1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

দিল্লি ধর্ষণ কাণ্ডের অপরাধীদের সাজা ঘোষণা স্থগিত

দিল্লি ধর্ষণ কাণ্ডের ৯ মাস পর অপরাধীদের সাজা ঘোষণা পিছিয়ে দিলেন দিল্লির ফাস্ট-ট্র্যাক আদালত৷ সাজা ঘোষণা করা হবে শুক্রবার ১৩ই সেপ্টেম্বর৷ এক তরুণীকে গত বছর ১৬ই ডিসেম্বর দিল্লির এক চলন্ত বাসে বিভৎসভাবে ধর্ষণ ও খুন করা হয়৷

দিল্লি গণধর্ষণ কাণ্ডের সাজা ঘোষণার জন্য গত ৯ মাস ধরে যন্ত্রণাবিদ্ধ মনে দিন গুনছিল ২৩ বছরের প্যারা-মেডিক্যাল ছাত্রীর পরিবার, যাকে সবাই ডাকতো ‘নির্ভয়া' এবং ‘দামিনি' বলে৷ শুধু তাঁর পরিবার নয়, অপরাধীদের সাজা ঘোষণার দিনটির দিকে তাকিয়ে ছিল গোটা দেশের নাগরিক সমাজ৷ সাজা ঘোষণার দিন পিছিয়ে দিলেন ফাস্ট-ট্র্যাক কোর্টের বিচারকগণ৷ সাজা ঘোষণা করা হবে শুক্রবার ১৩ই সেপ্টেম্বর৷ আসামিপক্ষের কৌঁসুলিরা লঘু সাজার পক্ষে সওয়াল করেন বুধবার ১১ই সেপ্টেম্বর৷

দিল্লি গণধর্ষণ কাণ্ড কাঁপিয়ে দিয়েছিল গোটা দেশকে৷ বিতর্ক চলছে ভারতে মেয়েদের নিরাপত্তা এবং মর্যাদার নিয়ে৷ আমজনতার চাপে সরকার ফৌজদারী অপরাধ আইন সংশোধনী আইন পাস করা হয় সংসদে৷ ধর্ষণের মত যৌন অপরাধের দ্রুত বিচার ও শাস্তির জন্য গঠন করা হয় ফাস্ট-ট্র্যাক কোর্ট৷ সংশোধনীতে সর্বোচ্চ শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ডের সংস্থান রাখা হয়৷

Neu Delhi Proteste Demonstration Vergewaltigung Indien

বেশিরভাগ মহিলারা মনে করেন, ধর্ষণের মত অপরাধ দমনে ফাঁসি এক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হতে পারে

চারকগণ মনে করেন, গণধর্ষণ কাণ্ডের অপরাধীরা যে বিভৎসতার পরিচয় দিয়েছে, তা পশুকেও লজ্জা দেয়৷ প্রত্যক্ষদর্শীর বিবরণ, ডিএনএ , মেডিক্যাল এবং ফরেনসিক রিপোর্টে তা প্রমাণিত হয়েছে৷ পর পর ৬ জন মেয়েটিকে ধর্ষণ করে৷ ধর্ষণের পর প্রমাণ লোপাটের জন্য মেয়েটিকে খুন করতে তাঁর গোপনাঙ্গে লোহার রড ঢুকিয়ে ভেতরের অঙ্গ প্রত্যঙ্গ টেনে বের করে আনে৷ তারপর নগ্ন অবস্থায় চলতি বাস থেকে মেয়েটিকে এবং তাঁর ছেলে বন্ধুটি ফেলে দেয়া হয়৷ ৬ জন ধর্ষকের মধ্যে একজন নাবালক বলে তাঁর বিচার হয় জুভেনাইল জাস্টিস বোর্ডে৷ সাজা হিসেবে তাকে তিন বছর সংশোধনাগারে আটক থাকতে হবে৷ আরেকজন অপরাধী বিচার চলাকালীন জেলের ভেতরেই আত্মহত্যা করে৷

বেশিরভাগ মহিলারা মনে করেন, ধর্ষণের মত অপরাধ দমনে ফাঁসি এক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হতে পারে৷ ভবিষ্যতে যারা ঐ কাজ করতে যাবে, তাদেরকে অন্তত দ্বিতীয়বার ভাবতে হবে৷ তবে মনস্তাত্ত্বিকদের মতে, মানবসমাজের এই আদিম রিপু একেবারে বিলুপ্ত হবার নয়৷ তবে সংখ্যাটা হয়ত অনেক কম করা যাবে৷ নাহলে ১৬ই ডিসেম্বরের গণধর্ষণ কাণ্ডের পরও প্রতিদিন ধর্ষণের ঘটনা ঘটে চলেছে৷ দিল্লিতেই এ বছরের ১৫ই অগাস্ট পর্যন্ত ১০৩৬টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে৷ এর আগের বছর সংখ্যাটা অনেক কম ছিল৷

পুলিশের মতে, এর কারণ আগে ধর্ষণের কথা স্বীকার করতে মেয়ে লজ্জা পেত৷ গোপন রাখতে চাইতো সামাজিক লজ্জায়৷ সামাজিক সচেতনতা এবং জনসমর্থন বাড়ার ফলে ধর্ষিতারা সাহস করে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করতে এগিয়ে আসছেন৷ পাশাপাশি এটাও সত্যি, সমাজের মানসিকতার পরিবর্তনও জরুরি৷ মেয়েরা দেহসর্বস্ব ভোগ্যপণ্য নয়৷ নিজের ইচ্ছামত জামাকাপড় পরলেই তাঁকে ধর্ষণের শিকার হতে হবে, এটা মানা যায়না কোনোমতেই৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়