1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

টিআইবিকে সুপ্রিমকোর্টের দ্বিতীয় দফা চিঠি

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ বা টিআইবি’র কাছে জরিপের প্রশ্ন এবং উত্তরমালা চেয়ে দ্বিতীয় দফা চিঠি দিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট৷ সুপ্রিমকোর্ট এই কাগজ-পত্র পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেবে৷

Transparency, International, টিআইবি, সুপ্রিম, কোর্ট, দ্বিতীয়, দফা, চিঠি, Bangladesh, Dhaka, TIB, Court, Legal Department, Supreme, High, ঢাকা, বাংলাদেশ, দুর্নীতি, বিচার বিভাগ,

টিআইবি'র ট্রাষ্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান হাফিজউদ্দিন খান ডয়চে ভেলেকে জানিয়েছেন, বিচার বিভাগকে সর্বাধিক দুর্নীতিগ্রস্ত চিহ্নিত করে তাঁরা যে রিপোর্ট প্রকাশ করেছেন - তা যথার্থ৷

সোমবার সুপ্রিমকোর্টের পাঠান দ্বিতীয় চিঠিতে টিআইবি'কে আরো বিস্তারিত তথ্য-উপাত্ত পাঠাতে বলা হয়েছে৷ ডেপুটি রেজিষ্ট্রার মো. বদরুল আলম ভূঞা স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, টিআইবি ইতিমধ্যেই যে তথ্য-উপাত্ত পাঠিয়েছে, তা জরিপটি সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা দেয় না৷ তাই জরিপের প্রশ্ন এবং উত্তরমালা পাঠাতে বলা হয়েছে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য৷ টিআইবি'র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান দ্বিতীয় চিঠি পাবার কথা জানান ডয়চে ভেলে'কে৷ তিনি বলেন জরিপের প্রশ্ন এবং উত্তর যত দ্রুত সম্ভব তারা সুপ্রিমকোর্টে পাঠিয়ে দেবেন৷

টিআইবি'র গত ২৩শে ডিসেম্বর প্রকাশিত খানা জরিপে সেবাখাতের মধ্যে বিচার বিভাগকে সর্বাধিক দুর্নীতিগ্রস্ত হিসেবে চিহ্নিত করা হয়৷ তারা দেশের সব কটি জেলার ৬ হাজার খানার ওপর ওই জরিপ চালায়৷ গত ২৬শে ডিসেম্বর প্রথম সুপ্রিমকোর্ট ওই জরিপের তথ্য উপাত্ত চেয়ে টিআইবি'কে চিঠি দেয়৷ তথ্য-উপাত্ত পর্যালোচনার জন্য সুপ্রিমকোর্ট ৩০শে ডিসেম্বর বিচারপতি মো. আব্দুল ওয়াহাব মিয়ার নেতৃত্বে পাঁচজন বিচারপতির সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়৷ কমিটি ইতিমধ্যেই তথ্য-উপাত্ত পর্যালোচনা শুরু করছে৷

টিআইবি'র ট্রাষ্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান হাফিজউদ্দিন খান ডয়চে ভেলে'কে জানান, তাঁরা এক দফা তথ্য উপাত্ত দিয়েছেন৷ সুপ্রিমকোর্টের চাহিদামত আরো তথ্য উপাত্ত সরবরাহ করা হবে৷ তিনি তাদের জরিপ যথাযথ এবং সঠিক বলে জানান৷

অন্যদিকে, এই রিপোর্ট প্রকাশের পরদিন চট্টগ্রাম এবং খুলনার আদালতে মামলা হলে টিআইবি'র ট্রাষ্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান হাফিজউদ্দিন খান ও নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান সহ তিনজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরওয়ানা জারি করে আদালত৷ তবে কুমিল্লার মামলাটি আদালত ইতিমধ্যেই বাতিল করছে৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

নির্বাচিত প্রতিবেদন