1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

দীপিকা এবং বিপাশা অনেক বেশি যৌন আবেদনময়ী, দাবি প্রিয়াঙ্কার

টানা তিন মাস মার্কিন মুল্লুকে সিনেমার শুটিং শেষ করে সবে ভারতে ফিরেছেন তিনি৷ তারপরও ক্লান্তির ছাপ নেই৷ বরং লেগে গেছেন ভারতের হকিকে এগিয়ে নিতে৷ গিয়েছেন মাঠেও৷ বলছি প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার কথা৷ নিজের সব কথাই যিনি জানান টুইটারে৷

default

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

@প্রিয়াঙ্কাচোপড়া, টুইটারে তাঁর ঠিকানা এটিই৷ প্রায় আড়াই লাখ ভক্তও সেখানে নিয়মিত খোঁজ নিচ্ছে তাঁর৷ আর তাই ঘন্টায় ঘন্টায় প্রিয়াঙ্কাকে জানাতে হয়, কি করছেন, কি খাচ্ছেন কিংবা এখন কোথায়৷ এই যেমন, প্রতিবেদনটি যখন লিখছি তখন টুইটারে প্রিয়াঙ্কা বলছে, ‘‘কাজে পৌঁছে গেছি৷ সবার জন্য দিনটি শুভ হোক৷'' আবার তার একটু আগেই এক ভক্তের টুইটের উত্তরে বলেছেন, ‘‘পারছি না, সময় নেই৷''

প্রিয়াঙ্কার এই সারাক্ষণ অনলাইনে থাকার মানসিকতা নিয়ে প্রশ্নের মুখেও পড়তে হয় অনেক৷

Indien Bollywood Schauspielerin Deepika Padukone

দীপিকা

কিন্তু বলিউড তন্বীর ঝটপট জবাব, ‘‘দেখুন পৃথিবীর মানুষগুলো ক্রমেই ব্যস্ত হয়ে পড়ছে৷ অন্যের জন্য সময় তাদের খুব কম৷ আর তাই, তাদের সঙ্গে যুক্ত থাকতে এরচেয়ে ভালো আর কি হতে পারে৷'' শুধু তাই নয়, প্রিয়াঙ্কার কথায়, ‘‘ইন্টারনেট পৃথিবীকে অনেক ছোট করে এনেছে৷ দেশ বিদেশের বন্ধু পরিবার পরিজনকে এক নিমিষে খবর পৌঁছে দিতে বেশ ভালো মাধ্যম এটি৷''

তবে এরফলে কি তারকাদের সঙ্গে ভক্তদের যোগাযোগ খুব কাছে হয়ে যাচ্ছে না? বিশেষত, আগে যেমন দেখা যেত, নায়িকাকে দেখতে শুটিং স্পটের বাইরে ব্যাপক ভীড়৷ কিংবা তারকার খবর নিতে পত্রিকার ব্যাপক কাটতি? প্রিয়াঙ্কা জানালেন, ‘‘এরসঙ্গে ফেসবুক, টুইটারের কোন সম্পর্ক নেই৷ কারণ তারকাদের দেখতে ভীড় করার প্রবণতা বছর কয়েক আগেই কেটে গেছে৷ আর তার বড় কারণ তারকাদের দেখার বা জানার জন্য নানা মাধ্যমের সহজলভ্যতা৷ ফলে, নতুন ধারায় মিলাতে টুইটারই ভরসা৷''

Szene aus dem Film Aa Dekhen Zara

বিপাশা

ও হ্যাঁ, শিরোনাম যা নিয়ে তাইতো বলা হলো না৷ ভারতের এক সিনে সাংবাদিক প্রশ্ন করেছিলেন প্রিয়াঙ্কাকে, বলিউডের কোন নায়িকাকে ভালো লাগে তাঁর? হাসতে হাসতেই জবাব প্রিয়ঙ্কার, তাঁর নিজের পর, দীপিকা এবং বিপাশা অনেক যৌন আবেদনময়ী৷ শুনলেন তো, প্রিয়াঙ্কা নিজেই বললেন সবচেয়ে যৌন আবেদনময়ী তিনি নিজেই৷ তারপর বাকিরা!

প্রতিবেদক: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়