1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ধর্ষণের অভিযোগ গায়েব করেছিল পুলিশ!

শরীয়তপুরের নড়িয়ায় ধর্ষণও ফতোয়াবাজদের দোররার শিকার হেনা আক্তারের মৃত্যু নিয়ে সরব গণমাধ্যম৷ বৃহস্পতিবার হাইকোর্টে হাজির হন হেনার বাবা-বোনসহ স্থানীয় প্রশাসন এবং পুলিশের কর্মকর্তারা৷ এই হত্যাকাণ্ড নতুন মোড় নিয়েছে৷

default

প্রতীকী ছবি

ময়নাতদন্তে ‘গরমিল'

ফতোয়াবাজদের নির্যাতনের শিকার হেনার মরদেহের পৃথক ময়নাতদন্তে আলাদা ফল পাওয়া গেছে৷ বৃহস্পতিবার হাইকোর্ট ময়নাতদন্তে ‘গরমিল' বিষয়ে উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন৷ এই বিষয়ে দৈনিক সমকালের শিরোনাম, ‘দুই ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে গরমিল তদন্তের নির্দেশ'৷ হেনার প্রথম ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক নির্মল চন্দ্র দাসসহ অন্য তিন চিকিৎসকের কোনো গাফিলতি ছিল কি না, তা তদন্ত কমিটি খতিয়ে দেখবে৷

হেনা আক্তার মারা যান গত ৩১ জানুয়ারি৷ প্রথম ময়নাতদন্তের হেনার শরীরে তেমন কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি বলে উল্লেখ করা হয়৷ অথচ দ্বিতীয় ময়নাতদন্তে জানা যায়, এই মৃত্যু ‘হত্যাজনিত'৷ আদালতে প্রথম ময়নাতদন্তের বিষয়ে তেমন কোন ব্যাখ্যা দিতে সক্ষম হননি সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকরা৷ বরং এক্ষেত্রে তাদের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিচারকরা৷ এসময় হাইকোর্ট বলেন, ‘‘আপনারা একটা মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছেন৷''

ধর্ষণ নাকি বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক?

হেনার বাবা দরবেশ খাঁ ঢাকার হাইকোর্টে উপস্থিত হন বৃহস্পতিবার৷ দৈনিক প্রথম আলো আদালতে দেওয়া হেনার বাবার বক্তব্য প্রকাশ করেছে ঠিক এভাবে, ‘‘আমি থানায় বলেছি আমার মেয়েকে ধর্ষণ করা হয়েছে৷'' তবে পুলিশ এই ধর্ষণের বিষয়টি এজাহারে উল্লেখ করেনি৷ দরবেশ খাঁ লেখাপড়া জানেন না৷ তাকে এজাহার পড়ে শোনায়নি পুলিশের উপপরিদর্শক৷ তবে তিনি সেই এজাহারে টিপসই দিয়েছিলেন৷ এই বক্তব্য শোনার পর আদালত সংশ্লিষ্ট পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন৷ এছাড়া আদালত থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের দরবেশ খাঁ বলেন, ‘‘মামলা দায়েরের সময় আমি ধর্ষণ ও নির্যাতনের অভিযোগ করলেও পুলিশ তা লেখেনি৷''

নতুন মামলা

দৈনিক ইত্তেফাকে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, হেনার পরিবারকে সার্বিক নিরাপত্তা দিতে শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও নড়িয়া থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট৷ পাশাপাশি যারা ফতোয়া দিয়েছে এবং দোররা মেরেছে তাদের বিরুদ্ধে নতুন মামলা দায়ের করতে বলেছেন আদালত৷ দ্য ডেইলি স্টার জানিয়েছে, হেনার মৃত্যু নিয়ে পাঁচটি নতুন অভিযোগে মামলা দায়ের করতে বলেছেন আদালত৷

গ্রন্থনা: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন