1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ড. ইউনূস বললেন তাঁকে বিদ্বেষের কারণে অপসারণ করা হয়েছে

গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নোবেল শান্তি পুরস্কারজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনূসের অব্যাহতির আদেশ চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদনের শুনানি শেষ হয়েছে বুধবার ঢাকায়৷ হাইকোর্ট রোববার আদেশ দেবেন৷

default

ড. মুহাম্মদ ইউনূস

ড. মুহাম্মদ ইউনূস বলেছেন, তাকে বিদ্বেষের কারণে অপসারণ করা হয়েছে৷ আর অর্থমন্ত্রী বলেছেন তাকে আইনি প্রক্রিয়ায় অব্যাহতি দেয়া হয়েছে৷ মন্ত্রীর দাবি, সরকার কোন অন্যায় করেনি৷

রিটের শুনানি শেষ হয় বিকেল ৫টার পর৷ হাইকোর্টের বিচারপতি মো. মমতাজ উদ্দিন আহমেদ এবং বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের বেঞ্চে ড. মুহাম্মদ ইউনূসের পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন আন্তর্জাতিকখ্যাত আইনজীবী ড. কামাল হোসেন৷ তিনি বলেন, গ্রামীণ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ ২০০১ সালে ড. ইউনূসকে অনির্ধারিত মেয়াদের জন্য ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে নিয়োগ দেয়৷ তাই তার ক্ষেত্রে বয়স সীমা ৬০ বছর প্রযোজ্য নয়৷ তাকে বেআইনিভাবে অপসারণ করা হয়েছে৷

জবাবে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, বয়স ৬০ বছর পার হয়ে যাওয়ায় ড. মুহাম্মদ ইউনূস আর গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে থাকার যোগ্য নন৷ তাকে আইন মেনেই অব্যাহতি দেয়া হয়েছে৷

শুনানির সময় ড. ইউনূস আদালতে উপস্থিত ছিলেন৷ শুনানি শেষে তিনি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন৷ তিনি বলেন, গ্রামীণ ব্যাংক কারুর নিজস্ব সম্পদ বা ব্যক্তিগত প্রতিষ্ঠান নয়৷ জনগণের প্রতিষ্ঠান৷ সম্মানজনকভাবেই সবকিছু হওয়া উচিত ছিল৷

এদিকে আজ সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বিদেশী কুটনীতিকদের কাছে ড. ইউনূসকে অব্যাহতির বিষয়টির ব্যাখা দিয়েছেন৷ তিনি বলেছেন সরকার কোন অন্যায় করেনি - যা করেছে আইন মেনেই করেছে৷ তিনি বলেন, এজন্য কোন দেশের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হওয়ার প্রশ্নই ওঠেনা৷

বৈঠক শেষে ঢাকায় মার্কিন দূত জেমস এফ মরিয়ার্টি বিষয়টির একটি সম্মানজনক সমাধানের প্রত্যাশার কথা জানিয়েছেন সাংবাদিকদের৷ তার মতে এটি বাংলাদেশ সরকার এবং ড. মুহাম্মদ ইউনূস উভয়ের জন্যই ভাল হবে৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন  ডয়চে ভেলে, ঢাকা

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়