1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ড.ইউনূসের আপিল শুনানি ৪ঠা এপ্রিল পর্যন্ত মুলতুবি

হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের আপিল শুনানি আগামী ৪ঠা এপ্রিল পর্যন্ত মুলতুবি করছেন সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ৷ হাইকোর্টের পুরো রায় প্রকাশিত হওয়ায় এসময়ে তাকে পূর্ণাঙ্গ আপিল করতে বলা হয়েছে৷

default

‘ড.ইউনূসকে ঘিরে সংকটের কূটনৈতিক সমাধানের চেষ্টা চলছে’

প্রধান বিচারপতি এবিএম খায়রুল হকের নেতৃত্বে পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে আজ শুনানি হয়েছে৷ শুনানিতে ড. মুহাম্মদ ইউনূসের পক্ষে ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ, বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষে তৌফিক নেওয়াজ এবং সরকারের পক্ষে এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম শুনানিতে অংশ নেন৷ আদালত বলেন, যেহেতু হাইকোর্টের পুরো রায় প্রকাশিত হয়েছে তাই ড. মুহাম্মদ ইউনূস চাইলে এখন পূর্ণাঙ্গ আপিল করতে পারেন৷ ব্যারিস্টার রোকন এজন্য সময় চাইলে আদালত ৪ঠা এপ্রিল পর্যন্ত শুনানি মুলতুবি করে এ সময়ের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ আপিল করতে বলেন৷ ব্যারিস্টার রোকন বলেন এসময়ের মধ্যে তারা পূর্ণাঙ্গ আপিল করবেন৷

এদিকে হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায়ে বলা হয়েছে, ১৯৯৯ সালের পর থেকে ড. মুহাম্মদ ইউনূস অবৈধভাবে গ্রামীণ ব্যাংকে ছিলেন৷ ৬০ বছর পূর্ণ হওয়ার পর রিট আবেদনকারী ড. ইউনূসের চাকরিতে থাকার আর কোন বৈধ অধিকার ছিলনা৷ ৬০ বছর বয়স সংক্রান্ত ১৯৯৩ সালের চাকরিবিধি সবার জন্যই প্রযোজ্য হবে৷ গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের জন্য যে চাকরি বিধি করা হয়েছিল, তা আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত৷ গ্রামীণ ব্যাংকের মূল আইনের সঙ্গে তা সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়৷ ১৯৯৩ সালের চাকরিবিধি সংশোধন না করে কেবলমাত্র ব্যবস্থাপনা পরিচালকের কার্যক্রমকে বৈধতা দেয়ার জন্য এটি করা হয়েছে৷

Flash-Galerie Muhammad Yunus Porträt

আগামী ৪ঠা এপ্রিলের পর পূর্ণাঙ্গ আপিল করতে পারেন ড.ইউনূস

আদালত তার পর্যবেক্ষণে বলছেন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক গ্রামীণ ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা৷ তিনি ১৯৮৩ সাল থেকে ওই পদে রয়েছেন৷ নোবেল পুরস্কার পাওয়ার সঙ্গে গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে থাকার কোন সম্পর্ক নেই৷

বাংলাদেশ ব্যাংক গত ২রা মার্চ ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদ থেকে অব্যাহতি দেয়৷ এর বিরুদ্ধে তিনি হাইকোর্টে রিট করলে হাইকোর্ট তা খারিজ করে দেন৷ হাইকোর্টের ওই আদেশের বিরুদ্ধে আজ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ পূর্ণাঙ্গ আপিল করার অনুমতি দিলেন৷

অন্যদিকে ড. ইউনূসের বিষয়টির একটি সম্মানজনক সমাধানের জন্য কূটনৈতিক চেষ্টা অব্যাহত আছে৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা
সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়