1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

দুই ছেলেসহ আটক হোসনি মুবারক

ক্ষমতার অপব্যবহার, দুর্নীতি ও মিশরের গণ বিক্ষোভের সময় হত্যাযজ্ঞ চালানোর অভিযোগ তদন্তের জন্য মিশরের সাবেক প্রেসিডেন্ট হোসনি মুবারক এবং তাঁর দুই ছেলেকে ১৫ দিনের জন্য আটক রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷

default

মিশরের সাবেক প্রেসিডেন্ট হোসনি মুবারক

ইতোমধ্যে মুবারকের দুই ছেলে গামাল ও আলা'কে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে৷ অন্যদিকে, অসুস্থ হয়ে পড়া হোসনি মুবারক বর্তমানে সুস্থ আছেন বলে বুধবার জানানো হয়েছে৷ জার্মান বার্তা সংস্থা ডিপিএ'কে এই কথা জানিয়েছেন শার্ম আল শেখ হাসপাতালের একজন চিকিৎসক৷ মঙ্গলবার জিজ্ঞাসাবাদের সময় হার্ট অ্যাটাকের পর থেকে মুবারককে আটক অবস্থায় লোহিত সাগরের তীরে অবকাশ কেন্দ্রের এই হাসপাতালে রাখা হয়েছে৷

গত রবিবার দুর্নীতি এবং ক্ষমতার অপব্যবহার তদন্তের জন্য প্রধান সরকারি কৌঁসুলি আব্দেল মাগুইদ মাহমুদ মুবারকের ছেলেদেরও জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেন৷ ২৫ জানুয়ারি থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলমান মিশরের গণআন্দোলনে সরকারি বাহিনীকে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবহারের ঘটনার তদন্তের অংশ হিসেবে তাদেরকে আটক করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে৷ সেইসময় মিশরে মারা যায় প্রায় ৮০০ মানুষ৷ বিচারমন্ত্রী আজিজ আর গিন্দি বলেছেন, মঙ্গলবার থেকে কৌঁসুলিরা মুবারক এবং তাঁর দুই ছেলেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা শুরু করেছে৷ তাঁদের অবৈধ সম্পদের হিসাব নেওয়া এখনও শুরু হয়নি৷ এই বিষয়টি দেখবে সংশ্লিষ্ট বিভাগ৷

Hosni Mubarak FLASH Galerie

পুলিশ জানিয়েছে, মুবারকের দুই ছেলেকে বুধবার দুপুরে কায়রোর টোরা জেলখানায় আনা হয়েছে, যে জেলখানাতে কুখ্যাত অন্যান্য রাজনীতিবিদরাও বন্দি রয়েছেন৷ এর আগে মিশরের জাতীয় টেলিভিশনে বলা হয়, তদন্তের স্বার্থে এই দুই ভাইকে ১৫ দিনের জন্য আটক করা হয়েছে৷

গামাল ও আলা'কে জিজ্ঞাসাবাদের সময় কী ঘটে তা দেখার জন্য আদালত প্রাঙ্গণে ভিড় করে আন্দোলনকারীদের অনেকেই৷ জনতার ভিড়ের কারণে এই দুই ভাইকে সাধারণ গাড়িতে করে না নিয়ে প্রিজন ভ্যানে করে নিয়ে যেতে হয়৷ এসময় সাধারণ মানুষ তাঁদের মৃত্যুদণ্ডের দাবি জানান৷

জাতীয় টেলিভিশনে বলা হয়, মঙ্গলবার সকালে যখন মুবারক জানতে পেরেছিলেন যে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে তখন থেকেই পানীয় এবং খাবার খাওয়া থেকে বিরত ছিলেন মুবারক৷ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁর দেহরক্ষীরা তাঁকে শার্ম আল শেখ আন্তর্জাতিক হাসপাতালে ভর্তি করান৷ জাতীয় টেলিভিশনে আরও বলা হয়েছে, ঐ হাসপাতাল জরুরি অবস্থা ছাড়া কোনো রোগীকে ভর্তি করে না৷ হাসপাতালের চারপাশ পুলিশের গাড়ি ও অ্যাম্বুলেন্সে ভরে আছে বলে টেলিভিশন প্রতিবেদনটিতে বলা হয়৷ গণ আন্দোলনের মুখে গত ১১ ফেব্রুয়ারি ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়ানোর পর থেকে শার্ম আল শেখ এ রয়েছেন ৮২ বছর বয়সি মুবারক৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন