1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ঢাকায় হাজারিবাগের ট্যানারি বিষ ছড়াচ্ছে

ঢাকার জনবহুল এলাকা হাজারিবাগের এ্যাপেক্স ট্যানরিতে বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থে বৃহস্পতিবার ৩ জন শ্রমিক নিহত হয়েছেন৷ ওই ট্যানারির আরো ৯ জন শ্রমিক বিষক্রিয়ায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন৷

default

চামড়া শিল্প কারখানায় কর্মরত শ্রমিকরা (ফাইল ছবি)

সকালে কারখানায় কাজ করতে গেলে শ্রমিকরা বিষক্রিয়ার শিকার হন৷ অনেকদিন ধরেই তারা আতংকে ছিলেন৷ কারখানার ম্যানেজার মাহমুদু্ন্নবি কোন ট্রিটমেন্ট প্লান্ট না থাকার কথা স্বীকার করলেও এই মৃত্যুকে তিনি স্বাভাবিক দুর্ঘটনা বলেই মনে করেন৷

হাজারিবাগের এই ট্যানারিগুলো চলতি বছরের ২৮শে ফেব্রুয়ারির মধ্যে সাভারে স্থানান্তরের কথা ছিল৷ আদালত জনবহুল এলাকায় এধরণের শিল্পের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে৷ তারপরও তা বাস্তবায়িত হয়নি৷ বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের নেতা ড. ইকবাল হাবিব বলেন, জনবহুল এরাকায় এধরণের শিল্প হতে পারেনা ৷ তিনি অবিলম্বে হাজারিবাগ থেকে ট্যানারি সরিয়ে নেয়ার দাবি জানান৷

হাজারিবাগে মোট ২শ' ট্যানারি বা চামড়া শিল্প রয়েছে৷ এসব ট্যানারিতে কমপক্ষে ৩০ ধরণের ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ ব্যবহার করা হয়৷ পরিবেশ অধিদফতরের হিসেব মতে, এসব ট্যানারি থেকে প্রতিদিন ২২ হাজার কিউবিক মিটার বিষাক্ত তরল বর্জ্য যায় বুড়িগঙ্গা নদীতে৷ আর কঠিন বর্জ্য হয় ১০০ টন৷ যা শুধু কারখানায় কর্মরত শ্রমিকই নয় পুরো ঢাকার পরিবেশ ও জনস্বাস্থ্যকে বিপর্যয়ের মুখে ফেলেছে৷

ইবাল হাবিব জানান, ট্যানারির কঠিন বর্জ্য পুড়িয়ে পোল্ট্রি ফিড উৎপাদন করায় পরিবেশ দূষনের মাত্রা আরো বেড়ে গেছে৷ তিনি জানান, ট্যানারির ২০ হাজার শ্রমিক রীতিমত বিষাক্ত পরিবেশে কাজ করেন৷ আর মাত্র ৩০টি ট্যানারির ট্রিটমেন্ট প্লান্ট রয়েছে৷

প্রতিবেদক: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়