টাইগাররা তাহলে জিতল! | খেলাধুলা | DW | 11.03.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

টাইগাররা তাহলে জিতল!

আগের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল মাত্র ৫৮ রান৷ এমন লজ্জার হার কারোরই প্রত্যাশিত ছিলনা৷ কিন্তু আজ, মানে শুক্রবার বন্দর নগরে টাইগাররা যা দেখালো তাই বা কতজন আশা করেছিল?

default

ম্যাচ জুড়েই এমন মারমুখী ছিল টাইগাররা

বলতে পারেন, প্রত্যাশার পারদ সবারই উপরে ছিল৷ হয়তো সত্যি, কিন্তু এভাবে খোঁড়াতে খোঁড়াতে জয় ছিনিয়ে নেবে বাংলাদেশ, তাও আবার ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে! জ্বি, সেটাই হয়েছে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে৷

বরাবরের মতোই টসে জেতেন টাইগার অধিনায়ক সাকিব আল-হাসান৷ কিন্তু ব্যাটিং নয়, বেছে নেন ফিল্ডিং৷ শুরুতে ব্যাট করে ইংল্যান্ড সংগ্রহ করেছে ২২৫ রান৷ ৪৯ দশমিক ৪ ওভারে অল-আউট হয় ইংলিশরা৷ তবে সেদলের ইনিংসের শুরুর দিকেই আঘাত হানে টাইগাররা৷

দলীয় ৫৪ রানের মাথায় আউট হন প্রথম সারির ব্যাটসম্যান এ্যান্ড্রু স্ট্রাউস, জেমস প্রিয়র এবং ইয়ান বেল৷ এরপর অবশ্য ইংলিশদের হাল ধরেন জোনাথন ট্রট এবং ইয়ান মর্গেন৷ এই জুটি ১০৯ রান সংগ্রহ করে ইংল্যান্ডকে সম্মানজনক স্কোরের পথে অনেকটাই এগিয়ে দেয়৷ ট্রট এর ব্যক্তিগত সংগ্রহ ৬৭, অন্যদিকে মর্গান করেন ৬৩ রান৷ ইংলিশদের আর কোন ব্যাটসম্যান বিশেষ সুবিধা করতে পারেননি৷

Bangladesch Cricket World Cup 2011 England v Bangladesh Flash-Galerie

এক পর্যায়ে সম্ভাবনা জাগিয়েছিল ইংলিশ বোলাররা

স্বাগতিকদের বোলাররা কমবেশি সবাই সাফল্য পেয়েছেন৷ অলরাউন্ডার নাইম ইসলাম মাত্র ৮ ওভার বল করে ২৯ রান খরচায় ২ উইকেট তুলে নেন৷ আব্দুর রাজ্জাক এবং সাকিব আল-হাসানও হাত ঘুরিয়ে সংগ্রহ করেন দুটি করে উইকেট৷

জবাবে এই বিশ্বকাপের অন্যতম আয়োজক দেশ বাংলাদেশ শুরুতে নান্দনিক ব্যাটিং উপহার দিয়েছে৷ ইংলিশ বোলারদের তুলাধুনা করে আট ওভারে ৫২ রান করে উদ্বোধনী জুটি৷ এরপর নিজের এলাকার মাঠে ৩৮ রানে আউট, মানে ইংলিশদের বোলার টিম ব্রেসনান বিদায় করেন তামিমকে৷ অল্প বিরতিতেই আউট হন জুনায়েদ সিদ্দিকী এবং রাকিবুল হাসান৷ মাঠে আসেন সাকিব আল-হাসান, জুটি বাঁধেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস এর সঙ্গে৷ ব্যক্তিগত ৬০ রানের মাথায় ইমরুল আউট হওয়ার আগ পর্যন্ত এই জুটির সংগ্রহ ৮২ রান৷

এরপর কিছুক্ষণের জন্য বাংলাদেশের চিত্র অনেকটা আগের ম্যাচের মতই৷ মানে আশা-যাওয়ার শুরু৷ দলীয় ১৫৫ রান থেকে ১৬৯ অবধি যেতে যেতেই বাংলাদেশের আট উইকেট হাওয়া৷ শেষে যখন পরাজয়ের প্রহর গুনছে দর্শকরা তখনই, হাল ধরেন মাহমুদুল্লাহ এবং শফিউল ইসলাম৷ নবম উইকেট জুটির ৫৮ রান জয় এনে দেয় টাইগারদের, বাংলাদেশের সংগ্রহ ২২৭৷

ইংলিশ বোলারদের মধ্যে বিশেষ সাফল্য দেখান আজমল শাহজাদ৷ ৪৩ রান খরচায় ১০ ওভারে তিন উইকেট তুলে নেন তিনি৷ এছাড়া গ্রেম সোয়ান এর সংগ্রহ ৪২ রান খরচায় দুই উইকেট৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়