1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

যুক্তরাষ্ট্র

ট্রাম্পকে প্রত্যাখান, যুক্তরাষ্ট্র সফরে টেরেসা মে

ট্রাম্পের কয়েকটি মুসলিম দেশের নাগরিককে ভিসা না দেয়ার পরিকল্পনার বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছেন এক ইরানি অভিনেত্রী৷ আর মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট নিয়েতো জানিয়েছেন, ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করবেন না৷ এরমধ্যেই অ্যামেরিকা গেছেন মে৷

বেশ সহজে ভোটের লড়াই জিতে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট হয়ে গেলেও সময়টা ভালো যাচ্ছে না ডোনাল্ড ট্রাম্পের৷ শপথ নেয়ার দিন থেকেই শুরু হয় তাঁর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ৷ ওয়াশিংটনের ‘ওমেন'স মার্চ-'এ সমবেত হয় লাখো নারী৷ ‘নারীদের মিছিল'-এর সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করতে বিশ্ব জুড়ে আয়োজিত হয় ‘সিস্টার মার্চ'৷ তাতে অবশ্য ট্রাম্প নিজের অবস্থান থেকে সরেননি৷ বরং একটুও সময় নষ্ট না করে প্রেসিডেন্ট হবার পর থেকেই শুরু করেন নির্বাচনি অঙ্গীকার পূরণের পথে চলা৷ যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের নির্বাহী আদেশে সই করেন বুধবার৷ দাবি তোলেন, দেয়াল নির্মাণের অর্থ মেক্সিকোকেই দিতে হবে৷

সঙ্গে সঙ্গেই যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তের ওপার থেকেও আসে কড়া জবাব৷ প্রেসিডেন্ট এনরিকে পেনা নিয়েতো দেয়াল নির্মাণের অর্থ দেয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়ে জানান, মেক্সিকো এক কানাকড়িও দেবে না যুক্তরাষ্ট্রকে৷ আগামী ৩১ জানুয়ারি ওয়াশিংটনে অনুষ্ঠেয় ট্রাম্প-নিয়েতো বৈঠকের ভবিষ্যত নিয়ে তখনই দেখা দিয়েছিল অনিশ্চয়তা৷ যুক্তরাষ্ট্রের মতো একটি দেশের প্রেসিডেন্ট হয়েও ট্রাম্প নিজেই বৈঠক বাতিলে বড় ভূমিকা রেখেছেন৷

টুইটারে ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, মেক্সিকো দেয়াল নির্মাণের টাকা না দিলে নিয়েতো চাইলে ৩১ জানুয়ারির বৈঠক বাতিল করতে পারেন৷ নিয়েতো তা-ই করেছেন, সরাসরিই জানিয়ে দিয়েছেন, ট্রাম্পের সঙ্গে আলোচনা করতে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন না৷

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ইরান থেকেও এসেছে প্রতিবাদের প্রতীকী এক সিদ্ধান্ত৷ সে দেশের অভিনেত্রী তারানেহ আলিদোস্তি জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি অস্কারের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন না৷ তারানেহ অভিনীত ‘দ্য সেলসম্যান' ছবিটি এবার ‘বেস্ট ফরেন ফিল্ম'   ক্যাটেগরিতে মনোনয়ন পেয়েছে৷

ভিডিও দেখুন 01:58

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন তারকারা

তারপরও চলচ্চিত্র জগতের সবচেয়ে সম্মানের এ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যোগ না দেবেন না কেন? কারণ ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ তারানেহ জানিয়েছেন, ট্রাম্প যে সম্প্রতি ইরান, ইরাক, লিবিয়া, সিরিয়া এবং সোমালিয়াসহ কয়েকটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার ভিসা না দেয়ার প্রস্তাব রেখেছেন, তার প্রতিবাদেই এই সিদ্ধান্ত৷ ইরানের জনপ্রিয় অভিনেত্রী নিউ ইয়র্ক টাইমসকে বলেছেন, ‘‘যে দেশ আমার দেশের মানুষকে সম্মান করে না, সেই দেশকে সম্মান করা আমার পক্ষে সম্ভব নয়৷''

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে এই পরিস্থিতিতেই যুক্তরাষ্ট্র সফরে গেছেন৷ শুক্রবার ফিলাডেলফিয়ায় রিপাবলিকান দলের সভায় ভাষণ দিয়েছেন তিনি৷ সেখানে ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তাঁর রিপাবলিকান দলকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিনের বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেছেন, ‘‘পুটিনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখুন, তবে সতর্কও থাকুন৷’’ শুক্রবারই ট্রাম্পের সঙ্গে তাঁর বৈঠক হওয়ার কথা৷

এসিবি/ডিজি (এপি,রয়টার্স, এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও