1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

টিনএজারদের মোবাইল ব্যবহার নিয়ে গবেষণা

মোবাইল ফোন বা অন্য কোনো ওয়্যারলেস প্রযুক্তি ব্যবহারে ১৩ থেকে ১৯ বছরের ছেলে-মেয়েদের মস্তিষ্ক বিকাশে কোনো সমস্যা হয় কিনা – তা নিয়ে এবার গবেষণা শুরু করছেন ব্রিটিশ বিজ্ঞানীরা৷ এমন ব্যাপক গবেষণা এর আগে হয়নি৷

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের মতে, এ বিষয়ে এ পর্যন্ত করা সবচেয়ে বড় গবেষণা হতে যাচ্ছে এটি৷ দুই বছর ধরে ১১-১২ বছর বয়সি প্রায় আড়াই হাজার স্কুলগামী কিশোর-কিশোরী ও তাদের বাবা-মার উপর এই জরিপ চালানো হবে৷

লন্ডনের ইমপিরিয়াল কলেজের সেন্টার ফর এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড হেল্থ ‘দ্য স্টাডি অফ কগনিশন, অ্যাডলসেন্টস অ্যান্ড মোবাইল ফোনস' বা এসসিএএমপি নামের এই গবেষণাটি পরিচালনা করবে৷

Mobile World Congress Barcelona Firefox OS software

টিনএজাররা দিনে কতক্ষণ এবং কি কাজে ওয়্যারলেস প্রযুক্তি ব্যবহার করে তা বের করা হবে

এই প্রতিষ্ঠানের একজন গবেষক পল ইলিয়ট বলেন, ‘‘১০ বছরেরও কম সময় ধরে মোবাইল ফোন ব্যবহার ও মস্তিষ্কের ক্যানসারের মধ্যে যে কোনো সম্পর্ক নেই, তা জানা গেছে৷ কিন্তু এর চেয়ে বেশি সময় ধরে এবং বেশি বেশি মোবাইল ফোন ব্যবহারে কি হতে পারে, কিংবা শিশু-কিশোরদের উপর মোবাইল ফোন ব্যবহারের কি প্রভাব পড়তে পারে, সেটা এখনো পরিষ্কার নয়৷''

জরিপে অংশ নেয়া শিক্ষার্থী ও তাদের বাবা-মাকে বিভিন্ন প্রশ্ন করা হবে৷ এর মাধ্যমে টিনএজাররা দিনে কতক্ষণ এবং কি কাজে মোবাইল ফোন বা অন্য কোনো ওয়্যারলেস প্রযুক্তি (যেগুলো থেকে বেতার তরঙ্গ নির্গত হয়) ব্যবহার করে তা বের করা হবে৷

এছাড়া কম্পিউটার নিয়ন্ত্রিত বিভিন্ন টেস্টেও অংশ নেবে জরিপে অংশগ্রহণকারীরা৷ এর মাধ্যমে তাদের চিন্তার প্রক্রিয়া, সিদ্ধান্ত নেয়া ও কোনো কিছু মনে রাখার ক্ষমতা ইত্যাদি বিষয় নির্ণয় করা হবে৷

এর মাধ্যমে টিনএজারদের বুদ্ধিমত্তা, সৃজনশীলতা, উদ্ভাবন ক্ষমতা তথা মস্তিষ্ক বিকাশের ক্ষেত্রে মোবাইল ফোন ব্যবহারের কোনো প্রভাব রয়েছে কিনা, তা বের করা যাবে বলে আশা করছেন জরিপের প্রধান গবেষক মিরাইল টলেডানো৷

উল্লেখ্য, ১১-১২ বছর বয়সি ব্রিটেনের প্রায় ৭০ শতাংশ কিশোর-কিশোরী বর্তমানে মোবাইল ফোন ব্যবহার করছে৷ আর ১৪ বছর বয়সিদের ক্ষেত্রে এই হারটা প্রায় ৯০ শতাংশ৷ যদিও ব্রিটিশ স্বাস্থ্য নীতি বলে, ১৬ বছরের কম বয়সিদের, শুধুমাত্র জরুরি হলে মোবাইল ব্যবহার করতে দেয়া উচিত৷

জেডএইচ/ডিজি (রয়টার্স, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়