1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

আলাপ

‘টাকা, দল, মামু, খালু নাই, চাকরি দেবে কে?'

আমাদের আলাপ-এর এবারের বিষয় কর্মসংস্থান ও বেকারত্ব৷ এ সম্পর্কে তরুণ পাঠকরা সরকার ও দেশের পরিস্থিকে দায়ী করেছেন এবং তাঁদের রাগ, দুঃখের নানা কথা তুলে ধরেছেন আমাদের ফেসবুক পাতায়৷

বাংলাদেশে নাকি প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে পিয়ন পর্যন্ত প্রায় সবাই সরকারের অবৈধ কাজে নিয়োজিত৷ আর তাই দেশে চারকির সমস্যা থাকবেই৷ এমনটি মনে করেন, ডয়চে ভেলের ফেসবুক বন্ধু মাসুদ রানা৷

এসএম নাজমুল হকের ধারণা, চাকরি সন্ধানে সহায়তা করার মতো সরকারি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে নেই বলেই চাকরির বাজারে প্রতারণা বেশি হয়৷

বেকারত্বের কারণ হিসেবে বন্ধু মিল্লাত হোসেন ঘুষ নেওয়াকে দায়ী করেছেন৷ তাঁর মন্তব্য, ‘‘চাকরির জন্য লাখ লাখ টাকা ঘুস দিতে হয় আর সেজন্যই আমাদের যুবসমাজের বেকারত্ব দূর হয় না৷''

‘‘টাকা নাই,দল নাই, মামু-খালু ও নাই, চাকরি দেবে কে?'' – এই প্রশ্ন ডয়চে ভেলের পাঠক শাহ নেওয়াজের৷

অন্যদিকে নাজমুল কবিরাজের ধারণা, এমএ পাশ করার পরপরই নাকি সবাই এক কোটি টাকা বেতনের চাকরি পেতে চায় বলেই নাকি চাকরি পাওয়া যায় না৷

জাহিদ আকন্দ বাংলাদেশে বেকারত্ব বেড়ে যাওয়ার প্রধান কারণ জানাতে গিয়ে বলছেন, ‘‘দেশে নতুন করে কোনো বৈদেশিক বিনিয়োগ আসছে না বা বিনিয়োগ বাড়ছে না সেজন্য৷''

রাজু আহমেদ দুঃখ করে বলেছেন, ‘‘দেশের ৬ কোটি তরুণ বেকার, তাদের সমস্যার সমাধান করতে পারছে না রাষ্ট্র৷''

‘‘সেশন জটের কারণে উচ্চ শিক্ষিত হতে ৩০ বছর বয়স হয়ে যায় বলে চাকরি পাওয়া কঠিন'' – এমনটৃি মনে করেন ডয়চে ভেলের পাঠক ঝুমু শার্মিন৷

জুবেল আহমেদ তো ক্ষুব্ধ হয়ে বলেই ফেলেছেন, ‘‘পড়া লেখা করে হাল চাষ করবো, তাই তো?''

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: আশীষ চক্রবর্ত্তী

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়