1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

নগ্ন মূর্তি ঢেকে বিপাকে এবার ইটালি

ইটালির সরকারপ্রধান মাটেও রেনজি এখন আছেন চরম বিপাকে৷ ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রোহানির সফরকালে নগ্ন মূর্তিগুলো ঢেকে রেখেছিল সেদেশের এক মিউজিয়াম৷ আর তাতেই যত সমালোচনা৷

রোহানি এবং রেনজি গত সোমবার রোমের কোপিটোলিন মিউজিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন৷ দু'দেশের এই উষ্ণ সম্পর্ক যখন প্রশংসিত হচ্ছিল, তখনই প্রকাশ হয় আরেক খবর৷ মঙ্গলবার সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ হয়, মিউজিয়ামটির নগ্ন মূর্তিগুলো নাকি ঢেকে রাখা হয়েছিল ইরানের প্রেসিডেন্টের সফরকালে৷ উদ্দেশ্য, ইরানের অতিথিদের অসন্তুষ্ট না করা!

মুলধারারা গণমাধ্যমের পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও এই নিয়ে শুরু হয়েছে ব্যাপক আলোচনা৷ টুইটার ব্যবহারকারী মাটেও আলবেনিয়া মূর্তি ঢেকে রাখার একটি ছবি প্রকাশ করেছেন৷

সাংবাদিক সোহেল আসেফি অবশ্য বিকল্প এক উপায়ের কথা জানিয়েছেন টুইটারে৷ তাঁর মতে, মূর্তিগুলো না ঢেকে অন্য কিছুও ঢাকা যেত৷ নীচে দেখুন তিনি যা বোঝাতে চেয়েছেন:

মিউজিয়ামটিতে থাকা নগ্ন মূর্তির কিছু ছবি প্রকাশ করা হয়েছে ফলোয়িং হার্ডিয়ান নামক একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে৷

প্রসঙ্গত, মূর্তি ঢাকার খবরে ইটালির রাজনৈতিক মহলও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে৷ দেশটির প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ইটালির সংস্কৃতিকে ‘‘সারেন্ডার'' করানোর অভিযোগ এনেছে বিরোধী দল৷ এদিকে, তুর্কি সাংবাদিক মুস্তফা ইদিব ইলমাজ দাবি করেছেন, মূর্তি ঢাকতে নাকি কোনোরকম অনুরোধ জানানো হয়নি ইরানের তরফ থেকে৷ তবে সেটা করায় তারিফ করেছে দেশটি৷

উল্লেখ্য, বুধবার প্যারিস সফর করেন রোহানি৷ ফরাসি ব্যবসায়ীরা ইটালির মতোই সেদেশের সঙ্গে ব্যবসায়িক বিভিন্ন চুক্তি করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন, কেননা বর্তমানে পশ্চিমাদের সঙ্গে ইরানের সম্পর্ক উষ্ণ পর্যায়ে রয়েছে৷

এআই/জিডি (এএফপি, এপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন