1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

তিন অপারেটরের থ্রিজি অফারে ব্লগে সমালোচনা

মোবাইল অপারেটরগুলো একে একে তৃতীয় প্রজন্মের (থ্রিজি) সেবা দেয়া শুরু করছে৷ আর বিটিআরসি সম্প্রতি গ্রামীণফোন, রবি এবং বাংলালিংকের প্রস্তাবিত প্যাকেজ অনুমোদন করেছে বলে খবর৷

‘অর্থসূচক' নামক একটি অনলাইন পোর্টালে এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় বৃহস্পতিবার রাত নয়টার দিকে৷ সেখানে তিনটি মোবাইল অপারেটরের বিভিন্ন অফার আলাদাভাবে চার্টের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে৷ এরপর থেকেই ব্লগ আর ফেসবুকে ব্যবহারকারীদের প্রতিক্রিয়া শুরু হয়৷

সামহয়্যার ইন ব্লগে মোঃ ওয়াদুদ নামে টেলিটকের থ্রিজি ব্যবহারকারী একজন লিখেছেন, ‘‘গ্রামীণফোন, রবি, বাংলালিংক কোম্পানিগুলো যেসকল অসভ্য থ্রিজি সার্ভিস দেয়ার প্ল্যান করতেছে তা সত্যিই হাস্যকর ও বেদনাদায়ক৷ টেলিটক থ্রিজি কিছুদিন হলো ৯৫০ টাকায় ভ্যাটসহ ১০ জিবি ৫১২ কেপিবিএস স্পিড দিচ্ছে (আমি এর আগে ১১৫০ টাকায় ব্যবহার করতাম) কিন্তু তাদের ওয়েবসাইটে এ ব্যাপারে কোনো তথ্য আপডেট করতে দেখছিনা, তারা সেই আগের প্যাকেজগুলোর তথ্য দিয়ে রেখেছে, কিন্তু কেন? তারপরও আগের তথ্য অনুসারেও টেলিটক থ্রিজির প্যাকেজগুলো অন্যান্য কোম্পানির থেকে বহুগুনে ভালো!'' এরপর তিনি লেখেন, ‘‘টেলিটক থ্রিজি কেন বিজ্ঞাপন দেয় না, না দিল, আসুন আমরাই দেই আমাদের বিজ্ঞাপন৷ দেশের টাকা দেশেই রাখি ব্যবহার করি আমাদের ফোন৷''

একই ব্লগে এম এনামুল হক লিখেছেন, ‘‘প্যাকেজ দেখার পর হা হয়ে গেলাম....ইন্টারনেটের দাম কমবে ভাবছিলাম, এখন দেখি সেটা তুলনামূলকহারে আরো বেড়েছে৷'' তিনি জানতে চেয়েছেন, ‘‘তবে কি দ্রুতগতির সাশ্রয়ী ইন্টারনেট মুলা ঝোলানো কারবার!!!!''

এদিকে, ফেসবুকে মোঃ তৌহিদুল ইসলাম পরাগ লিখেছেন, সব মোবাইল অপারেটরের প্যাকেজ তুলনা করে তার কাছে টেলিটকই ভালো মনে হয়েছে৷ অবশ্য এই স্ট্যাটাসের নীচে পরাগের অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী ফেসবুক বন্ধু এম জায়দুল আলম লিখেছেন, ‘‘তারপরও তোরা অন্য যে কোনো দেশের তুলনায় অনেক কমে থ্রিজি পাচ্ছিস৷ তফাৎ একটাই, অন্য দেশে ১ এমবিপিএস মানে ১ এমবিপিএসই, আর, দেশে ১ এমবিপিএস মানে ২৫৬ এরও কম৷''

সংকলন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন