1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

নাবালিকার সঙ্গে যৌন সংসর্গের অভিযোগে আদালতে বার্লুস্কোনি

শেষরক্ষা আর হল না৷ মঙ্গলবার ইটালির এক আদালত প্রধানমন্ত্রী সিলভিও বার্লুস্কোনিকে কাঠগড়ায় দাঁড়ানোর নির্দেশ দিল৷ নাবালিকার সঙ্গে অর্থের বিনিময়ে যৌন সংসর্গ ও ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ আনা হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে৷

default

সমস্যার মুখে ব্যার্লুস্কোনি

মিলানের বিচারক ক্রিস্টিনা দিচেন্সো আগামী ৬ই এপ্রিল বার্লুস্কোনিকে আদালতে হাজিরার নির্দেশ দিয়েছেন৷ তবে তাঁকে ব্যক্তিগতভাবে উপস্থিত থাকতে হবে না, তাঁর আইনজীবী তাঁর প্রতিনিধিত্ব করতে পারবেন৷ ইটালির সাংবিধানিক আদালত গত মাসে প্রধানমন্ত্রীর আইনি রক্ষাকবচ তুলে নেওয়ার ফলে বার্লুস্কোনির বিরুদ্ধে মামলার পথ খুলে গেছে৷ তাঁর বিরুদ্ধে অন্যান্য কারণে আরও ৩টি মামলা শুরু করার প্রস্তুতি চলছে৷ অর্থের বিনিময়ে নাবালিকার সঙ্গে যৌন সংসর্গের অভিযোগ প্রমাণিত হলে ৩ বছর, ক্ষমতার অপব্যবহারের জন্য ৬ থেকে ১২ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে৷

৭৪ বছর বয়স্ক বার্লুস্কোনির বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি রুবি নামের এক নাইটক্লাব নর্তকীর সঙ্গে অর্থের বিনিময়ে যৌন সংসর্গে লিপ্ত হয়েছিলেন৷ সেসময়ে সেই নারীর বয়স ছিল ১৭ – অর্থাৎ এমন কারো সঙ্গে যৌন সংসর্গে লিপ্ত হওয়া ইটালির আইন অনুযায়ী দণ্ডনীয় অপরাধ৷ তারপর সেই নারীকে যখন চুরির অভিযোগে পুলিশ গ্রেপ্তার করে, তখন প্রধানমন্ত্রী নিজের ক্ষমতার অপব্যবহার করে তার মুক্তির ব্যবস্থা করেছিলেন৷

Flash-Galerie Berlusconis Skandale Ruby Party

যাকে ঘিরে এত আলোড়ন, সেই নাইটক্লাব নর্তকী রুবি

বার্লুস্কোনি অবশ্য যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করে বিষয়টিকে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা করে চলেছেন৷ তাঁর আইনজীবী ও মুখপাত্রও অভিযোগ উড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন৷ কিন্তু সমস্যা হচ্ছে, এই অভিযোগ একেবারেই বিচ্ছিন্ন নয়৷ বার্লুস্কোনি সম্প্রতি একাধিক নারীঘটিত কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়েছেন৷ বিভিন্ন পার্টিতে তাকে স্বল্পবসনা নারীদের সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখা গেছে৷ প্রমাণ হিসেবে বেশ কিছু ছবি প্রকাশিত হয়েছে৷ ২০০৯ সালে আর এক সপ্তদশী নারীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগ উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে৷

রাজনৈতিক আঙিনায়ও বেশ কোণঠাসা হয়ে পড়েছেন বার্লুস্কোনি৷ দলের মধ্যে ভাঙন থেকে শুরু করে সাংসদ কেনার অভিযোগ আনা হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে৷ আইনি রক্ষাকবচ আর না থাকায় তাঁর বিরুদ্ধে একের পর এক মামলা আনা হতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে৷

প্রতিবেদন: সঞ্জীব বর্মন
সম্পাদনা: ফাহমিদা সুলতানা