ দেখা যায়৷ এটি একটি ক্রনিক অসুখ৷ আক্রান্ত জায়গা লাল হয়ে ফুসকুড়ির মতো দেখা যায়৷ শুরু হয় চুলকানো, যা রীতিমতো এক অত্যাচার৷ রোগীকে নাস্তানাবুদ করে ছাড়ে এই অসুখ৷ আর চুলকানোর ফলে ঘা ও সংক্রমণের সৃষ্টি হয়৷ বিস্তৃত হয় রোগটি৷ আস্তানা গাড়ে ব্যাকটেরিয়ারা৷

সাময়িক প্রশমন হয় মলমে

চিকিত্সার জন্য সাধারণত কর্টিসন মলম দেওয়া হয়৷ এই ওষুধের আবার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও কম নয়৷ এতে ত্বক পাতলা হয়ে যায়৷ শরীরের কোষ সংবেদনশীল হয়ে পড়ে৷ তাই দীর্ঘস্থায়ী কোনো সমাধান হতে পারে না কর্টিসনের প্রয়োগ৷ তবে জরুরি অবস্থায় এই ওষুধ কাজে লাগে৷

নিউরোডার্মাটাইটিস মাঝে মাঝে চাড়া দিয়ে ওঠে৷ তখন চুলকানি বাড়ে, সেই সাথে সংক্রমণও৷ এই অবস্থা কতদিন থাকে, তা বলা যায় না৷ অনেক সময় বয়স হওয়ার সাথে সাথে রোগের প্রকোপ কমে যায়৷ খুব কম ক্ষেত্রেই রোগটি পুরোপুরি ভালো হয়৷

Schornsteine rauchen am Donnerstag, 22. Jan. 2009, ueber dem Industriegebiet in Mannheim. (ddp images/AP Photo/Thomas Kienzle) --- An aerial view of the industrial area in Mannheim, Germany, shows chimneys of plants and factories billowing steam and fume on Thursday, Jan. 22, 2009. (ddp images/AP Photo/Thomas Kienzle)

গাড়ির গ্যাস ও শিল্পকারখানার বিষাক্ত ধোয়া থেকেও হতে পারে এই অসুখ

‘‘নিউরোডার্মাটাইটিস জিনগত কারণে হয়ে থাকে৷ আমাদের জিনেই তা প্রোথিত থাকে৷ তবে রোগটি আদৌ দেখা দেবে কিনা এবং দিলেও কখন কোন পরিস্থিতিতে তা আগে থেকে বলা যায় না৷ শরীরের এই প্রকৃতি আমরা বদলাতে পারি না৷'' বলেন ডুসেলডর্ফ ইউনিভার্সিটি ক্লিনিকের চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ শ্টেফান মিলার৷

রোগটি আদতে সংক্রামক নয়

নিউরোডার্মাটাইটিস সংক্রামক রোগ নয়৷ কিন্তু লাল ও রক্তাক্ত চামড়া দেখলে অনেকের মনে ভয় ও ঘৃণার সৃষ্টি হয়৷ রেনে ফাইফারও এই রকম একজন ভুক্তভোগী৷ তিনি জানান, ‘‘কিন্ডারগার্টেনে তো রীতিমত অত্যাচার মনে হতো৷ বিশেষ করে খেলাধুলার সময়৷ অন্য বাচ্চারা রক্তাক্ত ত্বক দেখলে বুঝতে পারতো না, কী রকম আচরণ করবে আমার সাথে৷''

আজ ৩০ বছর বয়সি ফাইফার সেইসব রোগীদের একজন, যাদের অসুখটি ভালো হয়ে গেছে৷ অবশ্য ছয় বছর বয়স থেকেই রোগমুক্ত তিনি৷ কোনো উপসর্গ নেই৷

তিন মাস বয়সে প্রথম দেখা দেয় রোগটি৷ একদিন টিকা দেওয়ার পর বিছানায় শোয়ানো হয় তাকে৷ পরদিন মা বাচ্চাকে ওঠাতে গিয়ে যেন এক রক্তাক্ত বান্ডিল দেখতে পান৷ সারারাতে চুলকাতে চুলকাতে ঘা হয়ে গেছে শিশুটির৷ সেই থেকে শুরু৷ এরপর চলে ডাক্তারের কাছে ছোটাছুটি ও চিকিৎসার পালা৷ পরে মা বাবা ভুক্তভোগীদের নিয়ে একটি ‘সেল্ফ হেল্প' গ্রুপ গড়ে তোলেন৷ আজ সেই সংস্থার প্রধান রেনে ফাইফার৷

প্রকোপটা শৈশবে কিন্তু বেশি

নবজাত শিশুদের সাধারণত মুখ, বাহু ও পায়ে দেখা দেয় নিউরোডার্মাটাইটিসের লক্ষণ৷ মাঝে মাঝে পিঠে, খুব খারাপ হলে সারা শরীরে ছেয়ে যায় অসুখটি৷ একটু বড় হয়ে স্কুলে যাওয়ার বয়স হলে কিছু কিছু লক্ষণ দূর হয়ে যায়৷ কিন্তু সব ক্ষেত্রে নয়৷ ‘‘সঠিক কারণ ঠিকমতো জানা না থাকলেও স্ট্রেস, ব্যাকটেরিয়া, অ্যালার্জি, ছত্রাক এসব থেকে হতে পারে নিউরোডার্মাটাইটিস'', বলেন স্টেফান মেলার৷

Ein Kind zeigt am Donnerstag (22.10.2009) in der Kinderklinik in Köln seine mit Neurodermitis befallenen Körperpartien. Fast 20 Jahre nach ihrer Entwicklung kommt Mitte November 2009 eine neue Salbe gegen die weit verbreitete Hautkrankheit auf den Markt. Die in drei Studien klinisch getestete Salbe sei ohne Cortison weitgehend nebenwirkungsfrei, sagte eine Sprecherin der Herstellerfirma Regeneratio Pharma (Remscheid) der dpa. Foto: Oliver Berg dpa/lnw (zu dpa 0800) +++(c) dpa - Bildfunk+++

শিশুদের সাধারণত মুখ, বাহু ও পায়ে দেখা দেয় নিউরোডার্মাটাইটিসের লক্ষণ

এছাড়া গাড়ির গ্যাস ও শিল্পকারখানার বিষাক্ত ধোয়া থেকেও হতে পারে এই অসুখ৷ রোগীদের জন্য মূল সমস্যা আক্রান্ত জায়গার ব্যথা বেদনা নয় বরং অসহনীয় চুলকানি৷ এ ব্যাপারে নানা সমীক্ষা চলছে৷ এ জন্য চুলকানোর মাত্রা পরিমাপ করা হয়৷ এক থেকে দশ পর্যন্ত স্কেলে রোগীরা চিহ্ন দিয়ে এই মাত্রা জানাতে পারেন৷ এছাড়া চুলকানোর তীব্রতাও বিবেচনা করা হয় সমীক্ষার জন্য৷ এইভাবে এই চর্মরোগটি সম্পর্কে আরো জানতে চান গবেষকরা৷ বের করতে চান ওষুধপত্র৷ যাতে করে নিউরোডার্মাটাইটিসে আক্রান্ত রোগীদের জীবনটা সহনীয় করে তোলা যায়৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন