1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

দুঙ্গা নির্দিষ্ট স্ট্রাইকার ছাড়াই খেলাবেন ব্রাজিলকে

যাকে বলে ‘ভুয়ো ন’নম্বর’, সেটাই হবে ব্রাজিলের স্থায়ী কৌশল, অন্তত এ বছরটা৷ দুঙ্গা যে অপরাপর প্রণালীর কথা ভাবছেন না, এমন নয়৷ তবে আপাতত ‘ফল্স নাইন’ পদ্ধতিতে অভ্যস্ত হয়ে যাওয়াই ভালো, প্লেয়ারদের বলেছেন দুঙ্গা৷

Neuer Nationaltrainer Brasilien Carlos Dunga

দুঙ্গা

বিশ্বকাপে ব্রাজিলের বিপর্যয়ের পর দুঙ্গা ফিরেছেন কোচ হয়ে৷ গত সপ্তাহের আগের সপ্তাহে কলম্বিয়ার বিরুদ্ধে ১-০, এবং তার ঠিক চারদিন পরে ইকুয়েডরের বিরুদ্ধে সেই ফলাফলের পুনরাবৃত্তি, এই হলো নয়া সফরে এ যাবৎ দুঙ্গার অর্জন৷

গত মঙ্গলবার ইকুয়েডরের বিরুদ্ধে দুঙ্গা নেইমার ও দিয়েগো তারদেল্লিকে মিলিয়ে এক ধরনের ঝুলন্ত অ্যাটাকের ব্যবস্থা করেন এবং তার ফলাফল দেখে দুঙ্গা নিজে অন্তত খুশি বৈ অখুশি নন৷

মার্কিন মুলুকের নিউ জার্সিতে খেলা শেষ হবার পর দুঙ্গা রিপোর্টারদের বলেন: ‘‘ব্রাজিল এই প্রথম ফরোয়ার্ডে অ্যাটাকের কোনো নির্দিষ্ট বিন্দু ছাড়াই খেলেছে এবং সেটা খুব সহজ কাজ নয়৷....প্লেয়ারদের গতিবিধির মধ্যে সামঞ্জস্য থাকতে হবে, খেলা যখন এগোচ্ছে তখন সামনে কাউকে থাকতে হবে৷ আমরা আরো কিছু গতিসম্পন্ন, ক্ষিপ্র প্লেয়ার আনার চেষ্টা করছি, কিন্তু বল যখন আমাদের কাছে, তখন তাদের কোনো নির্দিষ্ট পজিশন থাকবে না৷''

মনে রাখতে হবে, বিশ্বকাপে ব্রাজিল ফ্রেড-কে বাঁধা ন'নম্বর হিসেবে মাঠে নামিয়েছিল৷ তাঁর পিছনে থাকার কথা ছিল জো-র৷ কিন্তু দু'জনের কেউই বিশেষ চমক দিতে পারেননি এবং দু'জনকেই মন্থর বলে মনে হয়েছে৷ অপরদিকে দুঙ্গা যে ব্যর্থ বিশ্বকাপ দলের সকলকে ঝেঁটিয়ে বাদ দিয়েছেন, এমনও নয়৷ বলতে কি, তাঁর নির্বাচনে সেই সাবেক দলের দশজন প্লেয়ারকে পাওয়া যাবে৷ অর্থাৎ দুঙ্গা যেটা বদলাচ্ছেন, সেটা হলো ‘ট্যাকটিক'৷

হয়ত শুধু ট্যাকটিকই নয় বরং তার সঙ্গে ব্রাজিলের প্রথাগত ফুটবল দর্শন, ফুটবল ‘ফিলোজফি'-ও বদলাতে চান দুঙ্গা৷ ব্রাজিলের কোচ হিসেবে তাঁর নতুন কর্মকালের প্রথম দু'টো খেলার পর তিনি বলেছেন: ‘‘যে দল জিততে চায়, তাদের কষ্ট সহ্য করার ক্ষমতা থাকা চাই৷ (সারা মাঠ জুড়ে) দৌড়নোর মতো বিনয় থাকা চাই, আবার সুযোগ পেলে, সেই সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে পারা চাই৷'' যে দৃষ্টিকোণ থেকে দুঙ্গা নতুন-পুরনো প্লেয়ারদের উপর নজর রাখবেন৷ আগামী মাসেই আবার আর্জেন্টিনা ও জাপানের বিরুদ্ধে দু'টি ফ্রেন্ডলি কিনা৷

এসি/ডিজি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন