1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

ডয়চে ভেলের সাথে আছি, থাকবো

প্রিয় ডয়চে ভেলে, আশা করি আপনারা ভালই আছেন৷ ছোট করে আমার পরিচয় দিচ্ছি... এভাবেই তাঁর ই-মেলটি শুরু করেছেন বহু পুরনো বন্ধু মান্টু৷ আমি ৮৭ সালে প্রথম আপনাদের অনুষ্ঠান শুনি তখন ক্লাস নাইনের ছাত্র৷

...তখন থেকেই চিঠি লিখা শুরু করি৷ পরে রেডিও ডিডাব্লিউ লিসেনার্স ক্লাব গঠন করি, যা পরে রেজিস্ট্রি হয় খুব সম্ভবত বি ২০৫ নম্বর ছিল৷ ঢাকায় শ্রোতা সম্মেলনে অংশ নেই (ছবি সংযুক্ত) যেখানে ই পেটারসেন এসেছিলেন৷ এর পর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ি এবং পাশ করার পরও আপনাদের অনুষ্ঠানের নিয়মিত শ্রোতা ছিলাম৷ অনুষ্ঠান খুবই উপভোগ করতাম বলে সময় পেলেই রেডিওর নব ঘুরাতাম৷ আপনাদের পাঠানো ডিজিটাল রেডিওটি এখনও যত্ন করে রেখেছি৷ এর পর পারিবারিক জীবন, চাকুরি ব্যস্ততা ও আপনাদের চড়াই-উতরাই পেরিয়ে এখন ফেসবুক সোশাল পেজে নিয়মিত আছি ও থাকবো৷ আমার সংগ্রহে থাকা দুটি ছবি পাঠালাম আশা করি ভালো লাগবে৷

ধন্যবাদান্তে মো. জাহাঙ্গীর আলম মান্টু, কাপ্তাই, রাঙ্গামাটি, বাংলাদেশ৷

ভাই জাহাঙ্গীর আলম মান্টু ,এতো বছর আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই আপনাকে৷ অনেক বছর আগে চিঠিপত্র বিভাগের প্রধান ই.পেটারসেন সাহেবের সাথে ঢাকায় তোলা আপনাদের ছবিটি দেখে ভালো লাগলো৷

নিয়মিত লেখক এমএ বারিক, ভাটরা, সিহালী, শিবগঞ্জ, বগুড়া থেকে লিখেছেন, বাংলাদেশের সবচেয়ে নিম্ন আয়ের মানুষ কে জানেন? এদের পরিশ্রমের তুলনায় পারিশ্রমিক নেই বললেই চলে৷ তাও আবার প্রতিদিন ১০ ঘণ্টা কাজ করতে হয়৷ মাসে তাঁদের গড় বেতন ৫১০ টাকা, কাজ করতে হয় কমপক্ষে দশ ঘণ্টা৷ আর ঘুমাতে হয় রান্না ঘরের মেঝেতে৷ এমন সব নিম্ন শ্রেণির মানুষের কথা উঠে এসেছে ডয়চে ভেলের ওয়েবসাইটের পাতায়৷ যা আমাদের মত সচেতন মানুষের দৃষ্টি আর্কষণ করেছে৷ ডয়চে ভেলে সবসময় নির্যাতিত অবহেলিত, বৈষম্যপূর্ণ মানুষের কথা বলে৷ এ সব কারণেই ডয়চে ভেলে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মিডিয়া৷

পরের ই-মেলটি পাঠিয়েছেন, বন্ধু রাজীব৷

তিনি লিখেছেন ‘‘প্রিয় ডয়চে ভেলে পরিবার, আমার ভালোবাসাময় শুভেচ্ছা নিবেন৷ রমজানের ছুটির অবসরে নিয়মিত চোখ থাকছে ডয়চে ভেলের বাংলা ওয়েবে৷ গাজার বর্তমান অবস্থা নিয়ে তথ্য চিত্র প্রতিবেদন বেশ আপডেট হচ্ছে৷ দিন যাচ্ছে আর নিহতের সংখ্যা বৃদ্ধিই পাচ্ছে! এর শেষ কোথায়? সত্যিই মানবিক দিক দিয়ে আমরা ব্যথিত৷

ডয়চে ভেলের ওয়েবসাইটের সমাজ সংস্কৃতি পাতায় ‘মানুষ কেটে খাওয়ায় তার কাজ' প্রতিবেদনটি পড়ে আশ্চর্য হলাম ! লজ্জাকর হলেও সত্য যে বাংলাদেশে সরকারী চাকুরিজীবীদের ভুয়া মুক্তিযুদ্ধ সনদপত্র ধরা পড়েছে৷ ভারতের বিচার বিভাগে দুর্নীতির অবস্থা জেনে খারাপই লাগলো৷ সব মিলিয়ে বলা যায় বাংলা ওয়েব সারা বিশ্বের দিকেই বেশ ভালোই নজর রাখছে৷

১২ ও ১৩ জুলাই তারিখের টপ গেম কুইজের ফলাফল যদি প্রকাশ হয়েই থাকে, তবে আমাকে ফলাফলের ওয়েব লিংকটা জানাবেন৷ হয়তো বা খেলা দেখার পাশাপাশি পরীক্ষার পড়াশুনার চাপে সঠিক সময়ে ফলাফলটা দেখতে পারি নাই! তবে আমি আপনাদের কেমন পাঠক সেটা আপনারই মূল্যায়ন করবেন৷ সময়ের সাথে আগামীর পথে দর্শক পাঠকদের মন জয় করে এগিয়ে যাক ডয়চে ভেলে বাংলা এই শুভকামনায় '' রাজীব কুমার মণ্ডল, হাসিমপুর, সালামপুর, লালপুর, নাটোর থেকে পাঠিয়েছেন এই ই-মেলটি৷

-লেখার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ৷ পাঠক রাজীবের অনুরোধে জানাচ্ছি, গত ১২ ও ১৩ই জুনের টপ গেম কুইজের বিজয়ী বন্ধুরা হলেন, সুজানগর, পাবনার রীনা পারভীন আর দ্বিতীয়জন হলেন, প্রীতম মাহমুদ যিনি এখনো পোস্টাল ঠিকানা পাঠান নি৷

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন