1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

টিম জার্মানির তোড়ে ভেসে গেল মেসিডোনার স্বপ্ন

এবারের বিশ্বকাপে আর গোল করা হল না মেসির৷ আর নব্বই এর ফাইনালের শোধও নিতে পারলেন না ম্যারাডোনা৷ টিম জার্মানির সামনে খড়কুটোর মত ভেসে গেল মেসিডোনার স্বপ্ন৷

default

জার্মানির প্রথম গোল

টিম জার্মানি, আগেও বলেছি, এবারের জার্মান দলের সাফল্যের মূল রহস্য এটা৷ গোটা দল যেন এক হয়ে খেলে৷ কোয়ার্টার ফাইনালে আর্জেন্টিনাকে ৪-০ গোলে ভাসিয়ে দেওয়ার সময় এই চিত্র বারবার চোখের সামনে ধরা পড়েছে৷ একসঙ্গে ডিফেন্স, একসঙ্গে এ্যাটাক, ম্যাচের আগে এই কথা বলেছিলেন জার্মান কোচ ইওয়াখিম ল্যোভ৷ তাঁর ছেলেরা তাঁর কথা রেখেছে৷ তাই মিডফিল্ডার থমাস ম্যুলার, স্ট্রাইকার ক্লোজের সঙ্গে গোল পেয়েছেন ডিফেন্ডার ফ্রিডরিশ৷ আবার গোল ঠেকানোর সময় ডি বক্সে দেখা গেছে শোয়ান্সটাইগার, ওজিলকে৷

ইংল্যান্ডকে দুর্দান্তভাবে হারানোর হ্যাং ওভারটা বোধহয় যায়নি জার্মান দলের৷ তাই ইংলিশদের এক হালি গোল দেওয়ার পর এবার ম্যারাডোনার দলকেও এক হালি দিয়েই ছাড়লো জার্মানি৷ শুরু থেকেই মনে হয়েছে জেতার জন্যই নেমেছে ফিলিপ লামের দল৷ মাত্র তিন মিনিটের মাথায় গোল পান থমাস ম্যুলার৷ শোয়ান্সটাইগারের ফ্রি কিকে আলতো মাথা ছুঁয়ে দেন তিনি৷ আর্জেন্টিনার ডিফেন্সের

Fußball WM 2010 Deutschland Argentinien Flash-Galerie

উল্লসিত জার্মান সমর্থক

ফাঁকটা সেসময় বেশ স্পষ্টভাবেই ধরা পড়ে৷ এরপর গোল শোধে মরিয়া হয়ে ওঠে মেসি, তেভেজরা৷ কিন্তু জার্মান ডিফেন্সে চিড় ধরানোর জন্য যে ঠান্ডা মাথায় খেলা দরকার ছিল তা দেখা যায়নি তাঁদের মধ্যে৷ অন্যদিকে সুযোগ পাওয়া মাত্রই দ্রুত গতিতে কাউন্টার এ্যাটাকে যেতে দেখা গেছে ক্লোজে ও পোডলস্কিকে৷ এভাবেই শেষ হয় প্রথমার্ধ৷

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই স্বভাবসুলভ আক্রমণে যায় আর্জেন্টিনা৷ অন্যদিকে জার্মানি ছিল অনেকটাই হিসেবী৷ এই অবস্থাতে ৬৮ মিনিটে গোল করে বসেন জার্মানির মিরোস্লাভ ক্লোজে৷ আর্জেন্টিনার ডিফেন্ডারদের ফাঁকি দিয়ে পোডলস্কির কাছ থেকে বল পেয়ে যান তিনি৷ দারুণভাবে শেষ করেন ক্লোজে৷ এরপর আর আর্জেন্টিনাকে মাঠে পাওয়া যায়নি৷ অনেকটা হতভম্ব এবং খানিকটা হতাশার ছাপ নিয়েই মাঠময় দৌঁড়াদৌঁড়ি করেছে মেসি তেভেজরা৷ যার ফল ৭৩ মিনিটে আবারো জার্মানির গোল৷ তবে এর জন্য মূল কৃতিত্ব আসলে শোয়ানস্টাইগারের৷ একাধিক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে একেবারে গোলের সামনে তিনি যখন বলটি ছাড়েন তখন ফ্রিডরিশের টোকা দেওয়াটাই বাকি ছিল৷ তারপর ৮৯ মিনিটে দলের পক্ষে একহালি গোল পূর্ণ করেন ক্লোজে৷

মনে রাখার মত, এই নিয়ে এবারের বিশ্বকাপে তিনটি ম্যাচে এক হালি করে গোল দিল ইওয়াখিম ল্যোভের দল৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম, সম্পাদনা: জাহিদুল হক

সংশ্লিষ্ট বিষয়