1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

নতুনদিল্লিতে এবছরেই চালু হচ্ছে সার্ক বিশ্ববিদ্যালয়

থিম্পুতে সার্ক শীর্ষ সম্মেলনের দিকে তাকিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে সার্ক সম্মেলন থেকে এ পর্যন্ত সার্কভুক্ত দেশগুলি কতটা লাভবান হয়েছে৷ এর মধ্যে এ বছর নতুনদিল্লিতে সার্ক বিশ্ববিদ্যালয় চালু হওয়ার সম্ভাবনা নিঃসন্দেহে এক বড় সাফল্য৷

default

থিম্পুতে সার্ক শীর্ষ সম্মেলন চলাকালীন

দক্ষিণ এশিয়া বিশ্ববিদ্যালয় নামে নতুনদিল্লিতে সার্ক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের কাজ প্রায় শেষ হতে চলেছে৷ বলা যায় ঢাকঢোল না পিটিয়েই৷ তবে নিয়ম কানুন ও ভিসা নীতির খুঁটিনাটি নিয়ে কিছু জটিলতা রয়ে গেছে৷ আশা করা যায় থিম্পু সার্ক সম্মেলনে তার একটা সুরাহা হবে৷ হলে এবছরেই চালু হতে পারে সার্ক বিশ্ববিদ্যালয়৷

শুরুতে অস্থায়ীভাবে নতুনদিল্লির জহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে জায়গা নেবে এই বিশ্ববিদ্যালয়৷ পরে স্থায়ীভাবে সরে যাবে ইন্দিরা গান্ধী জাতীয় মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে ১০০ একর আয়তনের ক্যাম্পাসে৷ ভিসা নীতি সম্পর্কে পাকিস্তানের দাবি, ভিসা দেওয়া নিয়ে কোনরকম বৈষম্য চলবেনা৷ পাকিস্তানি ছাত্র বা শিক্ষকরা দিল্লিতে সার্ক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে বা পড়াতে এলে সার্কভুক্ত অন্য দেশের মত তাঁদেরকেও ভারতের যেকোন শহরে যাবার অনুমতি দিতে হবে৷ উল্লেখ্য, ভারত ও পাকিস্তানের ভিসা নীতিতে মাত্র তিনটি শহরে যাবার অনুমতি দেওয়া হয়৷ সমাধান হিসেবে সার্ক বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেই থাকবে পৃথক ভিসা কাউন্টার৷ অন্য শহরে যেতে চাইলে নির্দিষ্ট মেয়াদে ভিসা মঞ্জুর করা হবে পাকিস্তানি ছাত্রদের৷

এই আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হবেন প্রথম পাঁচ বছরের জন্য ভারতের অধ্যাপক জি.কে চাড্ডা৷ তারপর পালা করে৷ স্ব-শাসিত এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্যাকাল্টি সদস্যরা হবেন সার্কভুক্ত দেশের৷ তবে প্রয়োজনবোধে বাইরের দেশ থেকেও নেওয়া হতে পারে৷ অধ্যাপকরা বেতন পাবেন করমুক্ত ডলারে৷

শুরুতে পড়ানো হবে পোস্ট-গ্রাজুয়েট স্তরে অর্থশাস্ত্র, কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন ও বায়োটেকনলজি৷ প্রথম পর্যায়ে নিযুক্ত হবেন ১০জন অধ্যাপক৷ ২০১৪ সালের মধ্যে তা বেড়ে হবে প্রায় ৫০০৷ বাংলাদেশ থেকে আসার কথা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ইমরান রেহমানের৷ প্রথম সেমিস্টারে ভর্তি হবে ৫০-৬০ জন ছাত্রছাত্রী৷ পরে অন্যান্য বিষয় অন্তর্ভুক্ত হলে শিক্ষার্থী সংখ্যাও বাড়বে৷ অন্যান্য বিষয় বলতে থাকবে আইন, মেডিসিন, ম্যানেজমেন্ট, ইঞ্জিনিয়ারিং ইত্যাদি৷

সার্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যুক্ত থাকবে ইন্সটিটিউট অব সাউথ এশিয়ান স্টাডিজ নামে এক থিঙ্ক ট্যাঙ্ক৷ এর কাজ হবে আ়ঞ্চলিক সমস্যা যেমন বিপর্যয় মোকাবিলা, জলবন্টন, সীমান্ত পারের সংক্রামক মহামারি, সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সংরক্ষণ ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা ও গবেষণার মাধ্যমে সমাধানসূত্র বার করা৷

উল্লেখ্য, ২০০৫ সালে ঢাকা সার্ক সম্মেলনে সার্ক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের কথা ঘোষণা করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ড. মনমোহন সিং বলেছিলেন ভারত এই বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য দেবে ২৪ কোটি মার্কিন ডলার৷ বাদবাকি টাকা দেবে সার্কের অন্য ৭টি দেশ৷

প্রতিবেদক : অনিল চট্টোপাধ্যায়, নতুনদিল্লি

সম্পাদনা : আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়