1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

মতামত

‘দেশি চ্যানেল মার খাচ্ছে নিম্নমান ও অতিরিক্ত বিজ্ঞাপনের জন্য'

বাংলাদেশে বিদেশি সিরিয়াল ডাবিং করে প্রচার করা সম্পর্কে অধিকাংশ পাঠকই একমত৷ অধিকাংশের কথায়, দেশের নাটকের মান ভালো হলে দর্শকরা অবশ্যই দেখতেন৷ শুধু তাই নয়, ভারতীয় চ্যানেল বন্ধের দাবিও জানিয়েছেন এঁদের অনেকে৷

নিজেরা মানসম্মত নাটক বানাতে পারলে, চ্যানেলগুলো বিদেশি ডাবিংকৃত নাটক দেখাতো না বলে মনে করেন পাঠক আবু জাবের৷ তাঁর ধারণা, সব টেলিভিশন চ্যানেলে একই ধরনের নীচু মানের নাটক আর টক-ঝাল-মিষ্টি শো প্রচার করে৷ আর সে কারণেই তিনি নাকি দেশের চ্যানেল দেখেন না৷

তবে পাঠক বকতিয়ার মানিক আরো ভালো ভালো বিদেশি সিরায়াল ডাবিং-এর পক্ষে মত দিয়েছেন৷ আবার অন্যদিকে ‘‘পরিবার ধ্বংসকারী'' স্টার-প্লাস ও স্টার-জলসা বন্ধের দাবি জানিয়েছেন তিনি৷

মোকলেস মল্লিকেরও একই কথা৷ তাঁরও দাবি, ভারতীয় চ্যানেলগুলো বন্ধ করা হোক৷ তাঁর মতে, এ সব সিরিয়াল নাকি সংসার নষ্ট করা ছাড়া আর কিছু করে না৷ পাঠক বকতিয়ার মানিক ও মোকলেস মল্লিকের সাথে একমত মো. আকতারুজ্জামান নিহালও৷

ওদিকে দেশের নাটক না দেখার কারণ হিসেবে লিখেছেন সুজন শফিুজ্জামান  লিখেছেন, ‘‘দেশি চ্যানেল আর নাটক মার খাচ্ছে নিম্নমানের অনুষ্ঠান আর অতিরিক্ত বিজ্ঞাপনের জন্য...৷''

দেশীয় সিরিয়ালের মান নিয়ে সঞ্জয় সোহেলেরও একই মত৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘এ সব অনুষ্ঠান এত নিম্ন পর্যায়ের, যা দেখতে রুচিতে বাঁধে৷''

মামুন উর রশীদ দীপুর প্রশ্ন, ‘‘সুলতান সোলেমানের মতো সত্য কাহিনি নির্ভর ধারাবাহিক দেখালে সমস্যা কোথায়?'' আর নাটক নির্মাতাদের কাছে পাঠক হাসান আল দাউদের একটাই অনুরোধ, ‘‘ভালো নাটক তৈরি করুন৷''

বাংলাদেশের নির্মাতাদের উদ্দেশ্য করে মন্তব্য করেছেন ডয়চে ভেলের পাঠক জুনায়েদ আহমেদ৷ লিখেছেন, ‘‘নিজেরা ভালো কিছু তৈরি করুন, তাহলে দর্শক আপনাদেরগুলোই দেখবেন৷ দর্শক ধরে রাখতে পারছেন না – এটা আপনাদের ব্যর্থতা৷ এখানে আন্দোলন করে ব্যর্থতা প্রকাশ করা বোকার কাজ ছাড়া কিছু না৷''

পাঠক মাহমুদ হোসেনও জুনায়েদ আহমেদের সাথে একমত৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘নিজেদের অক্ষমতা স্বীকার করুন এবং স্বকীয়তা তৈরি করুন৷ বাংলাদেশের জন্মলগ্ন থেকেই সিনেমা বা নাটক বা গান সবকিছুই নকল বা ডাবিং৷ সুতরাং আকাশ সংস্কৃতি থেকে আমাদের কেন দূরে রাখবেন? বস্তাপচা গল্প, নাচ কিংবা গান দেখানোর জন্য? নাকি আপনাদের কোনো নকল ধরা খাওয়ার ভয়ে?''

‘‘ম্যাকগাইভার, হারকিউলিস, সিন্দবাদ, এক্স ফাইলস যখন চলেছে তখন মানুষ বাঁকের ভাইয়ের জন্যে মিছিলও করেছে৷ সকাল থেকে রাত অবধি বিরতিহীন সংবাদের মাঝে মাঝে বিজ্ঞাপন আর তার মাঝে মাঝে নাটক দেখার চেয়ে ও সব সিরিয়াল দেখা ভালো৷'' মন্তব্য স্বাধীন শোয়েবের৷

Bosnien, Symbolbild Streik bei BHRT (DW/Z. Ljubas)

পাঠক আবু জাবেরের ধারণা, সব টেলিভিশন চ্যানেলই নীচু মানের নাটক আর টক-ঝাল-মিষ্টি শো প্রচার করে৷ সে কারণেই তিনি দেশের চ্যানেল দেখেন না৷

আজকাল নাকি ভালো নাটক হয় না৷ হ্যাঁ, এমনটাই মনে করেন আবু জুবায়ের৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘পুরনো নাটক কত ভালো ছিল, মানুষকে তা কত কাছে টানতো৷ স্কুল-কলেজে যখন ছিলাম, তখন ঈদের নাটক দেখার জন্য সন্ধ্যার আগে বাসায় চলে আসতাম৷ আসলে আগে যত নাটক হতো, মানুষ সেগুলোর সাথে মিশে একাকার হয়ে যেত৷ কোথাও কেউ নেই, আজ রবিবার, অয়ময়, সংশপ্তক, বহুব্রীহি, রূপনগর, বারো রকম মানুষ আরও কত নাটক ছিল৷ আমি যেই সাতটা নাটকের নাম লিখলাম, এদের যে কোনো একটার ধারে কাছে আছে এমন আরো সাতটা নাটকের নাম বলুন তো, যেগুলা গত সাত বছরের প্রচারিত হয়েছে...৷'' 

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন