টুইটার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন সেলিব্রিটিরা | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 15.09.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

টুইটার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন সেলিব্রিটিরা

সেলিব্রিটিরা নাকি টুইটারে তাঁদের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিচ্ছেন৷ কেন? তবে কী টুইটারের ওপর থেকে সেলিব্রিটিদের মোহ কেটে যাচ্ছে?

default

হ্রাস পাচ্ছে টুইটারের মোহ

সর্বোচ্চ টুইটার ব্যবহারকারী হিসেবে পরিচিত সঙ্গীত শিল্পী জন মেয়ার, সোমবার তাঁর অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছেন৷ টুইটারে তাঁর বন্ধুর সংখ্যা ৩৭ লাখ৷ আসলে মেয়ার'ই হচ্ছেন সর্বশেষ কোন বিখ্যাত ব্যক্তি, যিনি তাঁর মাইক্রো ব্লগিং সাইটটি বন্ধ করে দিলেন৷

অনেক স্টারই মনে করেন, ভক্তদের কাছে পৌঁছানোর জন্য অথবা নিজেকে প্রকাশ করার জন্য টুইটার এক দারুণ মাধ্যম৷ কিন্তু দেখা যাচ্ছে, এইরকম ধারণা সবসময় ঠিক নয়৷ তরুণী গায়িকা মিলি সাইরাস একবছর আগেই তাঁর অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছেন৷ তাঁর নতুন ছেলে বন্ধু লিয়াম হেমসওর্থের পরামর্শক্রমেই তিনি নিরবে এই কাজটি করেছেন৷ ‘হেয়ারস্প্রে' খ্যাত স্টার আমান্ডা বিনস তাঁর ভক্তদের কোন কিছু না জানিয়েই গত সপ্তাহে তাঁর টুইটার-অ্যাকাউন্টটি মুছে ফেলেছেন৷

এছাড়া, চলতি মাসের প্রথম দিকে ডিজনির তারকার মর্যাদা প্রত্যাশী তরুণী অভিনেত্রী ডেমি লোভাটো, ‘গুডবাই টু টুইটার' বলে টুইট করেছেন৷ কারণ হিসেবে তিনি লিখেছেন, ‘টুইটারের কারণে অন্য অনেক মানুষ আমার কাছে সহজ হতে পারছেন না৷'

সে যাই হোক, অনেক সেলিব্রিটিই মনে করছেন, টুইট করা আসলে এক মজা৷ আবার কেউ কেউ মনে করেন, এ এক বিশাল ধাক্কা৷

প্রতিবেদন: ফাহমিদা সুলতানা

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়