1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

ডর্টমুন্ড হামলার দায়ে এক রুশ-জার্মান গ্রেপ্তার

২৮ বছর বয়সি সের্গেই ডাবলিউ.-কে দক্ষিণ জার্মানির ট্যুবিংগেন শহরে গ্রেপ্তার করা হয়৷ দৃশ্যত সে ডর্টমুন্ড ক্লাবের শেয়ার নিয়ে ফাটকা খেলে মুনাফা করতে চেয়েছিল৷

গত ১১ই এপ্রিল ডর্টমুন্ডের চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচ ছিল এএস মোনাকোর বিপক্ষে৷ সন্ধ্যায় ক্লাবের বাসে করে ডর্টমুন্ডের খেলোয়াড়রা স্টেডিয়াম থেকে ১৫ কিলোমিটার দূরের হোটেল থেকে মাঠে যাচ্ছিলেন৷

বাসটি হোটেল চত্বর ছেড়ে বেরোবার সময় পাশের কেয়ারি করা ঝোঁপের মধ্যে লুকানো তিনটি ‘এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস' বা বোমা ফাটে৷ বোমাগুলি ধাতব টুকরোয় ভরা ছিল৷ বোমাগুলিকে দৃশ্যত একক বেতার সংকেত দিয়ে ফাটানো হয়৷ বিস্ফোরণে ডর্টমুন্ড দলের মার্ক বাট্রা আর একজন পুলিশ অফিসার আহত হন৷ এই ঘটনার পর যে ডর্টমুন্ড মোনাকোর বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালের দু'টি ম্যাচেই হেরেছে, তাতে আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই

এর আগে এই হামলার দায় স্বীকার করেএকটি নয়, দু'টি নয়, তিন-তিনটি চিঠি পাওয়া যায়৷ কিন্তু চিঠিগুলির বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে পুলিশের গোড়া থেকেই সন্দেহ ছিল৷

সন্ত্রাস নয়, শেয়ার নিয়ে ফাটকা

জার্মান মিডিয়ার খবর অনুযায়ী ‘সের্গেই' সাধারণ সন্ত্রাসী নয়৷ তার রাশিয়া ও জার্মান, দু' দেশেরই নাগরিকত্ব আছে৷ দৃশ্যত সে ডর্টমুন্ড ক্লাব বাসের কাছে বোমা বিস্ফোরণের দিন ডর্টমুন্ড দলের হোটেলেই ছিল এবং তার রুম থেকে যে রাস্তায় বিস্ফোরণ ঘটেছে, সেটিও দেখা যায়৷

‘সের্গেই' যে পন্থায় ডর্টমুন্ডের শেয়ার থেকে মুনাফা করতে চেয়েছিল, তাকে পরিভাষায় বলে ‘শর্ট সেল', অর্থাৎ কোনো একটি শেয়ারের দাম পড়বে বলে ধরে নিয়ে সেই শেয়ারগুলি ধার করে উচ্চমূল্যে বেচে দিয়ে, পরে দাম পড়লে আবার সেই শেয়ার সস্তা দামে কিনে ফেরৎ দেওয়া৷

‘সের্গেই' এভাবেই বোরুসিয়া ডর্টমুন্ডের ১৫,০০০ শেয়ার বিক্রির ‘অপশন' কেনে ৭৮,০০০ ইউরোয়৷ এই তথ্য জানিয়েছে জার্মানির জনপ্রিয় ‘বিল্ড' ট্যাবলয়েড৷ বোমা বিস্ফোরণের পর তার হিসেবও প্রায় মিলতে চলেছিল, কেননা ডর্টমুন্ডের শেয়ার পরে ৫ দশমিক ৭৩৮ ইউরো থেকে ৫ দশমিক ৪২১ ইউরোয়, এমনকি পরে কিছুটা বাড়ার পরও বৃহস্পতিবারেও তা দাঁড়িয়েছিল ৫ দশমিক ৩৯৫ ইউরোয়৷

‘সের্গেই' মুনাফা করেছে কিনা জানা নেই, কিন্তু তার বিরুদ্ধে প্রচেষ্টার মামলা দায়ের করা হতে পারে৷

এসি/এসিবি (ডিপিএ, রয়টার্স, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন