1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

যুক্তরাষ্ট্র

ট্রাম্পের ব্যাপারে সবাইকে আশ্বস্ত করলেন ওবামা

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেবেন তখন শিগগিরই তিনি আসল বাস্তবতা বুঝে যাবেন৷ ফলে বিতর্কিত বিষয়গুলো বাস্তবায়ন সহজ হবে না বলে মনে করেন তিনি৷

সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে ওবামা বলেন, হাততালি দেয়ার মতো বক্তব্য দেয়া আর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করা এক নয়৷ ‘‘লক্ষ লক্ষ অভিবাসীকে তাড়ানো, ন্যাটো ও জাপানের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক প্রতিরক্ষা চুক্তি, ইরানের সঙ্গে পারমাণবিক চুক্তি এবং জলবায়ু চুক্তি বাতিলের মতো কাজ হাততালি পাওয়ার জন্য বক্তৃতা দেয়ার মতো সহজ নয়৷''

ওবামা বলেন, ট্রাম্প যদি তাঁর বিতর্কিত বিষয়গুলো বাস্তবায়ন করতে চান তাহলে খুব তাড়াতাড়িই বুঝতে পারবেন বাস্তবতা আসলে কী৷ প্রচারণার সময় যা ইচ্ছা তাই বলতে পারলেও প্রেসিডেন্ট হিসেবে তিনি তেমন বক্তব্য দিতে পারবেন না৷

ট্রাম্পের সঙ্গে নিজের সাম্প্রতিক বৈঠকের প্রসঙ্গ টেনে ওবামা সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘আমি ট্রাম্পকে বলেছি, তাঁর সিদ্ধান্ত শেয়ারবাজার, ট্যাঙ্ক আর জনতার সেন্টিমেন্টকে নাড়া দিতে পারে৷ ''

‘‘নির্বাচনি প্রচারণার সময় যুক্তরাষ্ট্রে যে বিভাজন দেখা গেছে তা দূর করতে একতার সংকেত পাঠানো জরুরি৷ সংখ্যালঘু গোষ্ঠী এবং নারীসহ যাঁরা তাঁর (ট্রাম্প) বক্তব্যে উদ্বিগ্ন হয়েছেন, তাঁদের সঙ্গে কথা বলাটা জরুরি,'' ট্রাম্পকে পরামর্শ ওবামার৷

বারাক ওবামা ও ডোনাল্ড ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও ডোনাল্ড ট্রাম্প

ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হওয়ায় তিনি উদ্বিগ্ন বলে জানান ওবামা৷ তবে সোমবারের সংবাদ সম্মেলনে নিজের অভিজ্ঞতা থেকে ট্রাম্পকে কিছু পরামর্শ দেয়ার পাশাপাশি যাঁরা তাঁর (ট্রাম্পের) নির্বাচনে উদ্বিগ্ন তাঁদের কিছুটা আশ্বস্ত করতে চেয়েছেন৷

ইউরোপ সফরের সময়ও ওবামা এই চেষ্টা বহাল রাখবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে৷ মঙ্গলবার তাঁর গ্রিসে পৌঁছার কথা৷ এরপর তিনি জার্মানি সফর করবেন৷ জার্মানিতে চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল (সোমবারের সংবাদ সম্মেলনে যাঁকে ওবামা তাঁর ‘হয়ত সবচেয়ে কাছের বিশ্বনেতা' হিসেবে উল্লেখ করেছেন), ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ও ইটালির প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করবেন৷

ইউরোপ থেকে ওবামা যাবেন পেরু৷ সেখানে অ্যাপেক-এর শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন৷ সেই সময় তাঁর চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনপিং-এর সঙ্গে বৈঠক হতে পারে৷

জেডএইচ/এসিবি (এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়