1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

আলাপ

নারী-পুরুষের সমতার পৃথিবী সুন্দর পৃথিবী

এবারের নারী দিবসে বাংলাদেশের নারীদের প্রাপ্তি অনেক৷ সামাজিকভাবে নারীদের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, পুরুষের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সমাজের বিভিন্ন জায়গায় কাজ করছেন নারীরা৷ কখনো আবার যোগ্যতার বলে পুরুষদের নেতৃত্বও দিচ্ছেন নারী৷

নারী-পুরুষের এই সমতার চর্চা ভবিষ্যতের সুন্দর মানবিক পৃথিবী গড়ে তুলবে৷ সমতার পৃথিবী সুন্দর পৃথিবী৷ উন্নয়নের দৃশ্যত প্রমাণ নারীর জাগরণ৷ দেশের প্রগতির মাপকাঠি নির্ণয়ে সহজ প্রন্থা নারীর মুক্তি৷ জাতীয় অগ্রসরতার উপায় নারীর ক্ষমতায়ন৷ আজকের বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়নকে এগিয়ে নিয়ে গেছে নারীর অগ্রযাত্রার প্রবাহমানতায়৷

শৃঙ্খল মুক্তির ইতিহাস বাংলার নারীদের একদিনের নয়৷ দীর্ঘ পথ চলার পর নারী পেয়েছে সঠিক সত্যের আলোকধারা৷ এই পথ সৃষ্টির কারিগড় নারীরা৷ তবে পুরুষদেরও সহযোগিতা রয়েছে৷ অবরোধবাসিনী বেগম রোকেয়া যে আলোর মশাল জ্বালিয়েছিলেন, সেই মশাল এগিয়ে নিয়ে গেছেন লীলা নাগ, প্রীতিলতা, ইলা মিত্র'সহ অনেকে৷

বাহান্নর ভাষা আন্দোলন, বাষট্টির শিক্ষা আন্দোলন, ঊনসত্তরের গণঅভূথ্যান এবং একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ৷ নারীর অগ্রযাত্রার একেকটি ধাপ৷ রাজনৈতিক লড়াইয়ে যেমন ছিল নারীর অংশগ্রহণ৷ আবার সাংস্কৃতিক লড়াইয়ে এ দেশের নারীরা খুলে দিয়েছে আলোর উৎস-দ্বার৷ এভারেস্ট্রের চূড়ায় বাংলাদেশের নারীরা এঁকেছেন বিজয়গাথা৷ খেলার মাঠেও নারীদের অগ্রযাত্রা সমতার সমাজ নির্মাণের পথকে সুগম করছে৷

সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে নারীর অগ্রযাত্রায় রাষ্ট্রের পৃষ্ঠপোষকতাও অন্যতম সহায়ক হিসেবে নারীর ক্ষমতায়নে সহায়ক হিসেবে কাজ করছে৷ নারী-পুরুষের সমতাভিত্তিক সমাজ নির্মাণে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার বেশ কিছু কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে৷ এগুলো আন্তর্জাতিকভাবেও প্রশংসিত হচ্ছে৷ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, বিরোধীদলীয় নেতা, স্পিকার নারী৷ এটি বিশ্বের বিরল ঘটনা এবং নারী অগ্রযাত্রার অন্যতম প্রেরণা৷

Bangladesch Rokeya Prachi Schauspielerin

রোকেয়া প্রাচী, অভিনেত্রী, উপস্থাপিকা ও লেখিকা

রাজনৈতিক বিভিন্ন কার্যক্রমে বাংলাদেশে এখন পুরুষের পাশাপাশি নারীর অংশগ্রহণ বেশ ইতিবাচক৷ দেশে ১২ হাজার নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি রয়েছেন৷ সরকারি বিভিন্ন দপ্তরেও পুরুষের সঙ্গে নিজের যোগ্যতা বলেই নেতৃত্ব দিচ্ছেন নারী৷ দেশের পাঁচটি জেলায় রয়েছেন নারী জেলা প্রশাষক৷ দু'টি জেলার পুলিশ সুপার নারী৷ এছাড়া জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় এবং বুয়েট-এ উপাচার্য হিসেবে নারীর অগ্রযাত্রা দেশের সামাজিক উন্নয়নের সূচককে তরান্বিত করেছে৷

২০১৪ সালে ডাব্লিউইএফ-এর লিঙ্গ বৈষম্য সূচকের বার্ষিক প্রতিবেদনে ১৪২টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশে অবস্থান ৬৮তম৷ এই অর্জনে ভারত, পাকিস্তান, জাপানকে পেছনে ফেলেছে বাংলাদেশ৷ দেশের পোশাক শিল্পেই কাজ করছে প্রায় ৩০ লাখ নারী৷ অনেক দেশের মোট জনসংখ্যাও এর চাইতে কম৷ পুলিশ বাহিনীতে প্রায় সাত হাজার নারী পুরুষের সঙ্গে সমানযোগ্যতায় কাজ করছে৷ এ সবই বাংলাদেশের নারী উন্নয়নের অগ্রযাত্রার সমীকরণ৷ সামাজিকভাবে বাংলাদেশে এখন নারীদের একটা সম্মানজনক অবস্থান তৈরি হয়েছে৷

তবে এটাও লক্ষ্যণীয় যে এই দেশেরই কিছু কুসংস্কারাছন্ন মানুষ এখনো নারীকে ভোগ্য পণ্য মনে করে৷ তারা নানাভাবে নারীর অগ্রযাত্রায় বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে৷ বিশ্বায়নের পুঁজিবাদী চর্চা নারীকে পণ্যে রূপান্তরের চেষ্টা করছে৷ তবে সেই বাধাকে জয় করছে নারীরা৷ কুসংস্কারের জাল ছিন্ন করে মানবিক সমাজ উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে বাংলাদেশের নারীরা৷ নিজেদের অধিকার নিয়ে রাজপথে নামছে৷ সব প্রতিকূলতাকে জয় করে নারী এগিয়ে যাচ্ছে আপন ছন্দে৷ নিজের যোগ্যতায় বাংলাদেশের নারীরা পুরুষের সঙ্গে নির্মাণ করছে সমতার সমাজ৷ সমতার সমাজ আমাদের নিয়ে যাচ্ছে শক্তিশালী মানবিক পৃথিবী নির্মাণের দিকে৷ আগামীর সুন্দর পৃথিবী নির্মাণে বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের নারীরা কাজ করছে সমানতালে৷ নারীর এই অগ্রযাত্রা অব্যহত থাকুক৷ জয় হোক মানুষের৷ সুন্দর হোক পৃথিবী৷

বন্ধু, আপনি কি লেখিকার সঙ্গে একমত? জানান নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়