1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভাইরাল ভিডিও

ট্রাম্প নন, তিনি তাক লাগানো আরেক ডোনাল্ড

ডোনাল্ড ট্রাম্প তো সবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়ে তাক লাগালেন, তবে এখন যাঁর কথা জানাবো, তিনি তাক লাগিয়েছেন অন্তত এক বছর আগে৷ ছিলেন গৃহহীন৷ পড়ে থাকতেন রাস্তায়৷ এখন তিনি বিশাল তরকা৷ তাঁর নাম ডোনাল্ড গোড৷

 

বছর খানেক আগেও তিনি ছিলেন অজ্ঞাত, অখ্যাত, হতাশাগ্রস্থ পঞ্চাশোর্ধ এক গৃহহীন৷ যুক্তরাষ্ট্রের স্যারাসোটার পথই ছিল তাঁর ঘর৷ নেশা ছিল দু'টি৷ এক মাদক, দুই পিয়ানো৷ প্রথম নেশাটি তাঁকে নিয়ে যাচ্ছিল মৃত্যুর দিকে আর দ্বিতীয়টি রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে তাঁকে বসিয়েছে তারকার আসনে৷

গোড ফুরসত পেলেই পিয়ানো নিয়ে বসে পড়তেন রাস্তার ধারে৷ বুঁদ হয়ে যেতেন সুরের জাদুতে৷ একদিন সেই জাদু এক পথচারীকেও মোহাচ্ছন্ন করল৷ থমকে দাঁড়ালেন তিনি৷ নিজের মোবাইল ফোনে ভিডিও করলেন এবং সেই ভিডিও আপলোড করলেন ইউটিউবে৷ বাকিটা ইতিহাস৷

ইউটিউবে আপলোড করার কিছুদিনের মধ্যেই সাইবার দুনিয়ায় ব্যাপক পরিচিতি পেয়ে যান ডোনাল্ড গোড৷ যুক্তরাষ্ট্রের এক টিভি চ্যানেলের বিশেষ অনুষ্ঠানে পিয়ানো বাজানোর ডাক পড়ে৷ শ্রোতাদের মুগ্ধতা দেখে জীবন নিয়ে নতুন করে ভাবতে শুরু করেন মিশিগানে জন্ম নেয়া গোড৷ মাদকাসক্তি থেকে মুক্ত হতে নিজেই ভর্তি হয়ে যান মাদক নিরাময় ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে৷ তারপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি৷

পুনর্বাসন কেন্দ্র থেকে বের হবার পর বাস্কেটবল ম্যাচে ৭৫ হাজার দর্শককে বাজিয়ে শোনান যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় সংগীত৷ জাপানের এক টেলিভিশন চ্যানেলের অনুষ্ঠানেও দেখানো হয় তাঁকে৷ এ সবের মাঝে বিপদও যে আসেনি তা নয়৷ একবার হার্ট অ্যাটাক হয়েছে৷ আরেকবার গাড়ির ধাক্বায় এক পা ভেঙেছে৷ তারপরও হতাশার জীবনে ফেরেননি৷ সুহৃদদের ভালোবাসা আর সহযোগিতায় আজ তিনি বিশ্বের অনেক দেশেই পরিচিত৷ সম্প্রতি বাজারে এসেছে তাঁর সিডি৷ পথের ধারের সেই ডোনাল্ড গোড আজ তারকা পিয়ানো শিল্পী৷ আপন মহিমায় মহিমান্বিত তিনি৷ ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে কম কিসে!

এসিবি/ডিজি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়