1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

ডর্টমুন্ড হামলায় আটক ব্যক্তি ‘আইএস জঙ্গি'

ডর্টমুন্ডে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় আটক ব্যক্তি ইরাকে জঙ্গি সংগঠন আইএস-এর সদস্য ছিল৷ এ তথ্য জানিয়ে তাকে গ্রেপ্তারের অনুমতি চেয়েছেন জার্মান কৌঁসুলিরা৷ তবে ঐ ব্যক্তির বিরুদ্ধে মঙ্গলবারের ঘটনায় জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যায়নি৷

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জার্মানির বোরুসিয়া ডর্টমুন্ড ফুটবল ক্লাবের বাসের সামনেবিস্ফোরণের ঘটনায় একজন সন্দেহভাজন ইসলামপন্থিকে গ্রেপ্তার করা হয়৷ জার্মানির কেন্দ্রীয় কৌঁসুলিরা জানিয়েছেন, ঐ ব্যক্তি অতীতে ইরাকে তথকথিত জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট বা আইএস-এর সদস্য ছিল বলে জানতে পেরেছেন তাঁরা৷ আর এই অভিযোগেই তাঁকে গ্রেপ্তারের অনুমতি চাওয়া হয়েছে৷ তবে সঙ্গে এ-ও জানানো হয়েছে যে, আটক ঐ ব্যক্তি মঙ্গলবার বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় জড়িত ছিল কিনা, তার কোনো প্রমাণ এখনও পাওয়া যায়নি৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

আইন অনুযায়ী, অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়া পর্যন্ত আটক ব্যক্তির প্রকৃত নাম প্রকাশ করা যায় না৷ তাই আটক ব্যক্তির নাম ‘আব্দুল বাসেত এ’ হিসেবে উল্লেখ করেছে জার্মানির কেন্দ্রীয় কৌঁসুলির কার্যালয়৷ বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে, আটক ওই ব্যক্তি ইরাকে ১০ জনের এমন এক কমান্ডো দলের নেতৃত্বে ছিল, যাদের কাজই ছিল লোকজনকে অপহরণ এবং হত্যা করা৷ 

জার্মানির আইন অনুযায়ী, গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ছাড়া কোনো ব্যক্তিকে ২৪ ঘণ্টার বেশি আটকে রাখা যায় না৷ সে কারণেই বৃহস্পতিবার জার্মানির সময় অনুযায়ী বিকেলের দিকে আদালতে আব্দুল বাসেত এ-কে হাজির করে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার চাওয়া হবে৷ বিচারকের অনুমতি সাপেক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রেপ্তারের পর শুরু হবে পরবর্তী পর্যায়ের জিজ্ঞাসাবাদ৷

এদিকে হামলার দায় স্বীকার করা যে দু’টি চিঠি পাওয়া গিয়েছিল তার মধ্যে একটিকে কৌঁসুলিরা ‘ভুয়া’ মনে করছেন৷ ফ্যাসিবাদবিরোধী একটি গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে চিঠিটি লেখা হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছিল৷ তবে ‘আল্লাহর নামে’ লেখা অন্য যে চিঠিটিতে ম্যার্কেলকে সিরিয়ায় মুসলিম হত্যার জন্য দায়ী করা হয়, সেটি নিয়ে এখনো তদন্ত চলছে৷

এসিবি/ ডিজি (এপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়