1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

‘নিউজগেমস'-এর বিষয় সাম্প্রতিক ঘটনাবলী

কম্পিউটারে গেম আমরা কমবেশি সবাই খেলি৷ কিন্তু ‘নিউজগেমস' – এই ধারণার সঙ্গে কি আমরা সবাই পরিচিত? নামই বলে দিচ্ছে এই গেমের প্রধান বিষয় হচ্ছে নিউজ, মানে সংবাদ৷ সাম্প্রতিক ঘটনাবলী দিয়েই গেমগুলো তৈরি হয়৷

মার্কুস ব্যোশ তাঁর সহকর্মীদের সঙ্গে মিলে গড়ে তুলেছেন ‘দ্য গুড এভিল' নামের একটি কোম্পানি৷ তাঁরা একটি নিউজগেমস তৈরি করেছেন যেটা গেমারদের মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এনএসএ-র ‘প্রিজম' কর্মসূচি সম্পর্কে জানতে সহায়তা করে৷

পেশায় সাংবাদিক মার্কুস ব্যোশ এনএসএ কেলেঙ্কারি সম্বন্ধে ভালোই জানেন৷ তবে তিনি জানেন, বিতর্কটা তরুণদের কাছে একঘেয়ে মনে হয়েছে৷ তাই গেমের মাধ্যমে তরুণদের কাছে বিষয়টা তুলে ধরতে চান মার্কুস৷ তিনি বলেন, ‘‘গতানুগতিক মিডিয়া খুব বেশি লিনিয়ার৷ সেখানে আমি শুধু দেখতে পারি – যেটা যথেষ্ট নয়৷ প্রতিক্রিয়া জানানোরও ব্যবস্থা থাকা উচিত৷ এক্ষেত্রে নিউজগেমস বেশ ভালো৷ সেখানে ফিডব্যাক দেয়া যায়, ইন্টারঅ্যাকশন করা যায়৷ সাংবাদিকতারও অভিজ্ঞতা অর্জন করা যায়৷'' দু'বছর আগে জার্মানির কোলনে ‘দ্য গুড এভিল' কোম্পানিটি গড়ে তোলেন মার্কুস৷ এই স্টার্ট-আপ নিউজগেমস নিয়ে কাজ করে৷

NSA-Hauptquartier in Fort Meade (Maryland)

যুক্তরাষ্ট্রে এনএসএ’র মুখ্য কার্যালয়: এনএসএ নিয়েও নিউজগেম আছে

চার সদস্যের প্রতিষ্ঠানটি সাম্প্রতিক ঘটনা নিয়ে কম্পিউটার গেম তৈরি করে৷ প্রচার মাধ্যমগুলো তাদের ক্লায়েন্ট৷ তারা ভবিষ্যতের ক্রেতা খুঁজছে৷

অবশ্য ব্যবসায়িক মডেলটি এখনো নতুন৷ তাই ক্রেতাদের বোঝাতে মার্কুস ব্যোশকে অনেক চেষ্টা করতে হয়৷ তিনি বলেন, ‘‘এটা একটা চ্যালেঞ্জ৷ আমার মনে হয় নিউজগেমস সম্পর্কে এখনো অনেকে জানে না৷ আসলে গেমস সম্পর্কেই সংশয় রয়েছে৷''

যুক্তরাষ্ট্রে অনেক নিউজগেমস তৈরি হয়েছে৷ নিউ ইয়র্ক টাইমসের ‘বাজেট পাজল' নামে একটি গেম রয়েছে যেখানে গেমাররা একেকজন অর্থমন্ত্রী৷ তাদের যুক্তরাষ্ট্রের বাজেট নিয়ে ভাবতে হয়৷

ব্রিটিশ গেম ‘সোয়েটশপ'-এর বিষয় শিশু শ্রম৷ গেমারকে পোশাক কারখানার উৎপাদন বাড়াতে হবে৷ তবে জিতলে হলে শিশু শ্রমিক নিয়োগ দেবে কি দেবে না, তা মাথায় রাখতে হবে৷ যেন এক উভয় সংকটের পরিস্থিতি৷

গণমাধ্যম বিশেষজ্ঞ গুনডল্ফ এস. ফ্রায়ারমুট মনে করেন ব্যাকগ্রাউন্ড প্রতিবেদনের সঙ্গে নিউজগেমস জুড়ে দেয়া যেতে পারে৷ তিনি বলেন, ‘‘নিউজগেমের ব্যাপারে আমি যেটা দেখি সেটা হচ্ছে, এর বিষয়গুলো সাধারণত দীর্ঘ দিন ধরে ঘটে থাকে৷ ফলে এগুলো ব্যাকগ্রাউন্ড হিসেবে চালানো যায়৷ দিনের পর দিন এর ঘটনায় পরিবর্তন আসে৷ গেমাররাও সেভাবে খেলে থাকে৷''

শুধু সাংবাদিক নয়, অ্যাক্টিভিস্টরাও নিউজগেমস তৈরি করে থাকেন৷ তাদের গেমগুলো গেমারদের বিভিন্ন বিষয়ে সচেতন করে তোলে৷ ‘হাফ দ্য স্কাই ম্যুভমেন্ট' গেমটি উন্নয়নশীল দেশে নারী অধিকারের অবস্থা নিয়ে তৈরি৷ গেমের নারী চরিত্রকে পুরুষদের নির্যাতনের হাত থেকে অবশ্যই বাঁচতে হবে৷ এভাবে গেমারদের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে ভাবনার উদ্রেক হয়৷ সংবাদপত্র, ম্যাগাজিন, রেডিও কিংবা টেলিভিশন রিপোর্টের মতো মাধ্যম হতে পারে নিউজগেমস৷ বিশ্বে যা ঘটছে তা নিউজগেমের মাধ্যমে তুলে ধরা যেতে পারে৷

মার্কুস ব্যোশ নিউজগেমসকে সাংবাদিকতার অন্যান্য মাধ্যমের মতোই বলে মনে করেন৷ তিনি বলেন, ‘‘অন্য যে-কোনো বিষয়ের মতো এটাও শেষ পর্যন্ত মানের উপর নির্ভর করে৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক