1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

‘ড. ইউনুসের বিরুদ্ধে কর্মকাণ্ডের উদ্দেশ্য রাজনৈতিক’

২০০৬ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনুস এবং গ্রামীণ ব্যাংকের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে করা হচ্ছে বলেই মনে করছেন ‘ফ্রেন্ডস অফ গ্রামীণ কমিটি'৷

default

ডয়চে ভেলেতে ড.ইউনুস

আয়ারল্যান্ডের সাবেক প্রেসিডেন্ট মেরি রবিনসনের নেতৃত্বে বিশ্বের নামি পঞ্চাশ ব্যক্তিত্ব বলেছেন, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেই নোবেলজয়ী গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতার বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক আক্রমণগুলো রচনা করা হয়েছে৷

অতি সম্প্রতি নোবেলজয়ী এই বাংলাদেশি অধ্যাপকের বিরুদ্ধে বেশ কিছু মামলা করা হয়েছে৷ সেই সঙ্গে তাঁর গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদ ছেড়ে দেয়া উচিত বলে উল্লেখ করেছেন বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহীত৷

১৯৮০ সালে ড. মোহাম্মদ ইউনুস গঠন করেন গ্রামীণ ব্যাংক৷ ক্ষুদ্র ঋণ বিতরণে এই ব্যাংকের সাফল্য এবং দারিদ্র বিমোচনে অবদান রাখার জন্য তিনি এবং গ্রামীণ ব্যাংক ২০০৬ সালে যৌথভাবে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন৷

সম্প্রতি নরওয়ের একটি টেলিভিশনে প্রচারিত গ্রামীণ ব্যাংকের তহবিল অন্যত্র সরিয়ে নেয়া বিষয়ক একটি প্রতিবেদনের পরপরই মূলত বাংলাদেশের মিডিয়াতে ড. ইউনুসকে নিয়ে শুরু হয় আলোচনা৷ এর পরপরই তাঁর বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্থানে রুজু হয় মামলা৷ গত মাসে তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের করা তিনটি মামলায় তিনি আদালতে হাজিরাও দিয়েছেন এরই মধ্যে৷ সরকারের পক্ষ থেকে তহবিল সরিয়ে নেয়ার বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে৷ অর্থমন্ত্রী এ প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘‘আমি তাঁকে পরামর্শ দিয়েছিলাম যে, তিনি যদি তদন্ত চলাকালীন সময়ে নিজে থেকেই সাময়িক সময়ের জন্য ব্যাংক থেকে সরে দাঁড়ান তাহলে সেটা তার জন্য ভালো হবে৷'' কিন্তু ড. ইউনূস তার পরামর্শ প্রত্যাখ্যান করেছেন বলে দাবি অর্থমন্ত্রীর৷

‘ফ্রেন্ডস অফ গ্রামীণ কমিটি'র প্রধান আয়ারল্যান্ডের সাবেক প্রেসিডেন্ট মেরি রবিনসন বুধবার ঐ বিবৃতিতে বলেন, ড. মুহাম্মদ ইউনুসের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক এই সব আক্রমণে আমরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন৷ অন্যদিকে, কমিটির অপর সদস্য বিশ্বব্যাংকের সাবেক প্রেসিডেন্ট জেমস ওলফেনসন বলেছেন, ভুল তথ্যের প্রচারণার শিকার হয়েছেন ড. ইউনুস এবং গ্রামীণ ব্যাংক৷ তাঁরা বলেছেন, ক্ষুদ্র ঋণ বিতরণে একটি অসামান্য উদাহরণ গ্রামীণ ব্যাংক, যাদের প্রতিটি কাজে রয়েছে স্বচ্ছতা, রয়েছে ঋণের সুদের হারেও গ্রহণযোগ্যতা৷ তারা বলেছেন, ‘‘ভালো কাজের দৃষ্টান্ত সৃষ্টিকারী এই ব্যাংকের জন্য, ড. মুহাম্মদ ইউনুসের জন্য এবং তাঁর সততাকে রক্ষা করা আমাদের দায়িত্ব৷''

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়