1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

নাইজেরিয়ার জোড়া বোমা হামলায় নিহত ১১৮

আফ্রিকার নেতারা জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়ার তিন দিনের মাথায় নাইজেরিয়ার জস শহরে জোড়া বোমা হামলায় অন্তত ১১৮ জন নিহত হয়েছেন৷

মঙ্গলবার শহরের প্রধান বিপণি বিতান এবং একটি হাসপাতালে আধা ঘণ্টার ব্যবধানে দুটি গাড়ি বোমায় এই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়৷

প্ল্যাটু স্টেটের পুলিশ কমিশনার ক্রিস ওলাকপে জানিয়েছেন, এই হামলায় আরো অন্তত ৫৬ জন আহত হয়েছেন৷ বিপণি বিতানের ধ্বংসস্তূপের নিচে আরো মৃতদেহ পড়ে থাকতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে৷

নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট গুডলাক জনাথন এ হামলাকে ‘বর্বরোচিত' আখ্যায়িত করে বলেছেন, তাঁর সরকার সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে জয়ী হতে বদ্ধপরিকর৷ ‘মানব সভ্যতার শত্রুদের' এ ধরনের নাশকতায় সরকার পিছু হটবে না৷

স্বাভাবিকভাবেই এ ঘটনার জন্য নাইজেরিয়ার জঙ্গি গোষ্ঠী বোকো হারামকে দায়ী করা হচ্ছে, যদিও এখন পর্যন্ত তারা হামলার দায় স্বীকার করেনি৷

পাঁচ বছর আগে সংগঠনটির জঙ্গি কার্যক্রম শুরুর পর থেকে তাঁদের হামলায় অন্তত পাঁচ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে৷ পশ্চিমা শিক্ষার বিরোধী বোকো হারামের জঙ্গিরা গত ১৪ এপ্রিল চিবোকের এক স্কুল থেকে অস্ত্রের মুখে ২৭৬ জন স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে, যাঁদের মধ্য ২২৩ জনকে এখনো আটকে রাখা হয়েছে৷

এরপরও জঙ্গিদের বিরুদ্ধে কঠোর অভিযান শুরু না করায় প্রেসিডেন্ট গুডলাক জনাথনকে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে৷ এমনকি তাঁর পদত্যাগেরও দাবি উঠেছে৷

এই পরিস্থিতিতে গত ১৭ই মে প্যারিসে এক সম্মেলনে অংশ নিয়ে নাইজেরিয়া, ক্যামেরুন, নাইজার, চাদ ও বেনিনের প্রেসিডেন্টরা বোকো হারামের বিরুদ্ধে একসঙ্গে যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন৷

এর তিন দিনের মাথায় মঙ্গলবার বিকালে জস শহরের জনাকীর্ণ বাণিজ্যিক এলাকায় এই গাড়ি বোমা হামলা হলো৷

প্রথম বিস্ফোরণটি ঘটে শহরের প্রাণকেন্দ্রে একটি বিপণি বিতানে৷ হতাহতদের সরিয়ে নেয়ার কাজ শুরু হওয়ার পর হট্টগোলের মধ্যেই জস ইউনিভার্সিটি হাসপাতালের সামনে ঘটানো হয় দ্বিতীয় বিস্ফোরণ৷

শক্তিশালী বিস্ফোরণে নিউ আবুজা মার্কেট এলাকায় কয়েকটি ভবনও ধসে পড়ে৷ বহু দোকান পুড়ে যায় এবং হাসপাতাল, একটি ব্যাংক এবং বেশ কিছু যানবাহন ক্ষতিগ্রস্ত হয়৷

নাইজেরিয়া সেনাবাহিনীর বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দুটি বোমার মধ্যে একটি লুকিয়ে রাখা হয়েছিল ট্রাকে, অন্যটি একটি মিনিবাসে৷ বিস্ফোরণের পর বহু পোড়া মৃতদেহ ঘটনাস্থল থেকে অ্যাম্বুলেন্সে করে সরিয়ে নিতে দেখা যায়৷

গত এপ্রিল এবং চলতি মাসের শুরুতে নাইজেরিয়ার রাজধানী আবুজার উপকণ্ঠে দুই দফা বোমা হামলায় অন্তত ৯০ জন নিহত হন৷ এসব ঘটনার জন্যও বোকো হারামকে দায়ী করা হচ্ছে৷

জেকে / এসবি (ডিপিএ, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন