1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ঢাকায় ঘরের বাইরে বর্ষবরণের নিষেধাজ্ঞা

ঢাকায় ঘরের বাইরে নতুন বছর উদযাপনে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে বাংলাদেশ পুলিশ৷ সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন মসজিদে বোমা হামলায় প্রাণহানির পর এই ঘোষণা দিল পুলিশ৷

পুলিশের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা থেকে, জানাচ্ছে স্থানীয় গণমাধ্যম৷ তবে এই নিষেধাজ্ঞার কোনো সুনির্দিষ্ট কারণ ব্যাখ্যা করা হয়নি৷ পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ঢাকার গুলশান, বনানী, বারিধারা এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় নিষেধাজ্ঞা চলাকালে বহিরাগতদের প্রবেশ করতে দেয়া হবে না৷ পাশাপাশি বর্ষবরণের রাতে ঢাকার বারগুলো সন্ধ্যা ছ'টায় বন্ধ করে দেয়া হবে৷ আর আজকে থেকেই মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান শুরু করা হবে যাতে বর্ষবরণের রাতে মাদক ব্যবহার বন্ধ করা যায়৷

এদিকে, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বছরের শেষদিন সন্ধ্যার পর বর্ষবরণের উৎসব না করার পরামর্শ দিয়েছেন৷ বাংলাদেশে ডয়চে ভেলের কন্টেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে সরকারের একজন মন্ত্রী জানিয়েছেন, ‘‘সন্ধ্যার পরে থার্টি ফার্স্ট উৎসব না করতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বিধিনিষেধ দিয়েছে৷ প্রধানমন্ত্রীও সন্ধ্যার পরে এই উৎসব না করার পরামর্শ দিয়েছেন৷''

‘দেশি-বিদেশি চক্র' দেশকে অস্থিতিশীল করতে সক্রিয় রয়েছে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী সোমবার এক বৈঠকে মন্ত্রিসভার সদস্যদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দেন বলে জানিয়েছেন ওই মন্ত্রী৷ এ সময় তিনি দিনেও আনন্দ করা যায় উল্লেখ করে বলেছেন, ‘‘আনন্দ করতে কোনো বাধা নেই৷ তবে তা রাতে না করাই ভালো৷ সব সময় একইভাবে আনন্দ করতে হবে এমন নয়৷ দিনেও আনন্দ করা যায়৷''

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার আহমেদিয়াদের মসজিদে আত্মঘাতী বোমা হামলায় এক ব্যক্তি প্রাণ হারান৷ তাঁর আগের সপ্তাহে চট্টগ্রামে নৌ-বাহিনীর ঘাঁটির মধ্যে মসজিদে হামলার ঘটনা ঘটে৷ চলতি বছর বাংলাদেশে বেশ কয়েকটি হামলায় বেশ কয়েকজন প্রাণ হারিয়েছেন৷

পুলিশের এই নিষেধাজ্ঞা বিষয়ে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে পারেন নীচে মন্তব্যের ঘরে...

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়