1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

যুক্তরাষ্ট্র

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা

যৌন নিপীড়নের অভিযোগ তোলা সামার জার্ভোস অবশেষে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছেন৷ ট্রাম্পের পক্ষ থেকে অবশ্য অভিযোগটি বেমালুম অস্বীকার করা হয়েছে৷

এক সময় ‘দ্য অ্যাপ্রেন্টিস' নামের একটি রিয়ালিটি শো উপস্থাপনা করতেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠা সেই অনুষ্ঠানে অংশ নিতে গিয়েই তাঁর সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল সামার জার্ভোস নামের এক নারীর৷ সেই নারীরই অভিযোগ, ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০০৭ সালে তাঁর নিউ ইয়র্কের অফিসে ইচ্ছের বিরুদ্ধে চুমু খাওয়ার চেষ্টা করেছেন এবং পরে বেভারলি হিলস হোটেলে তাঁকে জোর করে শয্যায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন৷ অভিযোগ অবশ্য এখন তোলেননি৷ ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন নির্বাচনি প্রচারনায় ব্যস্ত, তখনই সামার জার্ভোস এই অভিযোগ তোলেন৷

তখন ট্রাম্প সরাসরিই এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছিলেন, সামার জাভোর্স বানোয়াট কাহিনি শুনিয়ে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করছেন৷ ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, অর্থ আদায়ের জন্যও এমনটি করা হয়ে থাকতে পারে বলে তিনি মনে করেন৷ গত অক্টোবরে পেনসিলভানিয়ায় এক সমাবেশে ট্রাম্প আরো বলেছিলেন, নির্বাচন শেষে তিনি সামার জাভোর্সের বিরুদ্ধে মামলা করবেন৷ কিন্তু নির্বাচনের পর দু'মাস কেটে গেলেও ডোনাল্ড ট্রাম্প কোনো মামলা করেননি৷ 

বরং মঙ্গলবার সামার জাভোর্সই মামলা করেছেন৷ অবশ্য মামলাটি মানহানির৷ মামলার অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, ট্রাম্প সামার জাভোর্স সম্পর্কে মিথ্যে এবং অবমাননাকর বিবৃতি দিয়েছেন৷ এর ফলে সামার জাভোর্সের খ্যাতি, সম্মান এবং মর্যাদাহানি হয়েছে৷ তবে এক সংবাদ সম্মেলনে সামার জাভোর্সের আইনজীবী গ্লোরিয়া অলরেড জানিয়েছেন, ট্রাম্প যদি তাঁর আগের বক্তব্য থেকে সরে এসে ক্ষমা চান, তাহলে মামলা প্রত্যাহার করা হবে৷ আর ট্রাম্প ভুল স্বীকার না করলে এ মামলা অনির্দিষ্ট অঙ্কের ক্ষতিপূরণ মামলা পর্যন্ত গড়াতে পারে বলেও জানিয়েছেন তিনি৷

এসিবি/ডিজি (এএফপি, এপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়