1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

তিমি শিকার বন্ধ করতে অস্ট্রেলিয়া আদালতে

শুধু কথা নয়, এবার নির্বিচারে তিমি হত্যা বন্ধ করতে জাপানকে আন্তর্জাতিক ফৌজদারি আদালতের কাঠগড়ায় তুলছে অস্ট্রেলিয়া৷

default

নির্বিচারে তিমি শিকার গোটা প্রজাতির অস্তিত্ব বিপন্ন করে তুলছে

আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী তিমি শিকার নিষিদ্ধ৷ কিন্তু বৈজ্ঞানিক পরীক্ষার জন্য তিমি শিকার করলে ক্ষতি নেই৷ ১৯৮৬ সালের নিষেধাজ্ঞার এই দুর্বল ব্যতিক্রমী নিয়ম কাজে লাগিয়ে জাপান বিশাল মাত্রায় তিমি শিকার করে আসছে৷ বলাই বাহুল্য, সেই তিমির সামান্য অংশ হয়তো সত্যি বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য কাজে লাগানো হয়৷ নিন্দুকেরা বলে, সেই পরীক্ষাও শুধু লোক দেখানো৷ আসল লক্ষ্য তিমিমাছের বিশাল দেহ থেকে মাংস, তেল, চর্বি ইত্যাদি বের করে বিক্রি করা৷

BdT Australien Japan Protest vor japanischer Botschaft in Melbourne gegen Walfang

মেলবোর্ন’এ জাপানের দূতাবাসের সামনে তিমি শিকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের দৃশ্য

আন্তর্জাতিক সমালোচনা ও চাপ উপেক্ষা করে জাপান বহু বছর ধরে অ্যান্টার্কটিক মহাসাগরে ঘটা করে তিমি শিকার করে আসছে৷ অস্ট্রেলিয়াও দীর্ঘদিন ধরে এই মৃগয়ার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে আসছে৷ কিন্তু কথায় কাজ না হওয়ায় এবার ক্যানবেরা সরকার সরাসরি দ্য হেগ'এর আন্তর্জাতিক ফৌজদারি আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে৷

জাপান এই ঘটনার ফলে সমস্যার মুখে পড়েছে৷ সেদেশের মৎস মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলেছেন, বিষয়টি দুঃখজনক, তবে সরকার যা করার তা করবে৷

২১ থেকে ২৫শে জুন মরক্কোয় আন্তর্জাতিক তিমি কমিশনের বাৎসরিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে৷ অনুমান করা হচ্ছে, তিমি শিকারকে কেন্দ্র করে সদস্য দেশগুলির মধ্যে যে বিরোধ চলে আসছে, তা চিরতরে মেটাতে এবারের সম্মেলনে একটা সমাধানসূত্র উঠে আসতে পারে৷ জাপান ছাড়াও নরওয়ে ও আইসল্যান্ড তিমি শিকার করে থাকে৷ নতুন পরিকল্পনা অনুযায়ী তাদের এখন তিমি শিকার করতে দেওয়া হবে, যদি তারা ১০ বছরের মধ্যে তিমি শিকার উল্লেখযোগ্য মাত্রায় কমিয়ে আনতে রাজি হয়৷

প্রতিবেদন: সঞ্জীব বর্মন
সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়