1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

দাঁত দিয়ে নখ কাটা দূর করতে প্রয়োজন বাবা-মার সাহায্য

একঘেয়েমি কাটাতে বা চাপের মুখে নিজের অজান্তেই একটি আঙুল মুখের ভেতর দেওয়া৷ তারপর যথারীতি নখ কামড়ানো৷ শিশুদের মধ্যেই দেখা যায় এই বদভ্যাসটি৷ কিন্তু তার প্রতিকার কি?

default

বাবা-মার সাহায্য শিশুদের জন্য আবশ্যক

জার্মানির শ্মালেনব্যার্গ শহরের বিশেষজ্ঞ ক্লাউস ফিশার বলেন, সাধারণত একেবারে শিশু বয়সে কিংবা যে বয়সে বাচ্চারা স্কুলে যাওয়া শুরু করে সেই বয়স থেকে শুরু হয় দাঁত দিয়ে নখ কাটার অভ্যাস৷ আর এই অভ্যাস দূর করার জন্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন বাবা-মা'র সহযোগিতা৷

বদঅভ্যাস হিসেবে প্রথমে এর শুরু হলেও ভবিষ্যতে এটি তার নিত্যদিনের আচরণে পরিণত হয়, যা বিভিন্ন ধরণের মন্দ পরিস্থিতির সৃষ্টি করে৷ দাঁত দিয়ে নখ কাটাকে ডাক্তারি ভাষায় বলা হয় ‘ওনিকোফ্যাজিয়া'৷ শব্দটি গ্রিক শব্দ ‘ওনিকো' এবং ‘ফ্যাজিয়া' শব্দদুটোর মিলনে তৈরি৷ আর ‘ওনিকো' এসেছে ‘ওনিক্স' থেকে যার অর্থ আঙুল এবং ‘ফ্যাজিয়া' অর্থ খাওয়া৷

‘ফেডারেল কনফারেন্স ফর চাইল্ড গাইডেন্স কাউন্সেলিং' এই সমস্যাটি নিয়ে কাজ করছে৷ সাহায্যদাতা খোদ জার্মান পরিবার মন্ত্রণালয়৷ পরিষদের সভাপতি উলরিশ গ্যার্থ বলেন, অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় নখ কামড়ানো সাময়িক একটা অভ্যাস৷ এবং এটা এমনিতেই দূর হয়ে যায়৷ এখানে এটা একটা গরুত্বপূর্ণ বিষয় যে, শিশুকে নখ কামড়াতে দেখলে প্রথমেই বাবা-মার ভয় পাবার কোনো কারণ নেই৷

Kind Mutter Eltern Familie Symbolbild

সন্তানের জন্য যথেষ্ট সময় দিতে হবে বাবা-মায়েদের

শিশুর মধ্যে এই অভ্যাস দেখা দিলে এটা বন্ধ করার জন্য কোনো পদক্ষেপ নেওয়ার আগে বাবা-মা'র উচিত শিশুর আচার-আচরণ একটা নির্দিষ্ট সময় ধরে পর্যবেক্ষণ করা৷ কখন সে নখ কামড়ায়? কতক্ষণ কামড়ায়? এবং কোন অবস্থায় বা পরিবেশে সে এই কাজটি করে? এসব বিষয় পর্যবেক্ষণ করতে হবে৷

জার্মানির ব্রেমেন শহরের শিশু মনোরোগ বিশেষজ্ঞ এবং সাইকোথেরাপিস্ট কারিন হাউফে বোয়েও বাবা-মাকে এই ব্যাপারে শিশুর আচরণের প্রতি খেয়াল রাখার পরামর্শ দিয়েছেন৷ তিনি বলেন, শিশুর মানসিক অস্থিরতার বহিঃপ্রকাশ ঘটতে পারে দাঁত দিয়ে নখ কাটার মধ্যদিয়ে৷ বুঝতে হবে কোথাও একটা সমস্যা রয়েছে৷ বাবা-মাকেই সেই কারণ খুঁজে বের করতে হবে৷ মনোবিজ্ঞানীরা বলছেন, অনেক শিশু রয়েছে যাদের আত্মবিশ্বাসের অভাবই এই অভ্যাসের কারণ৷ তবে বদঅভ্যাসটি দূর করার জন্য বাবা-মার সমর্থন ও সাহায্য এক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক