1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

‘দেশ গড়ার কাজে রত মুক্তিযোদ্ধা জিনাতুন নেসা’

এই রিপোর্টটি ছিল অত্যন্ত আকর্ষণীয়৷ তাই ডয়চে ভেলেকে আমি স্যালুট জানাই৷ এই প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের এই বিষয়গুলো জানা দরকার৷ মাহমুদ এইচ ফয়সাল, বাংলাদেশ

default

জিনাতুন নেসা

বীর শহীদ রুহুল আমিনকে আমার হাজার সালাম৷ ডয়চে ভেলে তোমাকে ধন্যবাদ এসব তথ্য জানানোর জন্য৷ তাপস নাথ, কলকাতা৷

আমাকে আমার দেশি ব্লগারদের ভোট দিতে কিছুটা বেগ পেতে হচ্ছে৷ যা হোক আপনাদের অনুষ্ঠানে যখন ভোট দিতে আহ্বান করা হয় তখন ভোটদান প্রক্রিয়াটি আরো বিস্তারিতভাবে বললে, ভোট দেওয়া আমাদের জন্য আরো সহজ হবে৷ শেখ মঞ্জুর-ই- মওলা মানিক, খুলনা৷

আমাদের শুভেচ্ছা নেবেন৷ আশাকরি বাংলা বিভাগের সবাই ভালো আছেন৷ আমরাও ক্লাবের সবাই ভালো আছি৷ গত মাসগুলোতে আমরা ২৮ জন নতুন শ্রোতাকে ডয়চে ভেলের অনুষ্ঠান সম্পর্কে অবহিত করাই৷ আপনাদের এফএম ব্যান্ডের অনুষ্ঠান খুব ভালো শোনা যাচ্ছে৷ এই চিঠির সাথে একটা রিপেশন রিপোর্টও পাঠালাম৷ বর্তমানে প্রচারিত পরিবেশনাগুলোর মধ্যে হেল্থলাইন, সবুজ পৃথিবী, পশ্চিমের জানালা, সুরের ভুবন ক্লাবের সদস্যদের মাঝে বেশ জনপ্রিয় হয়েছে৷ আজ এ পর্যন্তই৷ আ ই মোঃ আবদুল্লাহ, ইন্টার ন্যাশনালরেডিও লিসনার্স ক্লাব, ঘোড়ামারা, রাজশাহী৷

বাংলা আমাদের মায়ের ভাষা, আমাদের প্রিয় মাতৃ ভাষায় সুদূর জার্মানি থেকে ইথারের মাধ্যমে ছড়িয়ে পরে ডয়চে ভেলে বাংলা বিভাগ-এর সকাল ও সন্ধ্যার অনুষ্ঠানমালা৷ সকালে বাংলা দেশের ৬টি শহরে এফএম -এ আর রাতে এফ এমসহ মিডিয়াম ওয়েভে৷ ইন্টারনেট থাকলে তো ডয়চে ভেলে সারাক্ষণ আমাদের সাথী৷ বর্তমান যুগে নানা গণমাধ্যম থাকলেও, আমার মতোই অগণিত বাঙালির প্রিয় বেতার হিসাবে সবার মনে স্থান করে নিয়েছে ডয়চে ভেলের বাংলা অনুষ্ঠান৷ আধুনিক প্রযুক্তি বিদ্যার উত্কর্ষে অন্যান্য গণ মাধ্যমগুলোর যথেষ্ট প্রসার ঘটলেও, শক্তিশালী গণ মাধ্যম হিসাবে আমাদের মতো প্রত্যন্ত জনপদে রেডিও'র কোনো বিকল্প নেই৷ আমদের প্রাত্যহিক জীবনে তথ্য ও বিনোদনের অপরিহার্য মাধ্যম হল রেডিও৷ আর ডয়চে ভেলে বাংলা বিভাগ সেই কাজটি অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে করে যাচ্ছে৷ ডয়চে ভেলে বাংলা বিভাগ-এর অনুষ্ঠান কেন ভালো লাগে সেটা বলা খুবই কঠিন৷ অনেক কারণ আছে যেমন ডয়চে ভেলে বাংলা বিভাগ-এর অনুষ্ঠানমালার স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট, শ্রোতাদের মতামতকে গুরুত্ব দেওয়া, সময় উপযোগী ও বস্তুনিষ্ঠ অনুষ্ঠান, তরতাজা ও সত্যনিষ্ঠ সংবাদ, মানবিক বাস্তবতার আহ্বান, নিজেকে প্রকৃত মানুষ হিসাবে গড়ে তোলার মন্ত্র, বিছিন্ন ও বিভক্ত মানুষের মনে ক্ষমা ও পুনর্মিলনের পথ রচনা করা৷ তাই আমার প্রিয় বেতার ডয়চে ভেলে বাংলা বিভাগ৷ শুভেচ্ছাসহ , মহঃ হাফিজুর রহমান, ইন্টারন্যাশনাল মিতালী লিসনার্স ক্লাব, চুপী, পূর্বস্থলী, বর্ধমান৷

প্রথমেই ডয়চে ভেলেকে ধন্যবাদ জানাই৷ কারণ ডয়চে ভেলের মাধ্যমেই আমরা আমাদের ভাষা আন্দোলনের সঠিক ইতিহাস সম্পর্কে জানতে পারলাম৷ আমাদের নবীনদের নিজ ইতিহাস, সংস্কৃতি এবং মাতৃভাষা সম্পর্কে জানতে সাহায্য করেছে ডয়চে ভেলে থেকে প্রচারিত বিশেষ পরিবেশনাগুলো৷ আমার চিঠি অনুষ্ঠানে পড়বেন, এটা কি আশা করতে পারিনা ? রিংকু, বড়বনগ্রাম, মাষ্টারপাড়া, রাজশাহী৷

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ