1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

‘দ্বিতীয় পর্দা’ বাড়িয়ে তুলছে চলচ্চিত্রের আকর্ষণ

পরোক্ষে নয়, সক্রিয় ভূমিকায় দর্শকরা ছবি দেখতে পারছেন ‘সেকেন্ড স্ক্রিন’-এর কল্যাণে৷ সম্প্রতি জার্মান টেলিভিশনের এমন এক ছবি চমকে দিয়েছে৷ স্মার্টফোন বা ট্যাবলেটে ‘অ্যাপ’-এর সাহায্যে রীতিমতো ছবির অংশ হয়ে পড়ছেন তাঁরা৷

কে বলে টেলিভিশন দেখা মানে গা এলিয়ে বসে থাকা? যদি না রিমোট কন্ট্রোল নাড়াচাড়াকে ‘কাজ’ বলা চলে৷ ভবিষ্যতে টেলিভিশন দর্শকও কীভাবে ‘সক্রিয়’ হয়ে উঠতে পারেন, তার একটা নমুনা দেখা গেল সোমবার, জার্মান টেলিভিশনে প্রচারিত এক চলচ্চিত্রের সময়৷ নেদারল্যান্ডসে তৈরি এই ছবির নামই ‘অ্যাপ’৷ কারণ শুধু বসে বসে ছবিটি দেখলে হবে না, সঙ্গে চাই অ্যাপ৷ মোবাইল ফোন বা ট্যাবলেটে সেটি আগেই ডাউনলোড করে ফেলতে হবে৷ কারণ তা না হলে যে চিত্রনাট্য অসম্পূর্ণ থেকে যায়!

বিষয়টা হলো এ রকম৷ টেলিভিশনের পর্দায় যেটুকু দেখা যাচ্ছে, তা হলো ‘ফার্স্ট স্ক্রিন’৷ কিন্তু তার বাইরেও ঘটছে অনেক ঘটনা, যা থেকে অনেক ইঙ্গিত পাওয়া যায়৷ এমনকি ছবির চরিত্ররাও তার নাগাল পাচ্ছে না৷ দর্শক আগেভাগে নির্দিষ্ট অ্যাপ ডাউনলোড করে প্রস্তুত থাকছেন৷ ছবি শুরু হলে অ্যাপ-ও অনেক বাড়তি দৃশ্য দেখাচ্ছে, অনেক অজানা খবরও দিচ্ছে৷ তাই ডিভাইস-এর পর্দাকে ‘সেকেন্ড স্ক্রিন’ বলা হয়৷

ছবির মূল চরিত্র আনা রাইন্ডার্স৷ সে মনোবিজ্ঞানের ছাত্রী৷ সে অ্যাপ, সোশ্যাল মিডিয়া ও মোবাইল ফোন নিয়ে মশগুল৷ নেশাও বলা চলে৷

Symbolbild - Kind vor einem Fernseher

কে বলে টেলিভিশন দেখা মানে গা এলিয়ে বসে থাকা?

আনা হঠাৎ ‘আইরিস’ নামের একটি রহস্যজনক অ্যাপ ডাউনলোড করে বসলো৷ তরপর তার আশেপাশের অনেক মানুষ আচমকা মারা যেতে শুরু করলো৷ একই সঙ্গে আনা-র ফোনে অদ্ভুত সব সাংকেতিক বার্তাও আসতে থাকলো৷

এমনই রোমহর্ষক কাহিনির মধ্যে নিজস্ব অ্যাপ-এর কল্যাণে দর্শক আরও জড়িয়ে পড়তে পারেন৷ কারণ তাঁর নিজের হাতের ডিভাইসের মধ্যে অ্যাপ-টি নির্দিষ্ট সময়ে এমন সব কাণ্ড করতে থাকে, যা ছবি দেখার অভিজ্ঞতাকে আরও জোরালো করে তোলে৷ দর্শকও যেন নিজেকে ঘটনার সঙ্গে জড়িয়ে ফেলে৷

এমন ছবি দেখানোর আগে টেলিভিশন চ্যানেলকেও বেশ প্রস্তুতি নিতে হয়৷ বিজ্ঞাপনেই দর্শকদের অ্যাপ ডাউনলোড করতে বলা হয়৷ ছবি শুরু হলে ঠিক সময় ভিডিও বা তথ্য পাঠাতে হয়৷

এসবি/ডিজি (ওটিএস, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়