1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

‘জোরপূর্বক বোরকা’ ইস্যুতে দ্বিধাবিভক্ত বাংলাদেশের নারীরা

বোরকা না পরায় এক সরকারি কর্তার কাছ থেকে বেশ খানিকটা গালমন্দ শুনতে হয় সুলতানা আঞ্জুমান বানুকে৷ স্কুল শিক্ষিকা সুলতানা তাই দ্বারস্থ হন আদালতের৷ কেন তাঁকে বোরকা না পরার জন্য কথা শুনতে হবে?

default

বাংলাদেশে বোরকা বা নিকাব পরতে বাধ্য করা যাবে না (ফাইল ফটো)

আদালত রায় দেন সুলতানার পক্ষে৷ বোরকা পরতে কোনভাবেই বাধ্য নন তিনি৷ বরং কোন মেয়েকে জোরপূর্বকে কোন ‘ড্রেস কোড' মানতে বাধ্য করা এক রকম যৌন হয়রানি বলে রায় দেন আদালত৷

বোরকা ইস্যুতে গত কয়েকমাসে তিনবার উচ্চ আদালত রায় দিলো মেয়েদের পক্ষে৷ গত মার্চ মাসে রংপুরে নয় জোড়া তরুণ-তরুণীকে আটক করে পুলিশ৷ অভিযোগ তরুণীরা বোরকা পরেনি৷ পরবর্তীতে আদালত কিন্তু তরুণীদেরকে কোনভাবেই দায়ী করেননি৷ বরং বোরকা না পরা কোন অপরাধ নয় বলেই মত আদালতের৷

এপ্রিলের ঘটনাতো আগেই বললাম৷ কুড়িগ্রামের এক স্কুলে সুলতানা বানুসহ পঞ্চাশ শিক্ষিকাকে মাথাও চুল সম্পূর্ণ ঢেকে স্কুলে আসতে বলেন এক সরকারি কর্তা৷ এক্ষেত্রেও আদালতের রায় মেয়েদের পক্ষেই যায়৷

সর্বশেষ গতমাসে আদালত রায় দেন শিক্ষার্থীদেরকে কোন ধর্মীয় পোশাক পরতে বাধ্য করা যাবেনা৷ উত্তরাঞ্চলের এক সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ছাত্রীদেরকে নিকাব পরে কলেজে আসতে বলেছিলেন, এমনকি নিকাব বিনা কলেজে আসতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন তিনি৷ কিন্তু আদালত তাঁর এই বাধ্যবাধ্যকতা পুরোপুরি তুলে দিয়েছেন৷ এই বিষয়ে শিক্ষাসচিব সৈয়দ আতাউর রহমানের মন্তব্য, বোরকা বা ধর্মীয় পোশাক না পরলেও কোন মেয়েকে হয়রানি করা যাবেনা৷

তবে, বোরকা পরার পক্ষেও অবস্থান অনেক মেয়ের৷ একটি বেসরকারি টেলিভিশনের সংবাদ পাঠিকা ফাহমিদা ইসলাম বার্তাসংস্থা এএফপিকে জানান, হিজাব পরা আমার স্বাধীনতা৷ বাংলাদেশের উচিত ইসলামি মূল্যবোধকে আরো জাগ্রত করা৷

একইধরণের মত দিলেন সামিয়া ইসলাম৷ স্বামী হজ করার পর বোরকা পরতে শুরু করেছেন তিনি৷ সামিয়া বলেন, একজন মুসলিম নারী হিসেবে স্বপ্রণোদিত হয়ে বোরকা পরেছি আমি৷ আমি মনে করি অন্য নারীদেরও এটা করা উচিত৷ কেননা, এতে করে অনেক অনাকাঙ্খিত উৎপাত থেকে দূরে থাকা যায়৷

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় ধর্ম ইসলাম হলেও বোরকা পরার কোন বাধ্যবাধকতা নেই সেদেশে৷ ঐতিহ্যগতভাবেও বাংলাদেশি মহিলাদের পোশাক শাড়ি অথবা সেলোয়ার কামিজ৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: সাগর সরওয়ার

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়