1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

তেভেজের জোড়া গোলে উত্তাল বিজয় ম্যান সিটি-র

একেই বলে একের মধ্যে দুই৷ ম্যানচেস্টার সিটির সেই একের মধ্যে দুই - এর প্রাপ্তি হয়ে গেল মঙ্গলবার৷ লিগে তিন নম্বরের শিরোপা আর তেভেজের ফাটাফাটি ফর্মে ফেরা৷ তেভেজ থেকে যাচ্ছেন ম্যান সিটিতেই৷

Manchester United's Carlos Tevez, left, battles for the ball with Barcelona's Yaya Toure, right, during their Champions League semifinal second leg soccer match at Old Trafford stadium in Manchester, England, Tuesday April 29, 2008. (AP Photo/Paul White)

কার্লোস তেভেজ (মাঝে)

ম্যান সিটি বনাম স্টোক সিটির ফলাফল ৩-০

তি গোল বনাম শূন্য গোল৷ স্টোক সিটির সঙ্গে ম্যানচেস্টার সিটির খেলাটায় পুরো সময় জুড়েই ম্যান সিটি- র আধিপত্য ছিল দেখবার মত৷ সেখানেই তো শেষ নয়, তেভেজ দারুণ ভাবে ছন্দে ফিরলেন৷ ফর্মে ফিরলেন৷ এবং এই তিন গোলের মধ্যে দুটোই তাঁর একার অবদান৷ তার মধ্যে একটা গোল তো ছিল অসাধারণ৷ স্টোক সিটির পেনাল্টি বক্সে বল ধরে দুই ব্যাককে কাটিয়ে, কড়া ট্যাকল সামলে সেই গোলটা মনে রাখার মত ফুটবলের উদাহরণ৷ ম্যান সিটির হয়ে আরেকটি গোল দিয়েছেন জোলিয়ন লেসকট৷

ম্যান সিটি-র অবস্থান তিন নম্বরে

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে মঙ্গলবারের বিজয়ের পর ম্যানচেস্টার সিটি-র অবস্থান দাঁড়াল তিন নম্বরে৷ যথেষ্ট সম্মানজনক সমাপ্তি এটাকে বলাই যায়৷ তাছাড়া আর্জেন্টিনার তারকা ফুচবালর তেভেজকে নিয়ে যে সমস্যা দেখা দিচ্ছিল, সেটারও অবসান হল এই বিজয়ের ফলে৷

তেভেজকে নিয়ে সমস্যার সমাধান

গত জানুয়ারি মাসেই তেভেজ একেবারে ঘোষণা করে দিয়েছিলেন, তিনি আর ম্যান সিটিতে থাকতে চান না৷ ক্লাব ছেড়ে দেবেন বলে আর্জেন্টিনীয় তারকার এই ঘোষণার পর কিছুটা৪ মুষড়েই পড়েছিল ম্যান সিটির সমর্থকরা৷ কবে মঙ্গলবারের সগৌরব বিজয়ের পর আর দারুণ দুটো গোল করার পর আবার মুডে ফিরে এসেছেন তেভেজ৷

থাকছেন তেভেজ, জানালেন কোচ

ম্যান সিটির কোচ মানচিনি মঙ্গলবারের খেলা শেষ হওয়ার পর জানিয়ে দিলেন, তেভেজের সঙ্গে ক্লাবের পাঁচ বছরের চুক্তি রয়েছে৷ অতএব তিনি থাকছেন ম্যান সিটিতেই৷ অন্তত আগামী বছরে ম্যান সিটির হয়েই নামতে দেখা যাবে কার্লোস তেভেজকে৷ আসলে কোচ মানচিনি তেভেজের প্রশংসায় এদিন একেবারে পঞ্চনুখ ছিলেন সাংবাদিক সম্মেলনে৷ বারবার বলেছেন, কার্লোস হচ্ছে কার্লোস৷ ওর কোন তুলনা নেই৷ ওর মত এত বড়মাপের স্ট্রাইকারের খেলার দক্ষতাটার কথাও বলেছেন তিনি৷ বলেছেন, অত্যন্ত বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে গোল করতে পারে কার্লোস৷ মঙ্গলবার তার প্রমাণ আবারও মিলেছে৷ সুতরাং তারকার বিদায় নিয়ে যে দ্বন্দ্ব ছিল, বা যে আশু সমস্যার মেঘ জমেছিল, কোচ মানচিনির এই ঘোষণার পর সেটা কেটে গেল যে, তাতে কোন সন্দেহই নেই৷

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম

সংশ্লিষ্ট বিষয়