1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ঝড়ের মুখেও অনড় ম্যার্কেল

জার্মানি সহ ইউরোপে একের পর এক সাম্প্রতিক হামলার জন্য অনেকে পরোক্ষভাবে আঙ্গেলা ম্যার্কেল-এর উদার শরণার্থী নীতিকে দায়ী করছে৷ এক সংবাদ সম্মেলনে জার্মান চ্যান্সেলর সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিলেন৷

‘‘ভিয়ার শাফেন ডাস'' অর্থাৎ ‘‘আমরা অবশ্যই পারবো'' – শরণার্থীদের ঢল নামার সময়েই ম্যার্কেল এ কথা বলেছিলেন৷ বৃহস্পতিবার বার্লিনে এক সংবাদ সম্মেলনেও তিনি তার পুনরাবৃত্তি করলেন৷ অর্থাৎ নিজের বিশ্বাস, সংকল্পে তিনি অত্যন্ত অনড়৷

তবে বিভিন্ন মহলে সমালোচনার ঝড় সম্পর্কে তিনি উদাসীন নন৷ চরম ইসলামপন্থি সন্ত্রাসের কড়া নিন্দা করে তিনি নিরাপত্তা জোরদার করতে ৯ দফা পরিকল্পনা ঘোষণা করেছেন৷

আইএস-এর বিরুদ্ধে সংগ্রাম বা যুদ্ধের কথাও বলেছেন৷ তবে তাঁর মতে, রাজনৈতিক নেতৃত্বের দায়িত্ব হলো, ভয়-ভীতি দেখানোর বদলে জটিল চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করতে দৃঢ় হাতে একাধিক পদক্ষেপ নেওয়া৷ ডয়চে ভেলের কাই-আলেক্সান্ডার শলৎস মনে করেন, মানুষকে আশ্বস্ত করতে নেতা হিসেবে ম্যার্কেল-এর আরও আবেগ প্রকাশ করা উচিত৷

আন্তর্জাতিক আঙিনায় ম্যার্কেল-এর এই নীতি সম্পর্কে নানারকম প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে৷ ইউরোপ সহ বিশ্বের অনেক প্রান্তে ‘পপুলিস্ট' বা জনমোহিনী নেতারা তাঁর উদার, মানবিক নীতির কড়া সমালোচনা করলেও বর্তমান ঘটনাপ্রবাহের আলোকে তাঁর অবস্থানের প্রতি সমর্থনের সুরও বিরল নয়৷ বিশেষ ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটের আলোকে জার্মানির মানুষের প্রতিক্রিয়াও প্রশংসা কুড়াচ্ছে৷

ম্যার্কেল-এর উদার শরণার্থী নীতির পরিণাম হিসেবে জার্মানির সাম্প্রতিক হিংসাত্মক ঘটনাগুলিকে যারা তুলে ধরছে, তথ্যের ভিত্তিতে তা খণ্ডন করেছে ব্রিটেনের ‘দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট' পত্রিকা৷

এসবি/জেডএইচ (ডিপিএ, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়