1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

দৃক্’কে একটা আন্দোলন হিসেবেই দেখি - আলোকচিত্রী শহিদুল আলম

বাংলাদেশে ফোটোগ্রাফির জগতে এক মাইল ফলক দৃক্৷ মানবাধিকারের পক্ষে, সুশীল সমাজের জোরালো কন্ঠ হিসেবেও সক্রিয় দৃক্৷ প্রতিষ্ঠানের স্থপতি ও প্রাণপুরুষ আন্তর্জাতিকখ্যাত আলোকচিত্রী শহিদুল আলম জার্মানি ঘুরে গেলেন৷

default

আলোকচিত্রী শহিদুল আলম

দৃক্ মানে দৃষ্টি৷ এ দেখা ভাসাভাসা নয়, অনেক গভীরে গিয়ে দেখা৷ শহিদুল আলমের দৃকপাত শুধুই চোখ দিয়ে দেখা নয়, মন দিয়ে দেখা, মস্তিষ্ক দিয়ে দেখা৷ এই দেখারই প্রকাশ তাঁর ছবিতে, লেখায়, তাঁর কর্মদ্যোগে৷ রসায়ন পড়েছেন লন্ডনে, পড়িয়েছেন৷ লন্ডন ইউনিভার্সিটির ডক্টরেট উপাধি পকেটে পুরে চলে যান ফোটোগ্রাফির ভিন্ন এক জগতে৷ সেটা ছিল ১৯৮০ সাল৷ কিন্তু রসায়নবিদ শহিদুল আলম কেন ফোটোগ্রাফিতে এলেন?

Abdullah Al-Farooq Shahidul Alam

ডয়চে ভেলে স্টুডিওতে বাংলা বিভাগের প্রধান আব্দুল্লাহ আল-ফারূকের সঙ্গে দৃক প্রধান শহিদুল আলম

‘‘যেদেশের অনেক মানুষ লিখতে পড়তে পারেনা সেখানে শুধুমাত্র আক্ষরিক জ্ঞানকেই যদি শিক্ষা বলা হয়, তাহলে কিন্তু অনেক মানুষকে বঞ্চিত করার একটা জায়গা দাঁড়িয়ে যায়৷ কাজেই আলোকচিত্র বেছে নেয়াটা তেমন অস্বাভাবিক ছিল না রাজনৈতিক কারণেই৷ পারব কি পারব না সেটা ভিন্ন জিনিস ছিল৷ এবং যখন দেশে ফিরি কাজ শুরু করি তখন ফোটো সাংবাদিকতা, যে জায়গায় আমার প্রধান আগ্রহ, সেটা কিন্তু খুব বেশি করার সুযোগ ছিল না৷ কাজেই তখন অ্যাডভার্টাইজিং, ফ্যাশন এই ধরনের কাজ করেছি৷ এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে রাস্তায় নিজের আন্দোলনের ছবি তুলতে গিয়েই কিন্তু সত্যিকার অর্থে এটার শুরু৷''

ছবি তুলে দেশে বিদেশে পুরস্কৃত হয়েছেন শহিদুল আলম৷ আন্তর্জাতিক আলোকচিত্র প্রদর্শনীতে জুরির আসন অলঙ্কৃত করেছেন৷ গড়ে তুলেছেন ‘দৃক্', দক্ষিণ এশিয়া ফোটোগ্রাফি ইনস্টিটিউট ‘পাঠশালা'৷ রয়াল ফোটোগ্রাফিক সোসাইটির এই অনারারি ফেলো একই সঙ্গে সোচ্চার হয়েছেন সমাজের নানা অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে৷ দৃক্ তাঁর অহিংস হাতিয়ার৷

‘‘দৃক্ ফোটোগ্রাফির প্রতিষ্ঠান সেটা যেমন ঠিক৷ আমি এটাকে ভিন্নভাবে দেখি৷ এটাকে একটা আন্দোলন হিসেবে দেখি৷ এবং সমাজ পরিবর্তন করার আন্দোলন৷ সেটার ক্ষেত্রে আমরা খুব শক্তিশালী একটি হাতিয়ার আলোকচিত্রকে আমরা বেছে নিয়েছি৷ কিন্তু নিজেকে আমি গল্পকার হিসেবে দেখি৷ ছবি তুলি, লিখি৷ রাস্তায় নামি, আন্দোলন করি৷ সবগুলি ওটার সাথে সম্পৃক্ত৷ এই গল্পের মাধ্যমে পরিবর্তন আনা যায় এই বিশ্বাসটা আছে বলেই করি৷''

Bürogebäude Drik Bangladesh

ঢাকায় দৃক কার্যালয়

বাংলাদেশের গার্মেন্টস কর্মীদের দাবিদাওয়ার পক্ষেও সোচ্চার দৃক্৷ প্রদর্শনী, ব্লগিং, সিগনেচার ক্যাম্পেন নানাভাবে সক্রিয় এই প্রতিষ্ঠান৷ কেন?

‘‘যেখানে তারা মাসিক ন্যূনতম আয় পাওয়ার জন্য রাস্তায় নামে তখন তাদের ওপর বন্দুক চালানো হয়৷ এবং যে মানুষগুলো তাদের প্রতিনিধিত্ব করেছে তাদেরকে যখন সরকার হেনস্থা করে৷ শ্রমিক সংগঠনগুলো যারা নেতৃত্ব দিচ্ছে তাদেরকে বিভিন্নভাবে অত্যাচার করা হচ্ছে তখন এটার ক্ষেত্রে আমাদের প্রতিবাদ রাখা তো খুব স্বাভাবিক একটা ভূমিকা৷''

দৃক্ প্রতিষ্ঠানের আন্তর্জাতিক মাপের একটি বড় উদ্যোগ ছবিমেলা৷ এটাই এশিয়ায় প্রথম ফোটোগ্রাফি উৎসব৷ দু'বছর পর পর হয় এই উৎসব৷ ২০০০ সালে প্রথম৷ এবারকার ছবিমেলার কথা উল্লেখ করলেন শহিদুল আলম৷

‘‘এখন ঢাকা শহর আলোকচিত্রীদের জন্য একটি তীর্থস্থান৷ সারা পৃথিবীর আলোকচিত্রীরা বসে থাকে ঢাকায় কী হবে ছবিমেলা কবে হবে৷ বাংলাদেশের মত একটি দেশ সারা পৃথিবীতে এখন নির্দেশনা দেয় আলোকচিত্রের জগতে৷ এবং এটার একটা বড় অংশ এই ছবিমেলার মাধ্যমে৷ গত ছবিমেলায় ৬৩টা প্রদর্শনী হয়েছিল ৩৩টা দেশ থেকে৷ এবারও অনেক দেশ থেকে অনেক শিল্পীরা আসছে, অনেক ধরনের কাজ আসছে৷ পাশ্চাত্যের বাইরে এটাই পৃথিবীর সবচাইতে বড় আলোকচিত্র ফেস্টটিভ্যাল, মেলা যদি বলা হয়৷ জানুয়ারির একুশ তারিখে শুরু হবে৷ প্রধান সবগুলো গ্যালারিতেই হবে৷ শুধু যে আলোকচিত্র প্রদর্শনী হবে তা নয়৷ এক সপ্তাহ ধরে বিশ্লেষণ, বিভিন্ন ধরনের আদান প্রদানও হবে৷''

প্রতিবেদন: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

ইন্টারনেট লিংক