1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

তালেবান বিরোধী নতুন অভিযানে সাফল্যের দাবি

আফগানিস্তানে তালেবান বিরোধী সর্বাত্মক অভিযানে সাফল্য পেতে শুরু করেছে মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো বাহিনী৷ অপরদিকে আক্রমণ ঠেকাতে রাস্তায় রাস্তায় বুবি ট্র্যাপ পেতে রেখেছে তালেবান জঙ্গিরা৷

default

অভিযানে অংশ নিচ্ছে মার্কিন সেনারা

বহুজাতিক বাহিনীর সর্বাত্মক অভিযান

মার্কিন মেরিন সেনাদের নেতৃত্বে এই অভিযানে অংশ নিচ্ছে ১৫ হাজার বহুজাতিক সেনা৷ এদের মধ্যে আফগান সেনাবাহিনী ছাড়াও রয়েছে ব্রিটেন, ডেনমার্ক, এস্তোনিয়া এবং ক্যানাডার সেনারা৷ অভিযানের নাম দেওয়া হয়েছে অপারেশন মুশতারাক৷ দারি শব্দ মুশতারাকের অর্থ হচ্ছে একসঙ্গে৷ অর্থাৎ তালেবান বিরোধী অভিযানকে ঐক্যের রূপ দিতেই এই অভিযানের নাম রাখা হয়েছে অপারেশন মুশতারাক৷ শনিবার ভোর থেকে হেলমান্দ প্রদেশে এই সর্বাত্মক অভিযান শুরু হয়৷ বার্তা সংস্থাগুলোর খবর থেকে যতটুকু জানা গেছে, তাতে বোঝা যাচ্ছে হেলমান্দ প্রদেশের অন্যতম শহর মারজাহতে মার্কিন মেরিন সেনারা তালেবান জঙ্গিদের সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে৷ অন্যদিকে উত্তরের নাদ আলি শহরের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে ব্রিটিশ সেনারা৷ তাদের সঙ্গে রয়েছে ট্যাঙ্ক এবং অন্যান্য সাঁজোয়া যান৷

NO FLASH Afghanistan Großoffensive U.S. Marines

ভোর বেলায় হেলিকপ্টার থেকে মারজাহতে নামেন মেরিন সেনারা

শুরুতেই সাফল্য দাবি

শনিবার অভিযানে অংশ নেওয়া আফগানি বাহিনীর কমান্ডার জেনারেল শের মোহাম্মদ জাজাই জানিয়েছেন, প্রথম ঘন্টার লড়াইয়ে কমপক্ষে ২০ জন তালেবান জঙ্গি প্রাণ হারিয়েছে৷ আরও ১১ জনকে আটক করা হয়েছে৷ হেলমান্দ প্রদেশের গভর্নর গুলাব মানগাল এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, আমরা মারজাহ জেলার ১১টি গুরুত্বপূর্ণ জায়গা দখল করেছি৷ এবং তালেবান পক্ষ থেকে প্রতিরোধ কমে এসেছে৷ অন্যদিকে ন্যাটো জানিয়েছে শনিবার রাস্তার পাশে পেতে রাখা বোমার আঘাতে পাঁচজন সেনা নিহত হয়েছে যাদের মধ্যে তিনজনই মার্কিন মেরিন সেনা৷ এছাড়া আরও একজন ব্রিটিশ সেনা নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেলেও তিনি ওই পাঁচ জনের মধ্যে কি না সেটি নিশ্চিত হওয়া যায়নি৷

তালেবানের নানামুখি প্রতিরোধ

শনিবার ভোরে মারজাহ জেলায় যখন ন্যাটো বাহিনী অবতরণ করে তখনই সেখানে অবস্থানরত তালেবান যোদ্ধাদের সঙ্গে তাদের তুমুল লড়াই শুরু হয়৷ বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানায়, এসময় মার্কিন সেনারা কমপক্ষে চারটি রকেট ছোঁড়ে৷ এক ঘন্টা পরেও সেখানে গুলি বিনিময় চলছিল বলে জানিয়েছেন রয়টার্সের সাংবাদিক৷ তালেবান কমান্ডার কারি ফজলুদ্দিনের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, প্রায় দুই হাজার তালেবান যোদ্ধা সেখানে লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত৷ অন্যদিকে তালেবান মুখপাত্র ইউসুফ আহমাদি বার্তাসংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, আমরা বিদেশি সেনাদের হিট অ্যান্ড রান এ ব্যস্ত রেখেছি৷ আবার হেলমান্দ প্রদেশের গভর্নর গুলাব মানগাল জানিয়েছেন তালেবান জঙ্গিরা গোটা এলাকাতে বুবি ট্র্যাপ পেতে রেখেছে৷ বার্তা সংস্থা এপি জানায়, মারজাহর একটি খালের সেতুতে এত বেশি বিস্ফোরক পেতে রেখেছিলো তালেবান জঙ্গিরা যে সেনাদের সেখানে বিকল্প সেতু তৈরি করতে হয়েছে৷

প্রতিবেদক: রিয়াজুল ইসলাম, সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়