1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

টাকা খেলো কুকুর, মালিক পেলেন ক্ষতিপূরণ!

একচোখা এক কুকুর৷ সেই চোখে কাগজ দেখলেই চিবিয়ে খেয়ে ফেলা স্বভাব৷ স্বভাবগুণে খেয়ে ফেলেছিল ১০০ ডলারের পাঁচটি নোট৷ মালিকের মাথায় হাত৷ শেষ পর্যন্ত অবশ্য খেটেখুটে নতুন পাঁচটি নোট পেয়েছেন তিনি!

যুক্তরাষ্ট্রের মন্টানার ওয়েন ক্লিংকেল পেশায় গ্রাফিক ডিজাইনার৷ স্থানীয় দৈনিক ‘ইন্ডিপেন্ডেন্ট রেকর্ড'-এ কাজ করেন৷ গত ডিসেম্বরের ঘটনা৷ স্ত্রীকে নিয়ে এক হোটেলে গিয়েছেন ‘লাঞ্চ' করতে৷ অতি আদরের কুকুর স্যান্ড্যান্সকে তো আর সঙ্গে নেয়া যায় না৷ তাকে রেখে গিয়েছিলেন গাড়িতে৷ খেয়েদেয়ে ফিরে দেখেন গাড়িতে রাখা পাঁচটি একশ ডলারের নোট উধাও৷ নিরীহ গোবেচারার মতো বসে আছে স্যান্ড্যান্স৷ ক্লিংকেলের বুঝতে অসুবিধা হয়নি যে টাকাগুলো ১২ বছর আগে কচি বাচ্চা অবস্থায় এনে পেলেপুষে বড় করা কুকুরটিই সাবাড় করেছে৷ এ ক্ষতিটা মেনে নেননি ক্লিংকেল৷ অনেক সময় এবং শ্রম দিয়েছেন টাকা কুকুরের পেট থেকে উদ্ধার করার কাজে৷

বেশ দীর্ঘ একটা সময় ক্লিংকেল একেবারে চোখে চোখে রেখেছেন স্যান্ড্যান্সকে৷ মলত্যাগ তো করবে, তখন মলে যদি পাঁচটি ডলারের ছেঁড়া নোট খুঁজে পাওয়া যায়! এক সময় স্যান্ড্যান্স ঠিকই প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিলো৷ ক্লিংকেল কুকুরের সব মল একটা ব্যাগে পুরে নিজের প্রাথমিক দায়িত্ব সারলেন৷ তারপর? মলভর্তি সেই ব্যাগ রাখা হলো রোদে৷ মল শুকালো৷ তারপর ক্লিংকেল বসলেন মল থেকে খুঁজে খুঁজে কাগজ বের করার কাজে৷ পেয়েও গেলেন৷ কাগজের সেই টুকরোগুলো জোড়া দিয়ে দিয়ে বানালেন পাঁচটি নোট৷ এবার ব্যাংকে গিয়ে নোটগুলো দেখিয়ে নতুন নোট দাবি করার পালা৷ গেলেন স্থানীয় এক ব্যাংকে৷ ব্যাংক কর্মীরা তো অবাক – একজন এসেছে কুকুরে খাওয়া নোট মল থেকে উদ্ধার করে জোড়া দিয়ে, জোড়া দেয়া নোটের বিনিময়ে নতুন নোট দাবি করতে!

বিস্ময়ের ঘোর কাটার পর এক ব্যাংককর্মী জানালেন, এমন নোটের বদলে নতুন নোট দেয়া তাদের শাখার পক্ষে সম্ভব নয়, ক্লিংকেল চাইলে যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অফ দ্য ট্রেজারিতে চিঠি লিখতে পারেন৷ ক্লিংকেল তবু দমেননি৷ চিঠি লিখেছেন সেখানে এবং গত সোমবার পেয়েছেন এত পরিশ্রমের ফল৷ ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট চকচকে পাঁচটি একশ ডলারের নোট পাঠিয়েছে তাঁর কাছে!

এসিবি/ডিজি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন