1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভারত

‌তৃণমূল বিক্ষোভ দেশজুড়ে

নোট বাতিলের বিরুদ্ধে এবং তৃণমূল সাংসদদের গ্রেপ্তারির প্রতিবাদে সোমবার থেকে দেশজুড়ে বিক্ষোভ আন্দোলন শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস৷ আগামী তিনদিন এই বিক্ষোভ চলবে, ঘোষণা করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

সোমবার সকালে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করে ঘোষণা করেন দেশজুড়ে তাঁর দলের তিন দিনের বিক্ষোভ সমাবেশের কথা৷ মমতার ভাষায়, ‘‘মোদি বাবুর নির্লজ্জ ফ্লপ শো-এর বিরুদ্ধে দেশজুড়ে প্রতিবাদ৷ বাংলা, ভুবনেশ্বর, পাঞ্জাব, কিষাণগঞ্জ (‌বিহার)‌, মণিপুর, ত্রিপুরা, আসাম, ঝাড়খণ্ড এবং দিল্লিতে প্রতিবাদ হবে৷'' সেই মতো, বেলা বাড়তেই শুরু হয়ে যায় প্রতিবাদ৷ রাজধানী দিল্লিতে দলের বিক্ষোভ কর্মসূচির দায়িত্ব নেন দুই সাংসদ সৌগত রায় এবং ডেরেক ও ব্রায়েন৷ সঙ্গে ছিলেন লোকসভা ও রাজ্যসভার বাকি তৃণমূল সাংসদরা৷ গত সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবনের সামনে এবং প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের সামনে তৃণমূল সাংসদদের আচমক প্রতিবাদের পর থেকে সন্ত্রস্ত দিল্লি পুলিশ৷ এদিন সকাল থেকে পুলিশ পাহারা বসানো হয় ডেরেক ও ব্রায়েন এবং তৃণমূলের সর্বভারতীয় সম্পাদক মুকুল রায়ের বাড়ির সামনে৷ তবে এদিন আর কোনও হঠাৎ বিক্ষোভ নয়, দিল্লির সাউথ অ্যাভিনিউতে, গলায় পোস্টার ঝুলিয়ে তৃণমূল সাংসদরা বিক্ষোভ দেখান৷ অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গের জেলায় জেলায় তৃণমূলের বিক্ষোভের পাশাপাশি কলকাতায় এদিন দুটি বড় বিক্ষোভ শুরু হয়েছেউ একটি সিবিআই দপ্তরের সামনে, অন্যটি রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সামনে৷

তৃণমূল কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা, রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সামনে তৃণমূলের ধর্ণামঞ্চ থেকে সংবাদমাধ্যমকে বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার নোট বাতিলের মাধ্যমে যে অনৈতিক কাজ করছে, তার প্রতিবাদ জানাতে, নিজেদের বিক্ষোভ রিজার্ভ ব্যাঙ্কের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছে দিতে ওঁরা সমবেত হয়েছেন৷ দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেই কারণেই সোমবার থেকে তিনদিনের এই বিক্ষোভ কর্মসূচি শুরু করেছেন দেশজুড়ে৷

কলকাতায় সিবিআইয়ের কার্যালয়, বিধান নগরের সিজিআই কমপ্লেক্সের সামনে এদিন একযোগে বিক্ষোভ দেখায় তৃণমূল, যার নেতৃত্বে ছিলেন স্থানীয় বিধায়ক সুজিত বসু এবং বিধান নগর পুরসভার চেয়ার পার্সন কৃষ্ণা চক্রবর্তী৷ এখানে কেন্দ্রীয় সরকারের নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদের পাশাপাশি তৃণমূল সাংসদ তাপস পাল এবং সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের গ্রেপ্তারির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখায় তৃণমূল৷ সাংসদদের এই গ্রেপ্তারি, তৃণমূলের দাবি অনুযায়ী, তাদের নোট বাতিলবিরোধী আন্দোলনের প্রতিক্রিয়াতেই, যা রাজনৈতিক প্রতিহিংসা ছাড়া আর কিছুই নয়৷ একই সঙ্গে এদিন ভুবনেশ্বরে খুর্দা রোড বিচারবিভাগীয় কমপ্লেক্সের সামনে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূলের নেতা কর্মীরা৷ এদিন সেখানেই ধৃত সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সিবিআই হেফাজতের মেয়াদ বাড়ানোর আর্জি জানিয়ে আদালতে হাজির করা হয়৷

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের আইনজীবী রাজদীপ মজুমদার আদালত চত্বরে দাঁড়িয়ে সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‌সাংসদ রোজভ্যালি চিটফান্ড থেকে নগদ টাকা নিয়েছেন বলে যে অভিযোগ সিবিআই তুলেছে, তার সপক্ষে কোনও প্রমাণ নেই৷ সিবিআই সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের দু'‌জন প্রাক্তন সহযোগীর ম্যাজিস্ট্রেটকে দেওয়া গোপন এজাহারের ভিত্তিতে এই অভিযোগ আনছে৷ তাঁরা নাকি সাংসদের নাম করে রোজভ্যালি থেকে নিয়মিত টাকা নিয়ে আসতন৷ কিন্তু সেই টাকা আদৌ সুদীপের হাতে পৌঁছেছে কিনা, তার কোনও প্রমাণ নেই৷‌

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়