1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

টিউনিশিয়ার টালমাটাল অবস্থা

টিউনিশিয়ায় নতুন করে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে৷ আর এই বিক্ষোভ দমন করতে আন্দোলনকারীদের উপর কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করা হয়েছে৷ ইতিমধ্যে অন্তর্বর্তী সরকার থেকে তিনমন্ত্রী সরে গেছেন৷

Tunisia,

টিউনিশিয়ার আন্দোলনের প্রায় নিভু নিভু প্রদীপটি আবার জ্বলে উঠলো

টিউনিশিয়ার আন্দোলনের প্রায় নিভু নিভু প্রদীপটি আবার জ্বলে উঠলো৷ ক্ষমতা ছেড়ে বিদেশে পাড়ি জমানো প্রেসিডেন্ট বেন আলির ঘনিষ্ঠ কয়েকজনকে অন্তর্বর্তী সরকারে ঠাঁই দেয়ায় ভীষণ চটে গেছেন আন্দোলনকারীরা৷ আর তাই নতুন সরকারের বিরুদ্ধে সোচ্চার তারা৷ পথে নেমে আসা বিক্ষোভকারীদের সামাল দিতে আজ মঙ্গলবার লাঠিচার্জ এবং কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করেছে পুলিশ৷ এই বিক্ষোভকারীদের অধিকাংশই ট্রেড ইউনিয়ন কর্মী এবং ছাত্র৷ বিরোধী দলের সমর্থক বলে পরিচিতি রয়েছে তাদের৷

ইতিমধ্যে আরবি ভাষায় প্রচারিত একটি টেলিভিশনের সংবাদে বলা হয়েছে, বিরোধী দল নাকি অন্তর্বর্তী সরকার থেকে চলে এসেছে৷ তবে এই সংবাদ ডাহা মিথ্যে বলে জানিয়েছে টিউনিশিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন৷

এই বিক্ষোভকারীদের অধিকাংশই ট্রেড ইউনিয়ন কর্মী এবং ছাত্র৷

বিদেশে পাড়ি জমানো প্রেসিডেন্ট বেন আলির ঘনিষ্ঠ কয়েকজনকে অন্তর্বর্তী সরকারে ঠাঁই দেয়ায় ভীষণ চটে গেছেন আন্দোলনকারীরা

নতুন সরকারের প্রতি অভিযোগ জানিয়ে আন্দোলনকারীরা বলেছেন, নতুন সরকারের প্রতি লজ্জা৷ কারণ, তারা আন্দোলনকে, আন্দোলনে রক্ত এবং জীবনদানকে অপমান করেছে - বললেন মিছিলে থাকা ছাত্র আহমেদ আল হাজি৷ আরেক বিক্ষোভকারী সামি বিন হাসান জানালেন, এই সরকারের সমস্যা হচ্ছে তারা আগের সরকারের মন্ত্রীদের দলে ভিড়িয়েছে৷

তবে প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মেদ গানুশি এই সব অভিযোগের জবাব দিয়েছেন খুবই কৌশলে৷ তিনি বলেছেন, আগের সরকারের মন্ত্রী, যাদেরকে এই সরকারেও রাখা হয়েছে, আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠান করতে তাদের প্রয়োজন৷ আর তাই তাদের ঠাঁই দেয়া হয়েছে সরকারে৷

এরই মধ্যে রাজধানী টিউনিসের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসেছে গুলির শব্দ৷ এসেছে বিভিন্ন দোকানপাট লুটের খবরও৷

El Abidine Ben Ali

এই বিক্ষোভকারীদের অধিকাংশই ট্রেড ইউনিয়ন কর্মী এবং ছাত্র

সরকার বিরোধী আন্দোলনের সময়ে জন্ম নেয়া জেনারেল ইউনিয়ন অফ টিউনিশিয়ান ওয়ার্কাস নামের সংগঠনের তিন নেতা, যাদেরকে প্রধানমন্ত্রী গানুশি অন্তর্বর্তী সরকারের নিয়েছিলেন, তারা ঐকমত্যের সরকার থেকে বের হয়ে এসেছেন বলে জানাচ্ছে বার্তা সংস্থা এএফপি৷ জেনারেল ইউনিয়ন অফ টিউনিশিয়ান ওয়ার্কাস নয়া সরকারকে প্রথমে অস্বীকৃতি জানালেও পরে তারা সরকারে যাবার সিদ্ধান্ত নেয় এবং মঙ্গলবারই খবর আসে তারা উজিরমহল থেকে পদত্যাগ করেছেন৷

একদিন বয়সি এই সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এখন রয়েছেন মিশরে৷ সেখানে তিনি বলেছেন, সরকার যথাসময়ে নতুন নির্বাচনের আয়োজন করতে সব ব্যবস্থা করবে৷ অবশ্য যে দেশে বসে তিনি এই কথা বলছেন, সেই মিশরেও ইতিমধ্যে জ্বলে উঠেছে আন্দোলনের মশাল৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন