1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ব্লগওয়াচ

‘নারায়ণগঞ্জে শামীম ওসমানের কার্যত পতন হয়েছে'

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী ও বিএনপির প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খান তাঁদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন৷ আগামী ২২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে এই নির্বাচন৷

আইভী আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পাওয়ার পর থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ সব জায়গায় এ নিয়ে চলছে আলোচনা৷ সবার লেখাতেই উঠে এসেছে আইভী-শামীম দ্বন্দ্বের বিষয়টি৷

দ্বিতীয়বারের মতো এই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নেওয়ার জন্য গতকাল বুধবার পদত্যাগ করেন আইভী৷ শামীম ওসমানের এলাকা হিসেবে পরিচিত নারায়ণগঞ্জ গত সিটি করপোরেশন নির্বাচনেও ব্যাপক আলোচনায় ছিল৷ সেবার সেলিনা হায়াৎ আইভী আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেলেও এবার পেয়েছেন৷ বিএনপির ভোট বর্জনের মধ্যে গত নির্বাচনে শামীমকে এক লাখের বেশি ভোটে হারিয়ে মেয়র হয়েছিলেন আইভী৷

এবারের প্রার্থিতা নিয়েও ছিল গুঞ্জন৷ তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবার যে কেবল আইভীকে মনোনয়ন দিয়েছেন তা-ই নয়, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তাঁর দলের সংসদ সদস‌্য এ কে এম শামীম ওসমানকে কঠোরভাবে সতর্কও করেছেন৷ আইভীর বিরোধিতায় সরব থাকা শামীম ওসমানকে মঙ্গলবার গণভবনে বৈঠকে শেখ হাসিনা এই সতর্কবার্তা দেন৷ দলীয় শৃঙ্খলা না মানলে কারোরই আওয়ামী লীগে থাকার ‘দরকার নাই' বলে সাফ জানিয়ে দেন শেখ হাসিনা৷

গতবার আওয়ামী লীগ কাউকে আনুষ্ঠানিক সমর্থন না দিলেও কেন্দ্রীয় বেশ কয়েকজন নেতা শামীমের পক্ষে প্রচার চালিয়েছিলেন৷ ভোটের পর ত্বকী হত‌্যাকাণ্ড এবং ৭ খুন নিয়ে আইভী ও শামীমের দ্বন্দ্ব চরমে ওঠে৷ প্রকাশ‌্য সভায় একে অন‌্যের বিষোদগারের পাশাপাশি টেলিভিশন বিতর্কেও তাদের আক্রমনত্মক কথাবার্তা বলতে শোনা যায়৷ গণভবনের বৈঠকে শেখ হাসিনার সামনেও তারা ঝগড়ায় জড়িয়েছিলেন বলে বৈঠকে উপস্থিত নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে৷

তবে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপে কেবল তারা ঐক্যবদ্ধই হননি, বুধবারের সভা শেষে গণভবনে ফটোসেশনেও অংশ নিয়েছেন তাঁরা৷

কিন্তু প্রশ্ন হলো, শেখ হাসিনার এই উদ্যোগের ফলে কি সত্যিই শামিম ওসমানের সঙ্গে সেলিনা হায়াৎ আইভীর দ্বন্দ্বের অবসান হবে?  বৈঠিক শেষে শামীম ওসমান ও নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের অন্যান্য নেতারা জানিয়েছেন আইভীর জন‌্য নয়, ভোটে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে জেতাতে তাঁরা কাজ করবেন৷

মীর মিশুক আহসান ফেসবুক পাতায় লিখেছেন, ‘‘শামীম ওসমান ছাড়া নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন আর বিয়ের দাওয়াতে গিয়ে ঢেড়শ ভাজি দিয়ে জাউ ভাত খাওয়া একই কথা৷''

ক্যানাডা প্রবাসী সাংবাদিক সওগত আলী সাগর ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর উক্তিটির উল্লেখ করেছেন৷ সেখানে তিনি তুলে ধরেছেন প্রধানমন্ত্রীর একটি উক্তি, ‘‘

ফুটবল খেলায় গোল দিতে স্ট্রাইকার লাগে৷ নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে এখন স্ট্রাইকার আইভী, আমি খোঁজ নিয়েছি৷''

বিডিনিউজ টুয়েন্টি ফোর ডট কম এর জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক গাজী নাসিরউদ্দীন আহমেদ ফেসবুক পাতায় লিখেছেন, ‘‘

‘‘ময়মনসিংহে মতিউর রহমান এবং নারায়ণগঞ্জে শামীম ওসমানের কার্যত পতন হয়েছে৷ কুমিল্লার আফজাল খান এবং লক্ষ্মীপুরের তাহেরের কি অবস্থা? আইভি আওয়ামী লীগের কাছে ধৈর্যের পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছেন৷ আওয়ামী লীগ তার কর্মীর ধৈর্য পরীক্ষা করতেই পারে৷ সরকার কিন্তু বিচার ঝুলিয়ে রেখে জনগণের ধৈর্যের পরীক্ষা নিতে পারে না৷ ত্বকি হত্যার বিচার এখনও শুরু হয়নি কেন?''

সংকলন: অমৃতা পারভেজ

সম্পাদনা: আশীষ চক্রবর্ত্তী

নির্বাচিত প্রতিবেদন