1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

ডর্টমুন্ডে ব্যবহৃত বিস্ফোরক জার্মান সেনাবাহিনীর?

জঙ্গি হামলায় সমর্থন জানানোয় তিন জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷ এছাড়া জার্মান একটি দৈনিকের দাবি, ডর্টমুন্ডের বিস্ফোরণে সেনাবাহিনীর গুদামের বিস্ফোরক উপাদান ব্যবহার করা হয়েছে৷ আরেক দৈনিক জানিয়েছে নতুন হুমকির খবর৷

গত ফেব্রুয়ারিতে এক সালাফিস্টকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ৷ জিজ্ঞাসাবাদে ওই ব্যক্তি জানিয়েছেন, ঘরে তৈরি বোমা নিয়ে পুলিশ এবং সেনাবাহিনীর ওপর  হামলা চালানোর পরিকল্পনা ছিল তার৷ তিনি আরো জানান, এ পরিকল্পনাকে সফল করার জন্য তিনজন তাকে সমর্থন দিচ্ছিলেন৷ এ বক্তব্যের ভিত্তিতেই দুই তরুণ এবং এক তরুণীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷ জার্মানির তিনটি শহর থেকে গ্রেপ্তার করা হয় তাদের৷ দু'জনকে নর্থ রাইন ওয়েস্টফেলিয়া রাজ্যের দুই শহর কোলন এবং বুন্ডে থেকে আর অন্যজনকে গ্রেপ্তার করা হয় লোয়ার স্যাক্সনি রাজ্যের হিল্ডেসহাইম থেকে৷ পুলিশ জানিয়েছে, আটক তিনজনের একজন আফগান, একজন তুর্কি এবং আরেকজন জার্মান বংশোদ্ভূত৷

গত ডিসেম্বরে বার্লিনের ক্রিসমাস মার্কেটে ট্রাক হামলায় ১২ জন নিহত হওয়ার পর থেকে সতর্কাবস্থায় রয়েছে জার্মান পুলিশ৷ এরই মাঝে গত মঙ্গলবার ডর্টমুন্ড বনাম মোনাকোর চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ম্যাচের আগে ডর্টমুন্ডের টিম বাসের কাছে বোমা বিস্ফোরিত হয়৷

রবিবার ‘ডি ভেল্ট'-এর রবিবাসরীয় আয়োজন ‘ভেল্ট আম সনটাগ'-এর এক প্রতিবেদনে ডর্টমুন্ড বিস্ফোরণের তদন্তকারীদের এক সূত্রকে উদ্ধৃত করে চাঞ্চল্যকর এক খবর দিয়েছে৷ সূত্র পত্রিকাটিকে জানান, ডর্টমুন্ডে বিস্ফোরিত পাইপ বোমায় যে ধাতব পিন ব্যবহার করা হয়েছে, তা সেনাবাহিনীর গুদাম থেকে নেয়া হয়ে থাকতে পারে৷ তিনি আরো জানান, সেনাবাহিনীর ডিটোনেটরগুলো বিশেষজ্ঞের জ্ঞান ছাড়া ব্যবহার করা সম্ভব নয়৷

‘ভেল্ট আম সনটাগ'-এর খবরে আরো বলা হয়, পুলিশ সাম্প্রতিক সময়ে আরো হামলার আশঙ্কা করছে৷ সপ্তাহান্তে বুন্দেসলিগার ফুটবল ম্যাচগুলোতে তাই নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছিল৷ হামলার আশঙ্কায় রক কনসার্ট এবং অন্যান্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেও বাড়তি পুলিশ মোতায়েন করা হচ্ছে৷

এর আগে ‘টাগেসস্পিগেল' পত্রিকা জানায়, অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তি তাদের কাছে ই-মেল পাঠিয়ে ডর্টমুন্ড হামলার দায় স্বীকার করেছে৷ বার্লিনভিত্তিক পত্রিকাটির দাবি, মেল প্রেরণকারী আরো লিখেছে, আগামী ২২ এপ্রিল কোলন শহরে আরেকটি হামলা চালানো হবে৷ কোলনে সেদিন অভিবাসীবিরোধী ডানপন্থি দল এএফডি-র ব়্যালি হওয়ার কথা৷

এসিবি/ডিজি (এএফপি, এপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়