1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ধর্ষকদের বিচার সহজ করতে চায় জার্মানি

ধর্ষণ ও অন্যান্য যৌন অপরাধের বিচার করতে জার্মানিতে যে আইন আছে, তার সংস্কার করতে চায় জার্মানি৷ দেশটির আইনমন্ত্রী সম্প্রতি এ সংক্রান্ত একটি খসড়া সংসদে উপস্থাপন করেছেন৷

জার্মানির কোলন শহরের প্রধান রেল স্টেশন

জার্মানির কোলন শহরের প্রধান রেল স্টেশন, যেখানে নববর্ষের রাতে যৌন নিপীড়নের ঘটনা ঘটে

জার্মান আইনমন্ত্রী হাইকো মাস সংস্কার প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা শেষে দ্রুত নতুন আইনটি প্রণয়ন করতে আগ্রহী৷ অবশ্য তিনি নিজে খসড়াটি নিয়ে সন্তুষ্ট৷ তাঁর আশা, এর ফলে ধর্ষক ও যৌন হামলাকারীদের বিচার করা সহজ হবে৷

জার্মানির নারী বিষয়ক সংগঠনগুলো অনেকদিন ধরেই পুরনো আইনের সংস্কার চাইছে৷ তবে ইংরেজি নবর্বষের সময় জার্মানির কোলন শহরে ঘটে যাওয়া যৌন অপরাধের ঘটনায় বিষয়টি আরও গতি পেয়েছে৷ নারী বিষয়ক দু'টি সংগঠনের এক যৌথ বিবৃতি বলছে, ‘‘নববর্ষে কোলন ও অন্যান্য শহরে যৌন অপরাধের ঘটনা এটাই প্রমাণ করছে যে, মোবাইল চুরির বিষয়ে বিচার করা, কারও ঊরুসন্ধিতে স্পর্শের বিচার করার চেয়ে সহজ৷''

যাঁরা আইন সংস্কারের পক্ষে তাঁরা বলছেন, অভিযুক্ত অপরাধীর পক্ষের আইনজীবীরা প্রায়ই (রায় নিজেদের পক্ষে নিতে) বর্তমান আইনের অন্য ব্যাখ্যা উপস্থাপন করে থাকেন৷ আইনজীবীরা তখন আদালতকে বোঝাতে চান যে, যৌন অপরাধের শিকার হওয়া নারীর ‘না' বলাটাই, ধর্ষণ যে হয়েছে তা প্রমাণের জন্য যথেষ্ঠ নয়৷

অবশ্য নতুন যে খসড়াটি তৈরি হয়েছে তা নিয়ে সন্তুষ্ট নয় বিএফএফ৷ ধর্ষণের শিকার হওয়া নারীদের নিয়ে কাজ করে সংস্থাটি৷ এক বিবৃতিতে সংস্থাটি জানায়, ‘‘জার্মানির আইন অনুযায়ী, কারও ইচ্ছার বিরুদ্ধে যৌনকর্ম সংঘটিত হলে তা অপরাধ বলে বিবেচিত হয় না৷ নতুন খসড়ায়ও এই বিষয়টিতে পরিবর্তন আনা হয়নি৷''

বিএফএফ এর মুখপাত্র কাটিয়া গ্রেগার বলেন, ‘‘মামলা চলার সময় ধর্ষণ কিংবা যৌন অপরাধের শিকার হওয়া ব্যক্তিকে তার কাজের জবাবদিহিতার বিষয়টি এখন আর গ্রহণযোগ্য হতে পারে না৷ ভবিষ্যতে মামলার সময় শুধুমাত্র অভিযুক্তর কাজ বিবেচনায় নিয়ে রায় দেয়ার ব্যবস্থা করতে হবে৷''

কোলনের ঘটনায় প্রথম বিচার প্রক্রিয়া

নববর্ষের ঘটনায় অভিযুক্ত ২৬ বছর বয়সি আলজেরীয় এক নাগরিকের বিরুদ্ধে শুক্রবার বিচার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে৷ তার বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়ন প্রচেষ্টা ও চুরির অভিযোগ আনা হয়েছে৷ নববর্ষ উদযাপনের রাতে সে সহ ১০ জনের একটি দল এক নারীর উপর যৌন নিপীড়ন করে বলে অভিযোগ রয়েছে৷

কোলনের ঘটনায় এক হাজারেরও বেশি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷ যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে তাদের বেশিরভাগই বিদেশি নাগরিক

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়