1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘ধনী আর গরিবের জন্য আইন আলাদা কেন?'

‘পানামা পেপার্স’-এর কারণে ইতিমধ্যে পদত্যাগ করেছেন এক প্রধানমন্ত্রী৷ অন্যরা গা বাঁচানোর চেষ্টায়৷ মোসাক ফনসেকা কার্যালয়ে তল্লাসি চালিয়েছে পানামা পুলিশ৷ অন্যদিকে ব্রিটেনে প্রশ্ন উঠেছে – ধনী আর গরিবের জন্য আইন আলাদা কেন?

সম্প্রতি বিশ্বের অনেক ক্ষমতাবান ও ধনী ব্যক্তির অভিনব কায়দায় দুর্নীতিতে জড়ানোর তথ্য ফাঁস করেছে ‘পানামা পেপার্স'৷ পানামার আইনি সংস্থা ‘মোসাক ফনসেকা'-র সহায়তায় অনেক রাজনীতিবিদ, ব্যবসায়ী, অভিনেতা, খেলোয়াড় এবং অন্যান্য পেশার বিশিষ্টজনই বিদেশে টাকা পাচার করে কর ফাঁকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ৷

গত ৩ এপ্রিল এমন অভিযোগ সম্বলিত তথ্য ফাঁস করা হলে তোলপাড় শুরু হয় বিশ্বজুড়ে৷ ‘অভিযুক্তদের' বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার দাবি ওঠে বিভিন্ন দেশে৷ ‘অভিযুক্ত' ক্ষমতাসীন রাজনীতিবিদদের পদত্যাগের দাবিও ওঠে কয়েকটি দেশে৷ এমন দাবির মুখে ইতিমধ্যে পদত্যাগ করেছেন আইসল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড গানলগসন৷

মঙ্গলবার পানামা সিটিতে মোসাক ফনসেকার প্রধান কার্যালয়ে তল্লাসি চালিয়েছে পানামা পুলিশ৷ আইনজীবীরা জানান, পানামা পেপার্স কেলেঙ্কাকারির কারণে বিতর্কিত হওয়া আইনি প্রতিষ্ঠানটি কোনো রকমের বেআইনি কাজে জড়িত কিনা তা দেখতেই এ তল্লাশি চালানো হয়েছে৷ মোসাক ফনসেকা কর্তৃপক্ষ অবশ্য শুরু থেকেই বেআইনি কোনো কাজে জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে৷

এদিকে ব্রিটেনের লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন সংসদে পানামা কেলেঙ্কারি প্রসঙ্গে মৌলিক প্রশ্নই তুলেছেন৷ ব্রিটেনের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের বিরুদ্ধেও পরোক্ষভাবে কর ফাঁকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে৷ এ নিযে সংসদেও বিতর্ক চলছে৷ সেই বিতর্কের এক পর্যায়েই জেরেমি করবিন বলেছেন, পানামা পেপার্স দেখিয়ে দিয়েছে, সারা বিশ্বে ধনী আর গরিবের জন্য আইন আসলে আলাদা৷ নইলে অল্প দুর্নীতির জন্য গরিবের শাস্তি হবে আর কোটি কোটি টাকা পাচার করেও ধনীরা আইনের ফাঁক দিয়ে বেরিয়ে যাবেন – এমন কেন?

এসিবি/ডিজি (এএফপি, রয়টার্স, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়