1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

দ্বিতীয় রাউন্ডে মুখোমুখি পুরনো প্রতিদ্বন্দ্বীরা

দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলায় আজ মুখোমুখি পুরনো প্রতিদ্বন্দ্বী জার্মানি আর ইংল্যান্ড৷ওদিকে আর্জেন্টিনা বনাম মেক্সিকো৷ প্রত্যেকেরই স্মরণীয় ইতিহাস রয়েছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের৷ ফলে ফুটবল প্রেমীরা উত্তেজিত আজকের ম্যাচদুটি নিয়ে৷

default

উত্তেজনায় ফুটছে জার্মানি, প্রভাব পত্রপত্রিকাতে

১৯৬৬ সালে তৎকালীন পশ্চিম জার্মানিকে হারিয়েছিল ইংল্যান্ড ৪-২ গোলে৷ এই জয়ের মধ্য দিয়ে ইংল্যান্ড ঘরে তোলে একমাত্র চ্যাম্পিয়নস ট্রফি৷ অবশ্য এই হারের প্রতিশোধ বেশ ভালোভাবেই নিয়েছে জার্মানরা৷ ৯০ এর সেমিফাইনালে পেনাল্টি গোলে হারায় তারা ইংল্যান্ডকে৷ আর ৯৬ এর ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপেও একইভাবে জয় ছিনিয়ে আনে ডয়েচ লড়াকুরা৷ তাইতো একটু মজা করে বলা হয়, ফুটবলের জন্ম দিয়েছে ইংল্যান্ড, কিন্তু জয় করেছে জার্মানি৷

Screenshot WM 2010 England Deutschland Boulevard Flash-Galerie

আমাদের তরুণ ছেলেরা ছিঁড়ে ফেলবে ইংল্যন্ডকে...দাবি এই পত্রিকার

তবে এবারের আসরে দুই দলই স্বপ্ন দেখছে শিরোপা জয়ের৷ যদিও ইনজুরি সমস্যাতেও ভুগছে বেশ৷ ইতিমধ্যে নিশ্চিত করা হয়েছে যে, মাঠে থাকছেন না ইনজুরি সমস্যায় থাকা জার্মান স্ট্রাইকার কাকাও৷ এমনকি মিডফিল্ডার বাস্টিয়ান সোয়াইন্সটাইগার এবং ডিফেন্ডার জেরোমে বোয়াটেঙ'কে নিয়েও রয়েছে বেশ আশঙ্কা৷ তবে ইংল্যান্ডের সমস্যা অনেক বেশি মানসিক৷ কারণ আত্মবিশ্বাসের অভাব প্রকট৷ দু'টি ড্র এর পর স্লোভেনিয়ার বিরুদ্ধে ১-০ গোলে মাত্র একটি জয় মিলেছে এ পর্যন্ত এই বিশ্বকাপে৷

এদিকে, চার বছর আগের প্রতিশোধ নিতে চায় মেক্সিকো৷ কারণ জার্মানিতে গত বিশ্বকাপে অতিরিক্ত সময়ের ২-১ গোলে মেক্সিকোকে হারিয়েছিল আর্জেন্টিনা৷ আর তাতেই সেই আসর থেকে বিদায় নিতে হয়েছিল মেক্সিক্যানদের৷ তবে জোহানেসবার্গের সকার সিটিতে মেক্সিকোর সাথে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত মারাদোনার ছেলেরাও৷ ১৯৮৬'র জয়ের ধারা বজায় রাখতে বদ্ধ পরিকর কোচ মারাদোনা৷ রবিবার তিনি বলেন, ‘‘সারাজীবনে আমি যে অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি, আমি তা আমার ছেলেদের মধ্যে ঢেলে দিচ্ছি আন্তরিকভাবে৷''

প্রতিবেদন : হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা : সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়