1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

যুক্তরাষ্ট্র

ট্রাম্প-রাশিয়া তদন্তে গ্র্যান্ড জুরি ডাকলেন রবার্ট মালার

বিশেষ কৌঁসুলির গ্র্যান্ড জুরি আহ্বানের ঘটনা দায়রা অভিযোগের দিকে প্রথম পদক্ষেপ বলে গণ্য করছে মার্কিন মিডিয়া৷ এর ফলে ট্রাম্পের নির্বাচনি প্রচার অভিযানের সঙ্গে রাশিয়ার সম্ভাব্য যোগসাজস নিয়ে তদন্তের পরিধি আরো বাড়তে পারবে৷

default

রবার্ট মালার

স্পেশাল কাউন্সেল রবার্ট মালারের গ্র্যান্ড জুরি আহ্বানের খবরটি দেয় ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল পত্রিকা৷ গ্র্যান্ড জুরি বিগত কয়েক সপ্তাহে তাদের কাজ শুরু করেছে৷ দু'টি অনামা কিন্তু ওয়াকিবহাল সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে এমনটাই জানিয়েছে পত্রিকাটি৷

এর পর পরই রয়টার্স সংবাদ সংস্থা জানায় যে, ২০১৬ সালের জুন মাসে ট্রাম্পের পুত্র ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র ও একজন রুশ আইনজীবীর মধ্যে সাক্ষাতের ব্যাপারে একাধিক সাবপুয়েনা – আদালতে বাধ্যতামূলক ভাবে হাজির হওয়ার নোটিস – জারি করা হয়েছে৷

হোয়াইট হাউস প্রত্যক্ষভাবে কোনো প্রতিক্রিয়া প্রদর্শন না করলেও, ট্রাম্পের এক আইনজীবী জন ডাউড মন্তব্য করেছেন যে, প্রেসিডেন্ট স্বয়ং কোনো ফেডারাল তদন্তের লক্ষ্য বলে ধরে নেওয়ার কোনো কারণ নেই৷

ট্রাম্পের স্পেশাল কাউন্সেল টাই কব বলেন যে, গ্র্যান্ড জুরির প্যানেল সৃষ্টির ব্যাপারে তিনি কিছু জানেন না, তবে বিশেষ কৌঁসুলির কাজ যাতে শীঘ্র সম্পন্ন হতে পারে, হোয়াইট হাউস তেমন সব পদক্ষেপের সপক্ষে৷

গ্র্যান্ড জুরি নিয়োগের তাৎপর্য

গ্র্যান্ড জুরি ব্যবহার করার ফলে বিশেষ কৌঁসুলি রবার্ট মালার সাক্ষ্যপ্রমাণ অনুসন্ধান করার বাড়তি ক্ষমতা পাবেন এবং মামলার সঙ্গে যুক্ত সাক্ষী ও ব্যক্তিবর্গের নামে সাবপুয়েনা – অর্থাৎ হাজিরার নির্দেশ – জারি করতে পারবেন৷ এছাড়া তিনি সাক্ষীদের শপথ নিয়ে সাক্ষ্য দিতে বাধ্য করতে পারবেন৷

জুরির সদস্যরা সাধারণ নাগরিক ও এই জুরি লোকচক্ষুর আড়ালে কাজ করে৷ জুরির কাজ হলো, তদন্তকারীদের পেশ করা সাক্ষ্যপ্রমাণ বিবেচনা করার পর সিদ্ধান্ত নেওয়া, ঘটনাটি দায়রা অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে কিনা এবং কী ধরনের অভিযোগ আনা হবে৷

কাজেই একটি গ্র্যান্ড জুরি গঠনের অর্থ এ-ও হতে পারে যে, মালারের তদন্ত ট্রাম্পের নিবাচনি প্রচার অভিযানের এক বা একাধিক সদস্যের বিরুদ্ধে দায়রা অভিযোগ আনার কথা চিন্তা করছে৷

মালার কি ট্রাম্পের রোষ থেকে বাঁচবেন?

পালটা পদক্ষেপ হিসেবে প্রেসিডেন্ট মালারকে বরখাস্ত করতে পারেন, এই আশঙ্কা থেকে মার্কিন সেনেটররা বৃহস্পতিবার দু'টি বাইপার্টিজান – অর্থাৎ ডেমোক্র্যাটিক এবং রিপাবলিকান, উভয় দলের সমর্থিত বিল আনেন, যার উদ্দেশ্য হলো মালারের অবস্থানকে সুরক্ষিত করা৷ ট্রাম্প সাবেক এফবিআই প্রধান জেমস কোমিকে গত মে মাসে বরখাস্ত করেছিলেন৷

উভয় দলের সেনেটররা বলেন যে, বিলগুলি হোয়াইট হাউসকে স্পষ্ট বার্তা দেবে যে, সেনেটররা মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার নাক গলানোর ব্যাপারে মালারের তদন্তকে বানচাল করার কোনো ধরনের প্রচেষ্টা সহ্য করবেন না৷

এই পদক্ষেপের তাৎপর্য মালারের সুরক্ষায় সীমিত নয়, বরং তার চেয়ে অনেক সুদূরপ্রসারী, বলে রিপোর্টারদের কাছে মন্তব্য করেছেন নর্থ ক্যারোলাইনার রিপাবলিকান সেনেটর থর্ন টিলিস৷ তাঁর মতে, এ থেকে বিচার বিভাগের নিরপেক্ষতা পুনঃ-প্রতিষ্ঠা করার কাজ শুরু হবে৷ ইতিপূর্বে আইনমন্ত্রী জেফ সেসনস যখন সম্ভাব্য স্বার্থের সংঘাতকে কারণ হিসেবে দেখিয়ে রাশিয়া তদন্ত থেকে দূরে থাকতে চেয়েছিলেন, ট্রাম্প তখন তাঁকে বরখাস্ত করার হুমকি দিয়েছিলেন: সে সময় রিপাবলিকান দলের যে সব বিধায়ক সেসনস-এর পক্ষ সমর্থন করেন, তাদের প্রথম সারিতে ছিলেন থর্ন টিলিস৷

ট্রাম্পের প্রতিক্রিয়া

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ার হান্টিংডনে সংঘটিত একটি সমাবেশে ট্রাম্প মালারের গ্র্যান্ড জুরি নিয়োগের ব্যপারে প্রত্যক্ষভাবে কিছু না বললেও, মার্কিন ডেমোক্র্যাটরা রাশিয়া তদন্তে যেভাবে উসকানি দিয়েছেন, তার তীব্র সমালোচনা করেছেন৷ ট্রাম্প রাশিয়া সংক্রান্ত অভিযোগগুলিকে ‘‘নিছক মনগড়া’’ ও স্রেফ ‘‘মার্কিন ইতিহাসে বৃহত্তম (নির্বাচনি) পরাজয়ের কৈফিয়ৎ’’ বলে অভিহিত করেন৷

পরিবর্তে ট্রাম্প তাঁর নির্বাচনি প্রচার অভিযানের ভঙ্গিমায় কৌঁসুলিদের হিলারি ক্লিন্টনের বিরুদ্ধে তাঁর ‘‘ক্রীত রাশিয়া ভাষণগুলির’’ জন্য তদন্ত করার আহ্বান জানান – ও ট্রাম্পের সমর্থকরা গতবছরের মতোই ‘লক হার আপ’ ধ্বনি দেয়৷

এসি/ডিজি (রয়টার্স, এপি, এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়